E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

লোহাগড়ায় অপহরণের ১৫ দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার, অপহরণকারী আটক

২০১৮ জুলাই ১০ ২৩:১৯:২০
লোহাগড়ায় অপহরণের ১৫ দিন পর যুবকের লাশ উদ্ধার, অপহরণকারী আটক

লোহাগড়া (নড়াইল) প্রতিনিধি : লোহাগড়া উপজেলার মাকড়াইল গ্রামের ছালাম মোল্যার ছেলে পলাশকে অপহরনের ১৫ দিন পর তার লাশের সন্ধান পাওয়া গেছে । পুলিশ অপহরনের সাথে জড়িত থাকার অভিযোগে একজনকে আটক করেছে ।

পুলিশ ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার মাকড়াইল গ্রামের সালাম মোল্যার ছেলে পলাশ মোল্যা(২৩)কে গত ২৩ জুন প্রতিবেশী সালামের ছেলে আনারুল ও আড়পাড়া গ্রামের আকুব্বরের ছেলে নাজমুল সহ তিন-চার জন কৌশলে অপহরন করে নিয়ে যায়। পলাশ বাড়ীতে ফিরে না আসায় পরিবারের লোকজন অনেক খোজাখুঁজি করতে থাকে । তাকে না পেয়ে গত ৩০ জুন লোহাগড়া থানায় একটি সাধারন ডায়েরী দায়ের করেন। পলাশের ভাই আহাদ মোল্যা ঘটনার সাথে জড়িত সন্দেহে আনারুলকে প্রধান আসামী করে গত ৯ জুলাই লোহাগড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করে । পুলিশ অভিযান চালিয়ে আনারুলকে মানিকগঞ্জ বাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। মঙ্গলবার নড়াইলের সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট নয়ন বড়ালের আদালতে আনারুল ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমুলক জবানবন্দি গ্রহন করে ।

পুলিশ জানায় , ইজিবাইক কেনার টাকার জন্য পলাশকে গত ২৩ জুন সকালে অপহরন করে ওইদিন রাতে মাগুরা জেলার আমুড়িয়া কলেজ মাঠপাড়া এলাকায় চার-পাচজন মিলে শ্বাসরোধে হত্যা করে পাশের পাট ক্ষেতে লাশ ফেলে যায় । এ ঘটনার পর এলাকাবাসী অজ্ঞাত লাশ দেখতে পেয়ে মাগুরা সদর থানা পুলিশকে খবর দেয় । পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত শেষে বেওয়ারিশভাবে আঞ্জুমান মফিদুলের মাধ্যমে গত ২৭ জুন মাগুরা পৌর কবরস্থানে দাফন করে ।

পলাশের বৃদ্ধ পিতা ও মাতা তহুরোন নেছা কান্না জড়িত কন্ঠে বলেন,পলাশের মৃত দেহ আইনের মাধ্যমে মাগুরা থেকে এনে শেষবারের মতো দেখে পারিবারিক গোরস্থানে দাফন করতে চাই। লোহাগড়া থানার অফিসার ইনচার্জ প্রবির কুমার বিশ্বাস বলেন,আনরুলসহ অজ্ঞাত ৩/৪ জনকে আসামী থানায় মামলা হয়েছে।অন্য আসামীদের আটকের চেষ্টা চলছে।


(আরএম/এসপি/জুলাই ১০, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test