E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

আমতলীতে ১০ টাকা কেজি দরের চাল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ

২০১৮ সেপ্টেম্বর ১২ ১৭:০৯:১০
আমতলীতে ১০ টাকা কেজি দরের চাল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ

আমতলী (বরগুনা) প্রতিনিধি : সরকারের খাদ্যবান্ধন কর্মসূচির আওতায় ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিক্রি কার্যক্রম পরিচালনায় নিয়োগ প্রাপ্ত ডিলারদের বিরুদ্ধে চাল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। 

উপজেলা খাদ্য অফিস সূত্রে জানা গেছে, আমতলী উপজেলার ৭টি ইউনিয়নে ২৪ জন ডিলার রয়েছে। এরা ১৪ হাজার কার্ডধারী দরিদ্র নারী পুরুষের মধ্যে ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরন করবেন। কিন্ত খাদ্য গুদামে চাল না থাকায় ২৪ জন ডিলারের মধ্যে নির্ধারিত সময়ে ১০ জন ডিলার ১০ সেপ্টম্বর থেকে চাল বিতরন কার্যক্রম শুরু করেছে।

চাল বিতরণে কয়েকজন ডিলারের বিরুদ্ধে ওজনে কম দেওয়া অভিযোগ পাওয়া গেছে। তারা ৩০ কেজি চালের পরিবর্তে ২৪-২৬ কেজি করে চাল বিতরন করছে। বুধবার সকালে সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, কুকুয়া ইউনিয়নের কুকুয়া গ্রামের রেখা বেগমের কার্ডে ৩০ কেজি চাল তিরণের পরিমান লেখা রয়েছে। টাকাও রাখা হয়েছে ৩শ’। অথচ বিতরণ করা ওই চাল ডিজিটাল মিটারে ওজনে দেখা গেছে ২৬ কেজি চাল। একই অবস্থা দেখা গেছে রিজিয়া বেগম নামের আরেক কার্ডধারীরও।

গুলিশাখালীর ডিলার মো: মনিরুল ইসলাম, তার বিরুদ্ধেও চাল ওজনে কম দেওয়া অভিযোগ রয়েছে। তিনি একই দোকানে চাল ধান কেনা বেচা করায় অনেক কার্ড ধারী সঠিক ভাবে চাল নিতে পারছে না বলেও অভিযোগ রয়েছে। ওই ডিলার নির্ধারিত সময়ের আগেই দোকান বন্ধ করে চলে যান বলেও অভিযোগ রয়েছে। হলদিয়া ইউনিয়নের অফিস বাজার ডিলার জাকির এর বিরুদ্ধেও চাল বিতরনে ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। তার বিরুদ্ধে প্রতি কার্ডে ৬-৮ কেজি করে চাল কম দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে।

আমতলী উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কমলেশ চন্দ্র মজুমদার জানান, হলদিয়া ইউনিয়নের অফিস বাজারে জাকির হোসেন ডিলারের বিরুদ্ধে ২০-২২ কেজি করে চাল বিতরনের অভিযোগ পেয়ে সেখানে উপস্থিত হয়ে অভিযোগের সত্যতা পেয়েছি। পরে আমার উপস্থিততে ৩০ কেজি করে চাল বিতরণ করা হয়েছে।

আমতলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো: সরোয়ার হোসেন বলেন, চাল বিতরনে ওজনে কম দেওয়া অভিযোগ পেয়ে আমি নিজে কুকুয়া এবং গুলিশাখালী ইউনিয়নের চাল বিতরণ কার্যক্রম পরিদর্শন করেছি। যাদের বিরুদ্ধে ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে তাদেরকে সঠিক ভাবে চাল বিতরণের কঠোর নির্দেশ দিয়েছি এবং অন্যন্য ইউনিয়নে মনিটরিং করার জন্য সহকারী কমিশনার (ভূমি) কমলেশ চন্দ্র মজুমদারসহ ট্যাগ অফিসারদের নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে। এরপরও যদি কারও বিরুদ্ধে চাল ওজনে কম দেওয়ার অভিযোগ পাই তাহলে তার ডিলারশীপ বাতিল করা হবে।

(এন/এসপি/সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test