E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

কাপাসিয়ার যুবলীগ-ছাত্রলীগের ৭১ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

২০১৮ জুন ০৬ ১৫:১৩:৪২
কাপাসিয়ার যুবলীগ-ছাত্রলীগের ৭১ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে মামলা

কাপাসিয়া (গাজীপুর) প্রতিনিধি : গাজীপুরের কাপাসিয়ায় যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের ৭১ নেতা-কর্মীর বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে প্রতিপক্ষ। গত বৃহস্পতিবার উপজেলার বারিষাব ইউনিয়নের গাওরা এলাকায় এক ইফতার ও আলোচনা সভায় হামলার কারণে এ মামলাটি করেন উপজেলা কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহবুবুল আলম বাবলু। 

মামলা হওয়ার পর গাঢাকা দিয়েছে যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও স্বেচ্ছাসেবক লীগের নেতা-কর্মীরা। আওয়ামী লীগের অংগ সংগঠনের একটি পক্ষ আরেক পক্ষের বিরুদ্ধে মামলা হওয়ায় উভয় পক্ষের নেতা-কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোনো সময় দু’পক্ষের মধ্যে মারাত্মক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটতে পারে বলে নেতা-কর্মীদের আশংকা।

মামলায় উপজেলা যুবলীগের সভাপতি মো. সেলিম, সাধারণ সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক আ. রউফ, সাবেক ছাত্রলীগ সভাপতি রাজীব ঘোষসহ ১১ নেতার নাম উল্লেখ রয়েছে। আর এতে আওয়ামী লীগ কৃষকলীগের মধ্যে দ্বন্দ্ব প্রকাশ্য রূপ নিয়েছে। কাপাসিয়া থানার মামলা নম্বর ০৩, তারিখ ৩ জুন।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার গাওরার কাজীপাড়া মসজিদ মাঠে বাংলাদেশ কৃষকলীগ বিশ্ব বরেণ্য জননেত্রী শেখ হাসিনার উন্নয়ন শীর্ষক আলোচনা সভা ও ইফতার মাহফিলে কৃষকলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লা ও দেশের প্রথম প্রধানমন্ত্রী বঙ্গতাজ তাজউদ্দীন আহমদের ভাগিনা কৃষকলীগের উপদেষ্টা আলম আহমেদসহ সহস্রাধিক নেতা-কর্মীর উপস্থিতিতে বৃহস্পতিবার বিকেল সোয়া ৫টার দিকে আলোচনা সভা চলাকালিন আসামীরা লাঠি, লোহার রড, বল্লম দেশিয় অস্ত্রসহ অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় ৫-৬টি মাইক্রোবাস ও ১০-১২টি মোটরসাইকেল ভাঙচুর করে ইফতার সামগ্রী ফেলে দেয় এবং মঞ্চ ভেঙে ফেলে। এতে অন্তত অর্ধ কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে উল্লেখ করা হয়।

এ সময় কেন্দ্রীয় কৃষকলীগ সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লা, তাজউদ্দীনের ভাগিনা আলম আহমেদসহ ৩৫ নেতা-কর্মী আহত হয়। আহতদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।

তাজউদ্দীন আহমেদের ভাগিনা কৃষকলীগের উপদেষ্টা আলম আহমেদ বলেন, আমরা শান্তিপূর্নভাবে বিভিন্ন সময় সরকারের নানা উন্নয়ন কর্মকান্ড প্রচার ও রাজনৈতিক কার্যক্রম করে আসছি। কিন্তু আমাদের এহেন কার্যক্রমে কাপাসিয়ার চিহ্নিত কিছু সন্ত্রাসী মাদকসেবীরা বাধা-প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় পবিত্র রমযান মাসে ইফতারে হামলা চালায়েছে।

কাপাসিয়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবু বকর সিদ্দিক মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে।

(এসকেডি/এসপি/জুন ০৬, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২১ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test