E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

মেলান্দহে জাকির হত্যার ঘটনায় মামলা না নেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন 

২০১৮ জুন ০২ ১৬:০২:৪৯
মেলান্দহে জাকির হত্যার ঘটনায় মামলা না নেয়ার প্রতিবাদে মানববন্ধন 

জামালপুর প্রতিনিধি : মেলান্দহে গার্মেন্টস কর্মী জাকির হত্যাকান্ডের ঘটনায় ওসি মামলা না নেয়ার প্রতিবাদ ও খুনি মামুনকে গ্রেফতারের দাবিতে মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী। মানববন্ধন শেষে নিহতের পরিবার    সংবাদ সম্মেলন করেছে। উপজেলার চরপলিশা তালতলা মোড়ে শনিবার দুপুর ১২টায় এসব কর্মসুচি পালিত হয়।

মেলান্দহ- দেওয়ানগঞ্জ মহাসড়কের চরপলিশা তালতলা মোড়ে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, নিহত জাকিরের বাবা আবুল কাশেম, মা জবেদা খাতুন, স্থানীয় আওয়ামীলীগ নেতা আলমগীর হোসেন. সুজন মিয়া, মো: জিয়া ও মামুন মিয়া প্রমুখ।

মানববন্ধনে চরপলিশা গ্রামের প্রায় ৫ শতাধিক নারীপুরুষ অংশ নেয়।

মানববন্ধন শেষে স্থানীয় একটি ক্লাব ঘরে অনুষ্ঠিত সংবাদ সন্মেলনে নিহত গার্মেন্টসকর্মী জাকিরের স্ত্রী চায়না খাতুন লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করেন, আমি ও আমার স্বামী জাকির হোসেন নারায়নগঞ্জের মডেল র্গামেন্টন্সে কাজ করি। আমার স্বামী ২৪ মে গ্রামের বাড়ি মেলান্দহের চরপলিশা এলাকায় বেড়াতে আসে। সেইদিন রাতে চরপলিশা মধ্যপাড়া গ্রামের আমার স্বামীর বন্ধু মামুন তাকে বাড়ী থেকে বেড়ানোর কথা বলে সিএনজি যোগে মেলান্দহের নাংলায় নিয়ে যায়। তাকে রাতে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে পরদিন হাসপাতালে লাশ নিয়ে গেলে হাসপাতালে কর্তব্যরতরা মামুনের শ্যালককে আটক করলেও মামুন ও তাঁর সহযোগীরা দৌড়ে পালিয়ে যায়।

খুনির পরিবারের কাছ থেকে মোটা অংকের ঘুষ নিয়ে লাশ উদ্ধারের ৩ ঘন্টার মাথায় স্বপ্রণোদিত হয়ে মেলান্দহ থানার ওসি আজিজুর রহমান অপমৃত্যুর মামলা নেয়। আটককৃত খুনির শ্যালক রবিন মিয়া (২০) কে সন্দেহমুলক দেখিয়ে ৫৪ ধারায় আদালতে প্রেরণ করলে আদালত থেকে জামিন পেয়ে নিহতের পরিবারকে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে অভিযোগ করেন নিহতের স্ত্রী। ঘটনার ৯ দিন পেরিয়ে গেলেও জাকির হত্যার মামলা নিচ্ছেনা মেলান্দহ থানা পুলিশ। মামলা গ্রহন করে ন্যায় বিচার নিশ্চিত ও জাকির হত্যার সাথে জড়িত মামুন ও তাঁর সহযোগীদের গ্রেফতারের দাবি জানায়।

তরিঘরি করে অপমৃত্যুর মামলা নেয়ার সদুত্তর না দিয়ে মেলান্দহ থানার ওসি অজিজুর রহমান বলেছেন, পোস্টমার্টেম রির্পোট আসলে নিয়মিত মামলা নেয়া হবে।

(আরআর/এসপি/জুন ০২, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৯ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test