E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

দিনাজপুরে এন্টিবায়োটিক মুক্ত নিরাপদ পোল্ট্রি মাংস উৎপাদনে সাফল্য

২০১৮ জুলাই ১৪ ১৬:১৯:২৬
দিনাজপুরে এন্টিবায়োটিক মুক্ত নিরাপদ পোল্ট্রি মাংস উৎপাদনে সাফল্য

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর : মাংস উৎপাদনকারী পোল্ট্রি খামারে এন্টিবায়োটিক জাতীয় ওষুধ প্রয়োগ বন্ধ করে নিরাপদ মাংস উৎপাদনে অর্গানিক পদ্ধতিতে গবেষণা চালিয়ে আসছে দিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষক দল। 

মাংস উৎপাদনের উদ্দেশ্যে পালন করা ব্রয়লার মুরগিতে প্রচুর পরিমাণে এন্টিবায়োটিক ব্যবহারের কারণে মানবদেহে সৃষ্টি হচ্ছে রোগব্যধি। ক্রেতা সাধারণ শরীরে আমিষের চাহিদা পূরণ করতে গিয়ে ব্রয়লার মুরগির মাংস খেয়ে অধিকাংশই মৃত্যু ঝুঁকিতে পড়ছেন। নিরাপদ স্বাস্থ্য-সম্মত ব্রয়লার মুরগির মাংস উৎপাদনে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমেষ্ট্রি ও মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের একটি গবেষক দল ৫ মাস ধরে কাজ করছেন। ইতোমধ্যে পেয়েছেন সফলতা।

অধিক পরিমানে এন্টিবায়োটিক ওষুধ ব্রয়লার মুরগিতে ব্যবহৃত হওয়ায় মানবদেহে সৃষ্টি হচ্ছে মারাক্তক সব রোগব্যধি । শরীরে আমিষের চাহিদা পূরণ করতে গিয়ে মৃত্যু ঝুঁকিতে পড়ছেন ভোক্তারা। তবে সে মৃত্যু ঝুঁকির বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়ে দিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষক দলের সহায়তায় অর্গানিক পদ্ধতিতে নিরাপদ ব্রয়লার মাংস উৎপাদনে নেমেছে দিনাজপুরের খানসামা উপজেলার জয়নাল পোল্ট্রি এন্ড ফিড নামে এক খামার কর্তৃপক্ষ। খামারের স্বত্ত্বাধিকারী জয়নাল আবেদীন জানান,এন্টিবায়োটিক মুক্ত নিরাপদ স্বাস্থ্যসম্মত মাংস উৎপাদন করে ব্যাপক সফলতা পেয়েছে বিশ্ববিদ্যালয়ের একটি গবেষক দল। খামারীকে সহযোগিতাসহ নিয়মিত তারা খামারটি পরিদর্শনও করছেন।

একই কথা জানালেন দিনাজপুর হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও খামারের স্বত্ত্বাধিকারী জয়নাল আবেদীন ছেলে তারভীর। তিনি জানালেন, মুরগীর খামারে অহেতুক এন্টিবায়োটিক ব্যবহার না করে অধিক মাংস উৎপাদন করছে। অর্থনৈতিক ভাবেও বেশ লাভবান হচ্ছেন তারা। এমনি বার্তা জানালেন,খামারীর ছেলে বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থী তানভির।

বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমেষ্ট্রি ও মলিকুলার বায়োলজি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মো.আবু সাঈদ জানিয়েছেন, ব্রয়লার মুরগির মাংসে অধিক পরিমাণ আমিষ রয়েছে। তবে বেশি পরিমাণে এন্টিবায়োটিক ব্যবহারের কারণে সে মাংসই স্বাস্থ্যের জন্য মারাক্ত ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে যাচ্ছে। নির্দিষ্ট সময়ের আগে (উইথড্রোল পিরিয়ড) এন্টিবায়োটিক যুক্ত মাংস খেলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা নষ্ট করে।

জয়নাল পোল্ট্রি এন্ড ফিড নামের এই খামারে এন্টিবায়োটিক মুক্ত নিরাপদ স্বাস্থ্যসম্মত মাংস উৎপাদন সরজমিনে পরিদর্শন করেছেন খানসামা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আহমেদ-মাহবুব-উল-ইসলাম । পোল্ট্রি খামারে এন্টিবায়োটিক মুক্ত নিরাপদ স্বাস্থ্যসম্মত মাংস উৎপাদনের সাফল্যের ধারাবাহিকতা শুধু যেনো খানসামায় সীমাবদ্ধ না রেখে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়ে এমনটাই প্রত্যাশা করেছেন তিনি।

(এসএএস/এসপি/জুলাই ১৪, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৬ নভেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test