E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রূপপুর প্রকল্পে কোর ক্যাচার স্থাপন

২০১৮ আগস্ট ১৮ ১৬:৩৮:১৫
সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রূপপুর প্রকল্পে কোর ক্যাচার স্থাপন

ঈশ্বরদী (পাবনা) প্রতিনিধি : সর্বোচ্চ নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে রূপপুর পারাণবিক বিদ্যুৎ কেন্দ্রে নির্মাণাধীন প্রথম ইউনিটের পারমাণবিক চুল্লিতে কোর ক্যাচার স্থাপন করা হয়েছে। শনিবার সকালে কোর ক্যাচার স্থাপন উপলক্ষ্যে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান।

এসময় মন্ত্রী বলেন, ‘সর্বোচ্চ নিরাপত্তার বিষয়টি আজ নিশ্চিত করা হল। বঙ্গবন্ধু কণ্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যা বলেন, তাই করেন। তিনি এই প্রকল্প গ্রহনের সময় বলেছিলেন ‘সেফটি ফাস্ট’। আজ এই ‘কোর ক্যাচার’ স্থাপনের মধ্য দিয়ে তা অক্ষরে অক্ষরে পালন করা হলো।’

নিউক্লিায়ার পাওয়ার গ্রীড কোম্পানীর উপদেষ্টা ড. রবীন্দ্রনাথ রায়-এর সঞ্চালনায় এসময় বক্তব্য রাখেন, মন্ত্রণালয়ের সচিব আনোয়ার হোসেন, রাশিযান অর্গাণষ্ট্রয় এক্সপোর্টের সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এবি কাজিন, বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি কমিশনের মাহাবুবুল হক। এসময় বাংলাদেশ পরমাণু শক্তি নিয়ন্ত্রণ অথিরিটির সদস্য প্রকৌশলী শওকত আলী, প্রকৌশলী মোজাম্মেল হক, অর্গাণষ্ট্রয় এক্সপোর্টের রূপপুর প্রকল্পের ভাইস প্রেসিডেন্ট সের্গেই লাসটছকিন, পরিচালক পাভেল গ্লাসভ, প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর, প্রকল্পের নিরাপত্তা বিভাগের কমান্ডার লে: কর্ণেল সাজিদসহ উর্দ্ধতন দেশীয় ও রাশিযান কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

সচিব আনোয়ার হোসেন বলেন, সর্বোচ্চ নিরাপত্তার জন্য কোর ক্যাচার নব উদ্ভাবিত ও উন্নত এই ব্যবস্থা বিশ্বে রাশিয়াই প্রথম আবিস্কার করেছে । এটি প্রথম রাশিয়ার নভোভরনেঝ-এ ১২০০ ভিভিআইআর বিদ্যুৎ প্রকল্পে ব্যবহার করা হয়েছে। আর দ্বিতীয়টি ঈশ্বরদীর রূপপুরে এই প্রকল্পে ব্যবহার হচ্ছে। এর ব্যয় কিছুটা বেশী হলেও কোর ক্যাচার সর্বোচ্চ নিরাপত্তা বিধান করবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

প্রকল্প পরিচালক ড. শৌকত আকবর জানান, এটি রিয়্যাক্টর পিটের তলায় স্থাপিত হয়। ভয়াবহ দুর্ঘটনাকালে পারমাণবিক রিয়্যাক্টরের সক্রিয় জোন গলে যেতে পারে। সেই ক্ষেত্রে মেল্ট ট্র্যাপ গলিত বস্তুকে ধারণ করে তাকে পুরোপুরি আবদ্ধ করে ফেলে। সরঞ্জামসহ মেল্ট ট্র্যাপের ওজন ৭৫০ টন। আর সরঞ্জাম ছাড়া মেল্ট ট্র্যাপের (কোর ক্যাচার) প্রায় ২০০ টন। যা আজ স্থাপন করা হলো।

তিনি বলেন, যেকোন জরুরী অবস্থায় আণবিক চুল্লির তরল ও কঠিন অংশগুলো স্বয়ংক্রীয়ভাবে এই কোর ক্যাচারের ভিতরে জমা হয়ে সুরক্ষিত থাকে। এর ফলে চুল্লির কনটেইনমেন্ট কাঠামো ক্ষতিগ্রস্থ হতে পারে না এবং তেজস্ক্রিয়তা বাইরে ছড়িয়ে পড়ার কোন সুযোগ থাকবে না। ১০ বিলিয়ন বছরে দুর্ঘটনার বিষয় পরিমাপ করে এই প্রকল্প নির্মাণ করা হচ্ছে। দুর্ঘটনা ঘটলেও রেডিয়েশন কোর ক্যাচারে আবদ্ধ থাকবে-বাইরে ছড়িয়ে পড়ার আশংকা নেই। যেকারণে এটি থার্ড প্লাস জেনারেশনের সর্বাধুনিক নিরাপত্তা বিশিষ্ঠ আধুনিক প্রযুক্তি বলে তিনি জানিয়েছেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের ৩০ নভেম্বর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রূপপুরে পরমাণবিক চুল্লি নির্মাণের জন্য প্রথম কংক্রিটের ঢালাই কাজ উদ্বোধন করেছিলেন। অতিদ্রুত কর্মকান্ড পরিচালিত হওয়ায় মাত্র নয় মাসে কোর ক্যাচার স্থাপন করা হলো।

(ওএস/এসপি/আগস্ট ১৮, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test