E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সেই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ফরম পুরণের টাকা আত্মসাতের প্রমান মিলেছে 

২০১৮ মার্চ ১০ ১৬:০১:০৮
সেই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ফরম পুরণের টাকা আত্মসাতের প্রমান মিলেছে 

অমল তালুকদার, পাথরঘাটা (বরগুনা) : বরগুনার পাথরঘাটা উপজেলার ৬নং কাকচিড়া ইউনিয়নের জালিয়াঘাটা এসইএসডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সেই বিতর্কিত সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ের শিক্ষিকা মোসাঃ দুলি আক্তার এর বিরুদ্ধে লাখ-লাখ টাকা আত্মসাৎসহ ব্যাপক দুর্নীতির অভিযোগের প্রমান পেয়েছে তদন্ত কমিটি। জানা গেছে ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের মধ্যে উপজেলার বিভিন্ন বিদ্যালয় থেকে টেস্ট পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করে একাধিক বিষয়ে অকৃতকার্য পরীক্ষার্থীরা সংশ্লিষ্ট বিদ্যালয় থেকে পরীক্ষা দিতে ব্যর্থ হয়। পরে ওই সকল অকৃতকার্য পরীক্ষার্থীদের মধ্যে উপজেলার  লেমুয়া আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়, রুপদন বন্দর মাধ্যমিক বিদ্যালয়, নাচনাপাড়া মানিকখালি মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ ৬টি বিদ্যালয়ের ৪৭জন পরীক্ষার্থীকে জালিয়াঘাটা এসইএসডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞান বিষয়ের শিক্ষিকা মোসাঃ দুলি আক্তার তাদের বিদ্যালয় থেকে উক্ত পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করিয়ে পরীক্ষায় পাসকরাসহ ভাল ফলা-ফলের প্রলোভন দেখিয়ে পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে জন প্রতি ১৩হাজার থেকে ২৫ হাজার টাকা পর্যন্ত  হাতিয়ে নিয়ে পরীক্ষার্থীদের ফরম পুরণ ফি-শিক্ষা বোর্ডে জমা নাদিয়ে সকল টাকা আত্মসাৎ করে ব্যাক্তিগত কাজে ব্যয় করে  । 

যার ফলে দুলি আক্তারের কাছে ফরম ফি-বাবদ টাকা জমা দেওয়া ৪৭ পরীক্ষার্থী ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের এসএসসি পরীক্ষায় অংশ গ্রহন করতে পারেনি। বিষয়টি নিয়ে গত ২ফেব্রুয়ারি জনপ্রিয় অনলাইন উত্তরাধিকার৭১ নিউজসহ বেশ ক’টি দৈনিক পত্রিকা ,টিভি চ্যানেল এবং একাধিক পত্রিকায় খবর প্রকাশ হওয়ার পরে উল্লেখিত এলাকার একাধিক ব্যক্তি সংশ্লিষ্ট শিক্ষকরে বিরুদ্ধে পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার এর বরাবর দরখাস্ত করেন।

পরে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ হুমায়ুন কবির একটি তদন্ত কমিটি করে ৩মার্চ সরেজমিন উল্লেখিত বিদ্যালয় গিয়ে ভুক্তভুগী পরীক্ষা বঞ্চিত ছাত্র/ছাত্রী ও অভিভাবকদের সাথে কথা বলাসহ লিখিত স্বাক্ষ গ্রহন করে দুলি আক্তারের বিরুদ্ধে পরীক্ষাথীদের কাছ থেকে প্রতারণার মাধ্যমে লাখ-লাখ টাকা হাতিয়ে নেওয়াসহ বিভিন্ন দুর্নীতির অভিযোগের প্রমান পান।

এসময়ে উপস্থিত শতাধিক ব্যক্তি দুলি আক্তারের ব্যাপক দূর্নীতি কথা তুলে ধরে তার অপসারনসহ সঠিক বিচার দাবী করেন। উপস্থিত শতাধিক ব্যক্তিরা বলেন একজন অর্থলোভী দুলির কারনে ৪৭জন ছাত্র/ছাত্রী জীবন নষ্ট হয়ে গেছে আমরা এর কঠিন বিচার চাই, তারা আরো বলেন যে দুলি আক্তার একজন বেপরোয়া ও মামলাবাজ শিক্ষিকা তার বিরুদ্ধে কেউ কিছু বলতে গেলে তার নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয়রানী করে।

এসময় দুলি আক্তার পরীক্ষার্থিদের কাছ থেকে গ্রহন করা লাখ-লাখ টাকা ফেরত দিবেন বলে উল্লেখিত তদন্ত কমিটির কাছে লিখিত অঙ্গীকার করেন। এব্যাপারে পাথরঘাটা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ হুমায়ুন কবির এর কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন বিষয়টির ব্যাপারে সরেজমিনে গিয়ে তদন্ত করা হয়েছে এবং শিক্ষিকা মোসাঃ দুলি আক্তার এর বিরুদ্ধে ২০১৬-২০১৭ শিক্ষাবর্ষের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে টাকা গ্রহন করার অভিযোগের প্রমান পাওয়া গেছে

এখন কর্তৃপক্ষ বরাবর প্রতিবেদন দাখিল করা হবে। পাথরঘাটা উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোস্তফা আলম এর কাছে জানতে চাইলে তিনিও জানান, বিষয়টির ব্যাপারে আমি অবগত হয়ে ওই শিক্ষিকাকে কারণ দর্শানো নোটিশ দিয়েছি। পরবর্তীতে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করে তদন্ত করা হয়েছে, এখন তার ব্যাপারে কর্তৃপক্ষ বরাবর প্রতিবেদন দাখিল করা হবে।

এ ব্যাপারে দুলি আক্তারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমি সকলের টাকা ফেরত দিব।

(এটি/এসপি/মার্চ ১০, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test