E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

নবীগঞ্জে মন্দিরের মূর্তি ভাংচুর, দানবাক্স লুট

২০১৮ মে ১২ ১৭:১৯:২৬
নবীগঞ্জে মন্দিরের মূর্তি ভাংচুর, দানবাক্স লুট

হবিগঞ্জ থেকে : হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বাউশা ইউনিয়নের সুজাপুর গ্রামে শ্রী শ্রী শ্মশান কালী মন্দিরে মূর্তি ভাংচুর ও টাকাভর্তি দান বাক্স নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। ঘটনাটি ঘটেছে গত শুক্রবার দিবাগত রাতে। 

এ ঘটনাকে হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের নেতৃবৃন্দের দাবি আগামী জাতীয় নির্বাচনকে সামনে রেখে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুন্ন করার লক্ষে একটি কূচক্রী মহল এই ষড়যন্ত্র করেছে। খবর পেয়ে গতকাল শনিবার সকালে ওই মন্দির পরিদর্শন করেন পুলিশ ও বিভিন্ন মহলের নেতৃবৃন্দ।

সূত্রে প্রকাশ, হবিগঞ্জ জেলার নবীগঞ্জ উপজেলার বাউশা ইউনিয়নের সুজাপুর গ্রামে প্রায় কয়েক শতাধিক হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকজনের হিন্দু ধর্মালম্বীদের ঐতিহ্যবাহী এ কালী মন্দির। এখানে তারা নিয়মিত পূজা ও অর্চনা করে থাকেন। গত শুক্রবার রাতে অন্ধকারে কে বা কারা মন্দিরের গেইটের তালা ভেঙ্গে ভেতরে প্রবেশ করে মুর্তি ভাংচুর করেছে। এসময় এখানে রক্ষিত টাকাভর্তি দান বাক্স চুরি করে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা।

এ সংবাদটি গতকাল শনিবার সকালে জানানো হলে হবিগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার পারভেজ আলম তাৎক্ষনিকভাবে ঘটনাস্থলে আসেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, নবীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব সাইফুল জাহান চৌধুরী, পৌরসভার প্যানেল মেয়র এটিএম সালাম, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবু সিদ্দিক, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি নারায়ন রায়, সাধারন সম্পাদক উত্তম কুমার পাল হিমেল, দৈনিক হবিগঞ্জ সময় পত্রিকার বার্তা সম্পাদক মতিউর রহমান মুন্না। এ সময় তারা ঘটনার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমুলক শাস্তীর দাবী জানিয়েছেন। অপর দিকে, ঘটনাকে চুরি বলে প্রাথমিক ভাবে ধারনা করছেন নবীগঞ্জ থানা পুলিশ।

এ ব্যাপারে হবিগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার পারভেজ আলম এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, যেহেতু ঘটনাটি রাতের আধারে সংঘটিত হয়েছে। কে বা কারা এর সাথে জড়িত তা এখনো কর্তৃপক্ষ সনাক্ত করতে পারেনি। অভিযোগ দেওয়া হলে তদন্ত পূর্বক ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(এমইউএ/এসপি/মে ১২, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৭ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test