E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

ভোটে নামছে বিজিবি, কেন্দ্র পর্যবেক্ষণে সিসি ক্যামেরা

২০১৮ এপ্রিল ২৯ ১৮:২৯:০৬
ভোটে নামছে বিজিবি, কেন্দ্র পর্যবেক্ষণে সিসি ক্যামেরা

খুলনা প্রতিনিধি : আগামী ১৫ মে খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোটের দুই দিন আগে নির্বাচনী এলাকায় আধা সামরিক বাহিনী বিজিবি মোতায়েনের কথা জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার শাহাদাৎ হোসেন চৌধুরী। বলেছেন, ভোটারদের নিরাপত্তায় প্রতিটি কেন্দ্রে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পর্যাপ্ত সদস্য মোতায়েন করা হবে। আর কেন্দ্রে নজরদারি বাড়াতে থাকবে ক্লোজ সার্কিট বা সিসি ক্যামেরা।

ভোটের প্রচারে যখন দক্ষিণের মহানগরটি সরগরম, তখন রবিবার দুপুরে খুলনার সার্কিট হাউজের লবিতে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে নির্বাচন কমিশনার নানা বিষয়ে কথা বলেন। এর আগে তিনি খুলনার সার্কিট হাউজের সম্মেলন কক্ষে প্রশাসনিক কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিভাগীয় সমন্বয় কমিটির সভায় মিলিত হন।

খুলনা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশনে ভোটের সাত দিন আগে সেনাবাহিনী মোতায়েনের দাবি ছিল বিএনপির। নির্বাচন কমিশন সে দাবি অগ্রাহ্য করেছে বরাবরের মতোই।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নে শাহাদাৎ বলেন, ‘নির্বাচনে সেনা মোতায়েন করার কোনো পরিকল্পনা নির্বাচন কমিশনের নেই। তবে নির্বাচন অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ করতে যা যা প্রয়োজন তার সব প্রস্তুতি রয়েছে।’

‘নির্বাচনী এলাকায় জেলা প্রশাসনের ১৩/১৪ জন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইতিমধ্যে মাঠে কাজ করছে। আগামী ১৩ মে মোতায়েন হবে বিজিবি। এছাড়াও র‌্যাব, পুলিশসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় নিয়োজিত বাহিনীর সদস্যরা সার্বক্ষণিক নির্বাচনের মাঠে দায়িত্ব পালন করবেন।’

প্রতিটি কেন্দ্রে ১২ জন ও গুরুত্বপূর্ণ (ঝুঁকিপূর্ণ) কেন্দ্রে ২২ জন করে নিরাপত্তা কর্মী মোতায়েন থাকবে বলেও জানান এই নির্বাচন কমিশনার।

নির্বাচন কমিশনার জানান, সব দলের প্রার্থীরা যাতে নির্বাচনে তাদের প্রচার-প্রচারণা স্বাভাবিকভাবে করতে পারেন সে ব্যাপারে স্থানীয় প্রশাসন ও আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তাসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

খুলনায় একটি ওয়ার্ডে অথবা চার বা পাঁচটি কেন্দ্রে ইলেক্ট্রনিক্স ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করে ভোট নেয়ার পরিকল্পনার কথাও জানান এই নির্বাচন কমিশনার। বলেন, ‘প্রতিটি ভোট কেন্দ্রকে সিটি টিভির আওতায় আনার জন্য কাজ করা হচ্ছে।’

নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ, বিভাগীয় কমিশনার লোকমান হোসেন মিয়া, খুলনার রেঞ্জের ডিআইজি দিদার আহমেদ, খুলনা মহানগর পুলিশের কমিশনার হুমায়ুন কবির, জেলা প্রশাসক আমিন উল আহসান, র‌্যাব-৬ এর অধিনায়ক খোন্দকার রফিকুল ইসলামসহ প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তারা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

(ওএস/এসপি/এপ্রিল ২৯, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test