E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

গলাচিপায় আধুনিক বাসস্ট্যান্ডের নির্মাণ কাজ ঝুলে আছে ৬ বছর

২০১৮ সেপ্টেম্বর ২১ ১৮:৪০:২০
গলাচিপায় আধুনিক বাসস্ট্যান্ডের নির্মাণ কাজ ঝুলে আছে ৬ বছর

সঞ্জিব দাস, গলাচিপা (পটুয়াখালী) : অর্থাভাবে গলাচিপা পৌরসভার প্রস্তাবিত আধুনিক বাসস্ট্যান্ডটির নির্মাণ কাজ ছয় বছর ধরে ঝুলে আছে। পৌরসভা কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রস্তাবিত এ বাসস্ট্যান্ডটির জন্য প্রয়োজনীয় অর্থের যোগান না পাওয়ায় এটির নির্মাণ কাজ আর আগানো যাচ্ছে না। ২০১২ সালে দাতা সংস্থা কোস্টাল টাউন ইনভায়রনমেন্টাল ইমপ্রুভমেন্ট প্রজেক্ট (সিটিইআইপি) থেকে অর্থ বরাদ্দের আশ্বাসে পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের গলাচিপা চিকনিকান্দি সড়কের পাশে বাসস্ট্যান্ডটির কাজ শুরু করা হয়। পরে ওই প্রকল্প থেকে অর্থের যোগান পাওয়া যায়নি।

গলাচিপা পৌরসভার সচিব মো. সাইফুর রহমান জানান, ২০১২ সালের জুলাই মাসে গলাচিপা পৌরসভায় আধুনিক বাসস্ট্যান্ড নির্মাণের জন্য জায়গা নির্ধারণ করা হয়। পৌরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডে এক একর উদ্মজমি নিয়ে এ প্রকল্পের কাজ শুরু করা হয়। শুরুতে পৌরসভার নিজস্ব অর্থায়নে অর্ধেকেরও বেশি জমিতে মাটি দিয়ে ভরাট করা হয়। কিন্তু এর এক বছর পরই সিটিইআইপির অর্থ ছাড় করার কথা থাকেলও পরে তারা অপরাগতা প্রকাশ করেন। ফলে ঝুলে যায় বাসস্ট্যান্ড নির্মাণের কাজ।

গলাচিপা পৌরসভার প্রকৌশল বিভাগের উপ সহকারী প্রকৌশলী মো. আবুল আউয়াল এ প্রসঙ্গে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘সিটিইআইপির আর্থিক সহযোগিতা পাওয়ার আশ্বাসে আমরা আধুনিক বাসস্ট্যান্ডের কাজ শুরু করেছিলাম। প্রাথমিকভাবে সেখানে প্রায় তিন লাখ টাকার মতো খরচ হয়েছে। পরবর্তী সময় সিটিইআইপি থেকে এ কাজের জন্য অর্থ বরাদ্দ না দেওয়ায় কাজটি থেমে যায়।’

এ প্রসঙ্গে গলাচিপা পৌর মেয়র আহসানুল হক তুহিন বলেন, ‘গলাচিপা পৌরসভায় আধুনিক বাসস্ট্যান্ড নির্মাণের জন্য সিটিইআইপি থেকে অর্থ বরাদ্দের আশ্বাস দেওয়ায় আমরা নিজেরদের অর্থায়নে কাজ শুরু করেছি। কিন্তু পরবর্তীতে সিটিইআইপি থেকে আমাদের অর্থ বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। আমরা নতুন করে অর্থ বরাদ্দ চেয়ে চাহিদা পত্র দেবো। অর্থের বরাদ্দ পেলে বাসস্ট্যান্ডের নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করা হবে।’

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে সিটিইআইপির পরিচালক আনোয়ার হোসেন মোবাইল ফোনে কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আধুনিক বাসস্ট্যান্ড নির্মাণের জন্য অর্থের বরাদ্দ চেয়ে গলাচিপা পৌরসভার কোন চাহিদা পত্র আমাদের কাছে নেই। পৌরসভা কর্তৃপক্ষ চাহিদা পত্র দিলে আমরা বিবেচনা করতে পারবো।’

(এসডি/এসপি/সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test