E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

লোহাগড়ায় শিুশু ধর্ষণের চেষ্টা, ১২ দিনেও আসামিকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

২০১৮ জুলাই ০২ ১৫:৩৭:২৮
লোহাগড়ায় শিুশু ধর্ষণের চেষ্টা, ১২ দিনেও আসামিকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ

রূপক মুখার্জি, লোহাগড়া (নড়াইল) : নড়াইলের লোহাগড়া পৌর এলাকায় ৫ বছরের একজন শিশুকে ধর্ষণের চেষ্টা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় গত ২৩ জুন ওই শিশুর মা বাদি হয়ে লোহাগড়া থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেছেন। শিশু নির্যাতনের ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হলেও পুলিশ ১২ দিনেও আসামীকে আটক করতে পারে নাই। এ দিকে, মামলা তুলে নেওয়ার জন্য আসামী পক্ষের লোকজন বাদিকে হুমকি দিচ্ছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। ফলে ভয় ও আতংকের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন ভিক্টিমের পরিবার। শুধু তাই নয়, সৃষ্ট ঘটনাটি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য স্থানীয় একটি প্রভাবশালী একটি মহল নানা ষড়যন্ত্র শুরু করেছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

পুলিশ ও এলাকবাসী সূত্রে জানা গেছে, গত ২১ জুন দুপুরে নির্যাতিত শিশুটি আইসক্রিম কেনার জন্য লোহাগড়া পৌর সভার মশাঘুনি গ্রামের মৃত ইসলাম বিশ্বাসের লম্পট ছেলে মিরাজ বিশ্বাসের দোকানে যায়। দোকান বন্ধ পেয়ে ওই শিশু দোকানের পাশেই মিরাজ বিশ্বাসের বাড়িতে তাকে ডাকতে গেলে তখন আসামী আইসক্রিম দেবার কথা বলে শিশুকে ঘরে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়।

শিশুর চিৎকারের ফলে ও প্রতিবেশীদের হাতে ধরা পড়ার ভয়ে মিরাজ বিশ্বাস দ্রুত পালিয়ে যায়। পরে শিশুর পরিবার শিশুটিকে চিকিৎসার জন্য প্রথমে লোহাগড়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে নড়াইল সদর হাসপাতালে নিয়ে যেতে পরামর্শ দেন। ওই দিন রাতে শিশুটিকে নড়াইল সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ৪ দিন হাসপাতালে চিকিৎসা নেওয়ার পর বর্তমানে শিশুটি নিজ পরিবারের কাছে রয়েছে।

এ বিষয়ে মামলার বাদি ও ভিক্টিমের মা সাংবাদিকদের কাছে অভিযোগ করে বলেন, “ঘটনার পর থেকে স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী লোক মামলা তুলে নিতে আমাদের চাপ দিচ্ছে। এমনকি মামলা তুলে না নিলে আমাদেরকে গ্রাম ছাড়া করবে বলেও হুমকি দিয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই শুধাংশু মিত্র বলেন, আসামী গা ঢাকা দেওয়ায় তাকে গ্রেফতার করা সম্ভব হচ্ছে না। তাকে আটকের জোর চেষ্টা চলছে।

(আরএম/এসপি/জুলাই ০২, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test