E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

‘এরশাদ শিকদারের মত বুকের উপর লাথি মেরে নির্যাতন করতো আমার স্বামী’

২০১৮ জুন ২৫ ১৭:২৭:৩০
‘এরশাদ শিকদারের মত বুকের উপর লাথি মেরে নির্যাতন করতো আমার স্বামী’

নোয়াখালী প্রতিনিধি : মোঃ ইমাম উদ্দিন সুমন, স্টাফ রিপোর্টারঃ নোয়াখালী সুবর্ণচরে  যৌতুকের দাবীতে মধ্যযুগীয় কায়দায় ২ সন্তানের জননী গৃহবধূকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে,  গুরুত্বর আহত ২ সন্তানের জননী ঐ গৃহবধূ বর্তমানে সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছেন। বর্বর নির্যাতনের রোমহর্ষক বর্ণনা দিলেন গৃহবধূর নিজেই।

এ ব্যাপারে নির্যাতিত গৃহবধূ চরজব্বর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন, স্বরজমিনে গিয়ে জানাযায় ২০০৪ সালে সুবর্ণচর উপজেলার ২ নং চরবাটা ইউনিয়নের মধ্যম চরবাটা গ্রামের মোক্তার হোসেনের কন্যা শাহানা আক্তার শিল্পীর সাথে পূর্ব হাজীপুর গ্রামের আব্দুর রব মাওলানার পুত্র সাইফুল ইসলামের সাথে সামাজিক ভাবে বিয়ে হয়, বিয়ের পর থেকে সাইফুল ইসলাম (৪৫) যৌতুকের দাবীতে প্রায় তাকে বর্বর নির্যাতন চালাতো মেয়ের সুখের কথা ভেবে ভিবিন্ন সময়ে শিল্পীর বাবা ৩ লক্ষ টাকা প্রদান করেন তবুও পূনরায় নির্যাতন চালাতে থাকে মাদকাসক্ত স্বামী সাইফুল ইসলাম এ নিয়ে বেশ একাধিকবার শালিস বিচার হলেও পরিবর্তন হয়নি সাইফুলের চরিত্র।

সর্বশেষ গত ২২ জুন শুক্রবার সাইফুল ইসলাম ও তার পরিবার পূনরায় যৌতুকের দাবিকে শিল্পীকে ঘরে তালাবদ্ধ করে মধ্যযুগীয় কায়দায় বর্বর নির্যাতন চালায় এতে শিল্পীর আত্মচিৎকারে আশপাশের লোকজন তাকে উদ্ধার করে। শনিবার ২৩ জুন শিল্পী বাদী হয়ে তার স্বামী সাইফুল ইসলাম ও শশুর আব্দুর রব মাওলানা সহ ৩ জনকে আসামি করে চরজব্বর থানায় একটি অভিযোগ আদায়ের করেন। বর্তমানে শিল্পী সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ১৪ বেড়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় আছে আছে, তার শরিরে বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

এ ব্যাপারে চরজব্বর থানার তদন্ত কর্মকতা ইকবাল হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বিকার করে বলেন, অভিযোগ পেয়েছি খুব শিগ্রই আমরা আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রাহন করবো। নির্যাতিত শিল্পীর ঘরে ২ টি ছেলে সন্তান রয়েছে। ভিকটিমের ভাই পাবেল আহম্মেদ জানান, বিয়ের পর থেকে সাইফুল ইসলাম ও পরিবার শিল্পীকে যৌতুকের দাবিতে বহুবার নির্যাতন করে আসছে বোনের সুখের দিকে তাকিয়ে অনেক কোন প্রতিবাদ করেনি তারা।

নির্যাতিত শিল্পী বলেন, “আঘাতের চিহ্ন থাকবে বলে সে আমাকে লাঠি দিয়ে মারতনা, বাচ্চাদের ঘর থেকে বের করে দিয়ে এরশাদ শিকদারের মত বুকের উপর লাথি মেরে নির্যাতন করতো আমার স্বামী, একাধিকবার হত্যার চেষ্টাও করা হয় আমাকে, অনেক সময় আমি অজ্ঞান হয়ে পড়লে সে আমার মুখে পানি দিয়ে জ্ঞান ফিরিয়ে আবার নির্যাতন চালাতো, কাউকে বললে আমার সন্তানদের হত্যা করে পেলবে বলে আমাকে হুমকি দিতো, সন্তানদের জীবন রক্ষার জন্য সব নির্যাতন সয্য করেছি কিন্তু আর সয্য করতে পারছিনা আমি ” গৃহবধূর আরো বলেন, আভিযুক্ত সাইফুল সে চট্রগ্রামের একটি জাহাজে চাকুরী করার সুবাধে প্রায় ঢাকা চট্রগ্রাম আসা যাওয়া করেন তার সাথে অজ্ঞত নারীর পরকিয়ার সম্পর্ক থাকতে পারে বলে ধারনা করছেন তিনি।

স্থানীয়রা জানান, দির্ঘ বছর ধরে স্বামী সাইফুল ইসলাম তাকে অমানুষিক নির্যাতন করে আসছে , একাধিকবার শিল্পীকে হত্যার চেষ্টা করেছে তারা। অভিযুক্ত সাইফুল মাদকাসক্ত হওয়ায় ভয়ে কেউ প্রতিবাদ করতে সাহস পায়না। উপযুক্ত বিচারের বাদীতে স্থানীয় প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছেন নির্যাতিত শিল্পীর পরিবার।

(আইইউএস/এসপি/জুন ২৫, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৬ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test