E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

চোর সন্দেহে কিশোরীকে পুড়িয়ে হত্যা!

২০১৭ অক্টোবর ২৮ ১৪:১৯:৪৪
চোর সন্দেহে কিশোরীকে পুড়িয়ে হত্যা!

স্টাফ রিপোর্টার : মোবাইলফোন চুরি করেছে এমন সন্দেহে নরসিংদীর শিবপুর উপজেলায় আজিজা খাতুন (১৫) নামের এক কিশোরীকে গায়ে কেরোসিন দিয়ে আগুন ধরিয়ে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনাটি ঘটিয়েছেন ওই কিশোরীর আপন চাচি বিউটি বেগম।

শুক্রবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে আজিজার গায়ে আগুন দেওয়া হয়। পরে তাকে তার স্বজনরা উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি হাসপাতাল ও পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসেন। শনিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সে মারা যায়।

আজিজা শিবপুর উপজেলার খনকুট গ্রামের আব্দুস সাত্তারের মেয়ে। ঢামেকে আব্দুস সাত্তার সাংবাদিকদের জানান, সম্প্রতি তাদের এলাকায় বেশ কয়েকটি মোবাইলফোন চুরি হয়েছে। তার ভাইয়ের স্ত্রী বিউটি বেগমেরও একটি মোবাইলফোন চুরি যায়। শুক্রবার রাতে বিউটি বেগম ও তার কিছু লোক এসে আজিজাকে নিয়ে যায় ও নিজের মোবাইল ফেরত চায়। মোবাইল সম্পর্কে জানে না জানালে ক্ষিপ্ত হয়ে আজিজার গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন বিউটি বেগম।

আব্দুস সাত্তার আরো বলেন, ‘আমার মেয়েকে মোবাইল চুরির অপবাদ দিয়ে হাত-পা বেঁধে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয় তারা। অথচ আমার মেয়ের কোনো অপরাধই ছিল না।’

ঢামেক সূত্র জানিয়েছে, আজিজাকে আগুন দেওয়ায় তার মুখ ও মাথা মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল। এ ছাড়া তার শরীরের বিভিন্ন অংশ পুড়ে গিয়েছিল।

ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই বাচ্চু মিয়া বলেন, ‘নিহতের আজিজার গায়ে তার চাচি আগুন দিয়েছে বলে আমাদের কাছে অভিযোগ করেছেন তার স্বজনরা। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে রাখা হয়েছে।’

(ওএস/অ/অক্টোবর ২৮, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

২২ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test