Occasion Banner
Mobile Version

ডিবির হেফাজতে টাঙ্গাইল ডিসি অফিসের কর্মচারীর মৃত্যু

২০১৮ জানুয়ারি ১৩ ১৭:৩৮:৩৮
ডিবির হেফাজতে টাঙ্গাইল ডিসি অফিসের কর্মচারীর মৃত্যু

জামালপুর প্রতিনিধি : জামালপুরে ডিবি পুলিশের হেফাজতে টাঙ্গাইল ডিসি অফিসের কর্মচারীর মৃত্যুর অভিযোগ পাওয়া গেছে। জুয়ারী হিসেবে গ্রেফতারকৃত নাজিম উদ্দিনকে (৫৯) ডিবি পুলিশ শনিবার ভোর ৪টা ৪৫ মিনিটে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন। 

পুলিশের দাবি, গ্রেফতারের পর হৃদযন্ত্রের ক্রিয়া বন্ধ হয়ে তার মৃত্য হয়। পরিবারের অভিযোগ, পুলিশী নির্যাতনে নাজিম উদ্দিন মারা গেছে। নিহতের বাড়ী টাঙ্গাইলের সদর উপজেলার রসুলপুর ইউনিয়নের সালনা গ্রামে।

জামালপুর ডিবি পুলিশের ওসি সালেমুজ্জামান জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে ডিবি পুলিশের এসআই খায়রুল ইসলামের নেতৃত্বে ডিবি পুলিশের দল জেলার সরিষাবাড়ী উপজেলার বয়রা বাজার অভিযান চালায়। টের পেয়ে জুয়ারীরা দৌড়াদৌড়ি শুরু করলে নাজিম উদ্দিনসহ ১০ জনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃতদের পিকআপযোগে নিয়ে আসার পথে নাজিম উদ্দিন স্ট্রোক করে। পরে রাতে জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার মৃত ঘোষণা করেন।

জরুরী বিভাগের কর্তব্যরত ডাক্তার হাসানুল বারী শিশির বলেন, ডিবি পুলিশের এসআই আব্দুল জলিল ভোর ৪টা ৪৫ মিনিটে এক ব্যক্তিকে নিয়ে আসেন। প্রাথমিক পরীক্ষা নিরীক্ষায় দেখা গেছে, অনেক আগেই মারা গেছেন নাজিম উদ্দিন। আমরা ডেড বডি গ্রহণ করেছি।

নিহতের ভাই আব্দুল কাদের (৫০) দাবি করেন, আমার ভাই সরকারী জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে প্রসেস সার্ভার। তাকে আমি কখনও বিড়ি সিগারেট এমনকি তাস পর্যন্ত খেলতে দেখিনি। শুক্রবার সন্ধায় বাড়িতেই ছিল। বেড়ানোর কথা বলে বাসা থেকে বের হয়ে আসে। সকালে খবর পাই, আমার ভাইকে জামালপুরের ডিবি পুলিশে ধরে নিয়ে গেছে।

ডিবি পুলিশে ফোন দিলে নাজিম উদ্দিন নামে কাউকে গ্রেফতার করা হয়নি। আমি জামালপুরে এসে খবর পাই জামালপুর জেনারেল হাসপাতালে অজ্ঞাত এক ব্যাক্তির মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। হাসপাতালে গিয়ে আমার ভাইকে শনাক্ত করি। আমার ভাই স্ট্রোক করেনি দাবি করে তিনি আরো বলেন, ডিবি পুলিশের নির্যাতনে আমার ভাই মারা গেছে।

(আরআর/এসপি/জানুয়ারি ১৩, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২১ আগস্ট ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test