E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

প্রভাবশালীর খামখেয়ালিতে একমাস ধরে পানিবন্দি শতাধিক পরিবার

২০১৮ জুলাই ১৯ ১৭:৫৪:৩৮
প্রভাবশালীর খামখেয়ালিতে একমাস ধরে পানিবন্দি শতাধিক পরিবার

বাগেরহাট ও শরণখোলা প্রতিনিধি : বাগেরহাটের শরণখোলা উপজেলা সদরের উত্তর কদমতলা এলাকার শতাধিক পরিবার প্রায় একমাস ধরে পানিবন্দি অবস্থায় রয়েছে। অনেক পরিবারে রান্নবান্না বন্ধ হয়ে গছে। এমনকি স্বাভাবিক কাজকর্মও করতে পারছেন না তারা। স্থানীয় এক প্রভাবশালীর খামখেয়ালিপনায় বৃষ্টির পানি আটকে এমন জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে। 

বিষয়টি জনপ্রতিনিধি ও প্রশাসনের কাছে বার বার বলা হলেও তারা পানি নিষ্কাশনের কোনো উদ্যোগ নেয়নি। ফলে, পানিবাহিত রোগব্যাধি ছড়ানোর আশঙ্কা করছেন তারা।

বৃহস্পতিবার জলাবদ্ধ এলাকায় গেলে গৃহবধু হেলেনা বেগম, নারগিস বেগম, মমতাজ বেগম শিউলি বেগমসহ অনেকেই বলেন, জলাবদ্ধতায় চুলায় পানি উঠে যাওয়ায় রান্নাবান্না করতে পারছিনা। বাড়ির উঠান ও আশপাশে পানি জমে থাকায় সাপকোপ, পোকামাকড় ঘরের মধ্যে আশ্রয় নিচ্ছে। পঁচা পানিতে শিশুসহ অনেকের হাত-পায়ে চুলকানি দেখা দিয়েছে। পানির কারণে ছেমেয়েদের কোলে ও ঘাঁড়ে করে স্কুলে পৌঁছে দিতে হচ্ছে।

ভুক্তভোগী সাইদুর রহমান হাওলাদার (৬৫), আ. হামিদ (৭০), নূরুল ইসলাম (৪০), মো. সেলিম (৩৫), নারায়ন সাহা (৫০), সাইয়েদ আলীসহ (৪৫) অনেকেই অভিযোগ করে বলেন, পানি নিষ্কাশনের জন্য ইউনিয়ন পরিষদ থেকে পাইপ দিলেও মজিবর ফকির নামের স্থানীয় এক প্রভাবশালী তা বসাতে দিচ্ছেন না। তার জরি ওপর থেকে অন্য এলাকার পানি সরাতে দিবেন না। চেয়ারম্যান, মেম্বার ও প্রশাসনের কাছে অভিযোগ জানিয়েও কোনো ফল হয়নি।

সংশ্লিষ্ট ৫নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. জালাল আহমেদ রুমী বলেন, জলাবদ্ধতা নিরসনে একাধিকবার পাইপ বসানোর উদ্যোগ নিয়েও বসাতে পারিনি। প্রভাবশালী ফকির বাড়ির লোকেরা পাইপ বসাতে দিচ্ছেনা।

রায়েন্দা ইউপি চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান মিলন বলেন, খামখেয়ালি ভাবে পানি আটক রেখে প্রভাবশালী কেউ জনগণের অধিকার ও পরিবেশের ক্ষতি করতে পারেন না। জলাবদ্ধতায় পরিবারগুলো কষ্টে আছে। বিষয়টি দ্রুত সমাধানের চেষ্টা করা হবে।

শরণখোলা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) লিংকন বিশ্বাস বলেন, এলাকাবাসী অভিযোগ নিয়ে এলে চেয়ারম্যানকে সমঝতার মাধ্যমে ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য বলা হয়েছে।

মজিবর রহমান ফকির বলেন, আমার জমির ওপর দিয়ে পানি নামলে জমিতে পানি জমে উচু হয়ে যাবে। উচু জমিতে ফসল হবেনা। তবে, সঠিকভাবে পাইপ বসিয়ে পানি সরানোর ব্যবস্থা নিলে আমার আপত্তি নেই।

(এসএকে/এসপি/জুলাই ১৯, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test