Ena Properties
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

কেন্দুয়ায় গীতিকার চন্দ্রকুমারের ভিটে দেখলেন কবি-সাহিত্যিকরা

২০১৮ ফেব্রুয়ারি ১৩ ১৮:৩৪:৩৯
কেন্দুয়ায় গীতিকার চন্দ্রকুমারের ভিটে দেখলেন কবি-সাহিত্যিকরা

কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহ গীতিকার সংগ্রাহক চন্দ্রকুমার দে। তিনি আজ পৃথিবীতে না থাকলেও তার রেখে যাওয়া সংগ্রহ ময়মনসিংহ গীতিকা ও লোকজ সংস্কৃতিকে বিশ্বে অনেক সমৃদ্ধ করেছে। চন্দ্রকুমার দে’র পৈতৃক ভিটেবাড়ীর স্মৃতি চিহ্ন দেখতে আসেন ময়মনসিংহের কবি সাহিত্যিকরা। 

মঙ্গলবার দুপুরে নেত্রকোণার কেন্দুয়া পৌরশহরের আইথর গ্রামে ছুটে আসেন ছড়াকার ডক্টর আতাউল করিম, কবি ইয়াজদানি কোরাইশি কাজল, গবেষক আবুল কালাম আল আজাদ, কবি আকন্দ রফিক, কবি আলী ইউসুফ ও কবি জনপদ চৌধুরী।

আগত কবি সাহিত্যিকদের বসন্তের প্রথম দিনে হৃদয়ের গভীর ভালবাসায় বরন করে নেন চন্দ্রকুমার দে’র ভ্রাতুষ্পুত্র লোক ঐতিহ্য সহগ্রাহক সন্তোষ সরকার, গীতিকার লেখক ও প্রবীন রাজনীতিক মো: নূরুল ইসলাম ও কেন্দুয়া উপজেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা।

এর আগে মরমি বাউল সাধক জালাল উদ্দিন খাঁর সিংহের গাঁেয়র গ্রামের বাড়ীতে যান কবি সাহিত্যিকগণ। সেখানে বাউল সাধকের মাজারে দোয়ায় মিলিত হন এবং তার কর্মময় জীবন নিয়ে আলোচনা ও বাউল গান পরিবেশিত হয়।

ছড়াকার ডক্টর আতাউল করিম বলেন, চন্দ্রকুমার দে’র স্মৃতি চিহ্ন রক্ষার্থে সকলে এগিয়ে আসলে আমিও সবার সঙ্গে হাতবাড়িয়ে সহযোগীতা করব।

তিনি বলেন, নতুন প্রজন্মের কাছে ইতিহাস ঐতিহ্য তুলে ধরার লক্ষ্যে লোকজ সংস্কৃতির সংরক্ষন ও লালন করার জন্যই চন্দ্রকুমার দে’র স্মৃতি রক্ষা করা দরকার।

(এসবি/এসপি/ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test