E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মনিরুল ও হোসেনের বাড়িতে শোকের মাতম

২০১৮ জুলাই ০৫ ১৭:৩৪:০৭
সৌদিতে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মনিরুল ও হোসেনের বাড়িতে শোকের মাতম

রূপক মুখার্জি, লোহাগড়া (নড়াইল) : গতকাল বুধবার ভোরে সৌদি আরবের জেদ্দায় সড়ক দূঘটনায় নিহত দু’জনের  বাড়ি নড়াইলের লোহাগড়া উপজেলায় । নিহতরা হলেন, মনিরুল মোল্যা (২৮) ও সৈয়দ হোসেন আলী (৩২)। তাদের দু’পরিবারেই চলছে শোকের মাতম । আত্মীয়-স্বজণ এবং পাড়া প্রতিবেশীদের আহাজারিতে এলাকার বাতাস ভারী হয়ে উঠেছে । চলছে কান্নার রোল । অনেকে শোক-সন্তপ্ত পরিবারের সদস্যদের সান্তনা দিচ্ছেন। 

গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলার আড়পাড়া গ্রামের মৃত মহসিন মোল্যার ছেলে মনিরুলের বাড়ীতে গিয়ে জানা গেছে, সাত ভাই-বোনের মধ্যে মনিরুল সবার ছোট । জেলার সদর উপজেলার শাহাবাদ মাদ্রাসা থেকে কামিল পাশ করে বড় ভগ্নিপতি চর মল্লিকপুর গ্রামের সৌদি প্রবাসী মঞ্জুর শেখের মাধ্যমে এক বছর আগে সৌদি আরবে যায় ।

নিহত মনিরুলের মা আমেনা বেগম কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন, আমার ছেলে এবার দেশে ফিরে এসে বিয়ে করবে বলে আমাদের মেয়ে দেখতে এবং বাড়ীঘর মেরামত করতে বলেছিল। কিন্তু তার সে স্বপ্ন আর পূরণ হলো না ।

এ সময় মনিরুলের বোন জেসমিন ও নাইচ বেগম বিলাপ করতে করতে জানান, টাকা দিয়ে কি হবে ? আমার ভাই বিদেশে গিয়েছিলো অনেক টাকা আয় করতে কিন্তু সে এখন লাশ হয়ে ফিরছে ।

এ ছাড়া সড়ক দূঘটনায় নিহত উপজেলার লাহুড়িয়া গ্রামের সৈয়দপাড়ার সৈয়দ আশরাফ আলীর ছেলে সৈয়দ হোসেন আলীর বাড়িতেও মৃত্যুর খবরে চলছে কান্নার রোল । নিহতের স্ত্রী রাকিয়া বেগম তার দুই শিশু ছেলে ফাহাদ ও হামজাকে জড়িয়ে ধরে বিলাপ করে বলছে, তোর বাবা আর কোন দিন আমাদের মাঝে ফিরে আসবে না । তোদের পৃথিবীতে বাবা বলে ডাকার আর কেউ থাকলো না।

নিহতের বড় ভাই সৈয়দ নাসির আলী জানান, হোসেন প্রথমে পাঁচ বছর কুয়েতে ছিলো । দেশে ফিরে গত ৮/৯ মাস পূর্বে সৌদি আরবে চলে যায় । তার মৃত্যুর খবরে বৃদ্ধ পিতা-মাতা বাকরুদ্ধ হয়ে পড়েছেন। এ দিকে, নিহত দু’পরিবারের সদস্যরা নিহত মনিরুল ও হোসেনের লাশ দ্রুত দেশে ফিরে আনার দাবী জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, সৌদি আরবের জেদ্দায় গত বুধবার ভোরে কিং আব্দুল আজিজ সড়কের সামারী কোর্ট ও রেড সি মলের মধ্যবর্তী এলাকায় মাইক্রোবাস উল্টে হতাহতের ঘটনা ঘটে । এতে নড়াইল সদরের রামচন্দ্রপুর গ্রামের ঈসারত শেখের ছেলে ইস্ররাফিল শেখ,লোহাগড়ার লাহুড়িয়ার সৈয়দ পাড়ার হোসেন আলী ও আড়পাড়া গ্রামের মনিরুল মোল্যা নিহত হয়।

এ সময় উপজেলার কুমড়ি গ্রামের আফসার ফকিরের ছেলে মাসুদ ফকির গুরুত্বর আহত হয়ে জেদ্দার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে বলে জানা গেছে।

(আরএম/এসপি/জুলাই ০৫, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test