E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

চাঁদপুরে পুলিশ হেফাজতে ২ ছাত্রদল নেতার পলায়ন

২০১৭ অক্টোবর ১৫ ১৩:৫৬:১৯
চাঁদপুরে পুলিশ হেফাজতে ২ ছাত্রদল নেতার পলায়ন

চাঁদপুর প্রতিনিধি : পুলিশের উপর হামলার অভিযোগে চাঁদপুর শহর ছাত্রদলের সভাপতি মোঃ ইসমাইল খানসহ দু’জনকে আটক করা হলেও পুলিশের চোখ ফাঁকি দিয়ে হাতকড়াসহ দৌড়ে পালিয়ে গেছে আটককৃত দুজন। আর এ ঘটনা চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ওয়ালী উলøাহ অলির উপস্থিতিতেই ঘটেছে। শনিবার বিকেলে চাঁদপুর জেলা বিএনপি কার্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে। পরে অবশ্য পুলিশকে পলায়নকারীদের আটক করার জন্য নানা কৌশল করতে দেখা গেছে।

বিএনপি চেয়ারপার্সন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেফতারি পরোয়ানার প্রতিবাদে চাঁদপুর জেলা বিএনপির উদ্যোগে শনিবার বিকেলে দলীয় কার্যালয়ে প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ চলছিলো। সমাবেশে জেলা বিএনপির যুগ্ম-আহ্বায়ক অ্যাডঃ সলিম উল্লাহ সেলিমসহ সিনিয়র নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। এই সমাবেশে চাঁদপুর শহরের বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপি, যুবদল ও ছাত্রদলের বিপুল সংখ্যক নেতা-কর্মী মিছিল সহকারে যোগ দেয়। সমাবেশ চলাকালে বিকেল ৫টার দিকে পুলিশ বিএনপি নেতা-কর্মীদের রাস্তার উপর থেকে সরে যেতে বলে। আর তখনি বিএনপি নেতা-কর্মীদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ বাঁধে। উভয় পক্ষের মধ্যে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া ইট-পাটকেল নিক্ষেপ ও লাঠিচার্জ চলে।

পুলিশ লাঠিচার্জ করে সমাবেশ পন্ড করে দেয়। তখন বিএনপির নেতা-কর্মীরা বিভিন্ন গলিতে ছড়িয়ে পড়ে। এরই মধ্যে চাঁদপুর শহর ছাত্রদলের সভাপতি মোঃ ইসমাইল হোসেন খানসহ আরো একজন ছাত্রদল কর্মীকে বিএনপি অফিসের সামনে থেকে পুলিশ আটক করে। মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ ওয়ালী উল্যাহ অলির নির্দেশে উপস্থিত অন্য পুলিশ সদস্যরা তাদের দু’জনকে আটক করে হাতকড়া পরায়। এরই মধ্যে জেলা বিএনপি অফিসের দক্ষিণ দিক মেথা রোড থেকে পুলিশকে লক্ষ্য করে ইটপাটকেল ছুড়তে থাকলে পুলিশ সেদিকে ছুটে গেলে এ সুযোগে হাতকড়া পরা ছাত্রদল সভাপতি ইসমাইল ও তার সাথের জন দৌড়ে পালিয়ে যায়। মুহূর্তের মধ্যে তারা পুলিশের নাগাল থেকে নিরাপদে চলে যায়। এ ঘটনায় উপস্থিত পুলিশ সদস্যরা হতভম্ব হয়ে যায়।

এসব বিষয়ে চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ ওয়ালী উল্যাহ অলি জানান, কোনো অনুমতি ছাড়া সমাবেশ করায় এবং জনগণের চলাচলে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করায় আমরা সমাবেশে বাধা দেই এবং রাস্তার উপর থেকে বিএনপি নেতা-কর্মীদের সরে যেতে বলি। কিন্তু বিএনপির উচ্ছৃঙ্খল কর্মীরা হঠাৎ আমাদের উপর ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে। তখন আমরা তাদেরকে লাঠিচার্জ করে ছত্রভঙ্গ করে দেই।

আর পুলিশের হাতকড়াসহ দু’জনের পলায়নের বিষয়ে তিনি জানান, এ বিষয়টি আমরা তদন্ত করে দেখছি।

চাঁদপুর জেলা বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-আহ্বায়ক অ্যাডঃ সলিম উল্যাহ সেলিম বলেন, আমাদের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে জেলা বিএনপি কার্যালয়ের ভেতরে আমাদের প্রতিবাদ ও বিক্ষোভ সমাবেশ চলছিলো। কিন্তু পুলিশ বিনা উস্কানিতে আমাদের উপর লাঠিচার্জ করে সমাবেশ পন্ড করে দেয়।

(ইউএইচ/এসপি/অক্টোবর ১৫, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test