Ena Properties
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

মৌলভীবাজার জেলা বিশ্ব ইজতেমা মাঠের কাজ  শুরু ১৫ ডিসেম্বর

২০১৭ ডিসেম্বর ০৭ ১৭:৪৪:২৭
মৌলভীবাজার জেলা বিশ্ব ইজতেমা মাঠের কাজ  শুরু ১৫ ডিসেম্বর

মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, মৌলভীবাজার প্রতিনিধি : ২০১৮ সালের জানুয়ারী মাসের ২৫,২৬ ও ২৭ তারিখে প্রথমবারের মতো মৌলভীবাজারে শুরু হচ্ছে ধর্মপ্রাণ লক্ষ লক্ষ মানুষের অংশগ্রহনে আঞ্চলিক জেলা বিশ্ব ইজতেমা। ইজতেমাকে সামনে রেখে এ অঞ্চলের ধর্মপ্রাণ মানুষের মাঝে বিরাজ করছে ভীন্ন আমেজ । প্রথমবারের মতো শহরের উপকন্ঠে সরকারী প্রকল্পের মাঠে ইজতেমা আয়োজনকে নিজেদের পরম সৌভাগ্যবান মনে করছেন সদর উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের ধর্মপ্রান মানুষেরা। ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের সাদরে বরণ করে নিতে প্রস্তুত এই গ্রামের বিভিন্ন বয়সী মানুষেরা। চটের তৈরি প্যান্ডাল এর জন্য প্রত্যেক বাড়ি থেকে স্বেচ্ছায় কাচা বাশ নিজেরা কেটে তা পৌছে দিচ্ছেন তাবলিগ জামাতের মাঠের দ্বায়ীত্বশীলদের নিকঠ। আগত মুসল্লিদের ইবাদত বন্দেগিকে নির্ভিগ্ন করতে তাবলিগ জামাতের সাথিদের পাশাপাশি নিজেরাও তৈরি হচ্ছেন নানা ভাবে।

মাঠের সর্বশেষ অবস্থা জানতে সরজমিনে গিয়ে তাবলিগ জামাতের এক শুরা সদস্যের সাথে কথা বলে জানা গেছে তাবলিগের সাথিরা ইতিমধ্যে মাঠের কাজে স্বেচ্ছায় শ্রম দিতে শুরু করেছেন। বর্তমানে ইজতেমাকে সামনে রেখে অবস্থান করছেন ইংল্যান্ড ,মালোয়শিয়া সহ কয়েকটি বিদেশী জামাত।

তাবলিগ জামাতের একটি সূত্র জানিয়েছে , বর্তমানে জেলা সদর সহ বিভিন্ন উপজেলার প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নে এক বা একাধিক জামাত অবস্থান করছেন।

বৃহস্পতিবার (৭ ডিসেম্বর) বিকালের দিকে ইজতেমা মাঠে গিয়ে দেখা যায়, মৌলভীবাজার পৌরসভার তত্বাবধানে মুসল্লিদের অজু ও গোসলের জন্য প্রায় একহাজার ফুট দীর্ঘ পানির হাউজ নির্মানের এর কাজ করছেন মৌলভীবাজার পৌরসভার শ্রমিকরা।

এসময় মাঠ পরিচ্ছন্ন কার্যক্রম দেখতে আসা মৌলভীবাজার পৌরসভার কাউন্সিলর ও বিশিষ্ট সমাজসেবক আলহাজ্ব আয়াছ আহমদ জানান, বর্তমানে ইজতেমা মাঠের সার্বিক পরিচ্ছন্ন কাজ পৌরসভার পরিচ্ছন্ন কর্মীরা করে যাচ্ছেন।

তিনি বলেন, ঐতিহাসিক এই তাৎপর্যপূর্ণ সমাবেশকে সফল করতে মৌলভীবাজার পৌরসভার পক্ষ থেকে আমরা সবধরণের সহযোগিতা দিয়ে যাব।

জেলা তাবলীগ জামাত এর শুরা সদস্য ময়নুল ইসলাম জানিয়েছেন, আগামী সাপ্তাহের ১৫ ডিসেম্বর আনুষ্ঠানিক ভাবে মাঠের প্যান্ডালের কাজ উদ্বোধন করবেন জেলার বিশিষ্ট আলেম মাওলানা রশীদ আহমদ ফারুক শায়েখে বর্ণভী।

তিনি বলেন , ইজতেমা মাঠের কাজ মূলত শুরু হয়ে গেছে অনেক আগে থেকে, এখন মাত্র আনুষ্ঠানীকতা বাকী। জেলা শহরের উপকন্ঠে ঢাকা-সিলেট মহাসড়কের কোলঘেষে সদর উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামে গণপূর্ত বিভাগের নির্মানাধিন প্রকল্প এলাকা উপশহরে প্রায় ৬০ একর জায়গার প্রায় পুরো মাঠ জুরেই তৈরি হবে বিশাল চটের প্যান্ডেল ।

এরই মধ্যে তাবলিগ জামাতের নীতিনির্ধারনী ফোরাম মজলিশে শুরা ইজতেমা বাস্তবায়নের লক্ষে শীর্ষ মুরব্বিদের অংশগ্রহনে বৈঠক করেছেন। সেখানে আঞ্চলিক এই জেলা বিশ্ব ইজতেমাকে সার্বিকভাবে সফল করতে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

(একে/এসপি/ডিসেম্বর ০৭, ২০১৭)

পাঠকের মতামত:

১১ ডিসেম্বর ২০১৭

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test