E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

শিরোনাম:

চট্টগ্রামে ভারতীয় শিক্ষার্থী খুন, ১ বছর পর পিবিআই পুলিশের অভিযোগপত্র আদালতে

২০১৮ জুলাই ২৩ ১৫:৩২:৩৫
চট্টগ্রামে ভারতীয় শিক্ষার্থী খুন, ১ বছর পর পিবিআই পুলিশের অভিযোগপত্র আদালতে

চট্টগ্রাম প্রতিনিধি : চট্টগ্রামে ভারতীয় ছাত্র আতিফ শেখ হত্যার ঘটনার দীর্ঘ এক বছর পর আদালতে অভিযোগপত্র জমা দিয়েছে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগশন (পিবিআই)। 

রবিবার দুপুরের দিকে জমা দেয়া এই অভিযোগপত্রে নিহতের স্বদেশী ছাত্র উইনসন সিংকে অভিযুক্ত করা হয়।

চট্টগ্রাম নগর পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার (প্রসিকিউশন) নির্মলেন্দু বিকাশ চক্রবর্তী বলেন, রোববার দুপুরের দিকে অভিযোগপত্রটি হস্তান্তর করেছে। চট্টগ্রামের মহানগর হাকিম আল ইমরান খানের আদালতে অভিযোগপত্রটি উপস্থাপন করা হবে।

এর আগে ২০১৭ সালের ১৪ জুলাই গভীর রাতে চট্টগ্রামের ফয়েজ লেক এলাকার বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউএসটিসির এমবিবিএসে অধ্যয়নরত আতিফ শেখ ও উইলসন সিং নামে দুই ভারতীয় শিক্ষার্থীকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। নগরীর আকবর শাহ থানার আবদুল হামিদ সড়কের ছয় তলা একটি ভবনের পঞ্চম তলায় তারা ভাড়া বাসায় থাকতেন।

ওই সময় আতিফকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতে হত্যা করা হয়, আর উইনসন ফাঁসিতে ঝুলে আত্মহত্যার চেষ্টা করার কথাও জানায় পুলিশ।

নিহত মোহাম্মদ আতিফ শেখের (২৬) মৃত্যুর তিন দিন পর তার বাবা আবদুল খালেক বাদী হয়ে সিএমপি আকবর শাহ থানায় মামলা করেন। কিন্তু ওই সময় মামলায় সুনির্দিষ্ট কোনো আসামির নাম উল্লেখ না করলেও আটজনকে সন্দেহের তালিকায় রাখেন তিনি।

আদালতের নির্দেশে চলতি বছরের ২১ জানুয়ারি উইনসন সিং ও নিরাজ গুরুর ডিএনএ পরীক্ষার জন্য নমুনা ঢাকার সিআইডির ডিএনএ ল্যাবে পাঠায় পিবিআই।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই’র পরিদর্শক সন্তোষ কুমার চাকমা জানান, তবে হত্যার সময় কোনো প্রত্যক্ষদর্শী না থাকায় কারোর অপরাধ স্বীকার করে জবানবন্দি আদায় করা সম্ভব হয়নি। শুধুমাত্র সিআইডির ‘ক্রাইম সিন’ পর্যালোচনা এবং ফরেনসিক প্রতিবেদনের উপর ভিত্তি করে অভিযোগপত্র প্রস্তুত করা হয়েছে।

(জেজে/এসপি/জুলাই ২৩, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test