E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

নবীগঞ্জে খুনের মামলার আপোষে রাজি না হওয়ায় স্বাক্ষীর পরিবার গৃহবন্দী 

২০১৮ সেপ্টেম্বর ২২ ১৫:৩৫:০২
নবীগঞ্জে খুনের মামলার আপোষে রাজি না হওয়ায় স্বাক্ষীর পরিবার গৃহবন্দী 

নবীগঞ্জ প্রতিনিধি : নবীগঞ্জের চাঞ্চল্যকর মধু মেম্বার হত্যার বিচারাধীন মামলা আপোষ মিমাংসায় সম্মতি না দেওয়ায় প্রভাবশালী মহলের প্রত্যক্ষ মদদে এক গৃহবধূর উপর মধ্যযুগীয় কায়দায় নির্যাতন চালানো হয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার দেবপাড়া ইউনিয়নের রুস্তুমপুর গ্রামে। 

এ ব্যাপারে গত ১৮ সেপ্টেম্বর আদালতে অভিযোগ দায়ের করা হলে বিজ্ঞ আদালত আনিত অভিযোগ এফআইআর গণ্যে মামলা রুজু করে তদন্ত করার জন্যে ফেীজদারি কার্যবিধির ১৫৬(৩) ধারার অধীনে অফিসার ইনচার্জ নবীগঞ্জ থানাকে নির্দেশ প্রদান করেন। আদেশ প্রাপ্তির ৩ দিনের মধ্যে মামলা রুজু সংক্রান্তে আদালতকে অবহিত করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়। সাবেক এক ইউপি চেয়ারম্যান, প্রভাবশালী রাজনৈতিক দলের নেতাসহ গ্রাম্য মাতব্বরদের রোষানলে পড়ে বর্তমানে গৃহবন্দি অবস্থায় থাকা ওই পরিবারটি নিরাপত্তা চেয়ে গতকাল সকালে র‌্যাব-৯ এর বরবারে লিখিত অভিযোগ দিয়েছে।

সূত্রে জানা যায়, নবীগঞ্জের রুস্তুমপুর গ্রামের চাঞ্চল্যকর মধু মেম্বার হত্যা মামলা আপোষ মিমাংসায় সম্মতি না দেওয়ায় গত ১৩ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার সকালে স্থানীয় প্রভাবশালী মহলের প্রত্যক্ষ মদদে ঘাতকচক্র দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র নিয়ে স্বাক্ষী আব্দুল কালাম ও তার স্ত্রী রেলী বেগমকে পথরোধ করে ধাওয়া করে। এ সময় আব্দুল কালাম পালিয়ে মসজিদে আশ্রয় আত্মরক্ষা করলেও তাদের আক্রমন থেকে রক্ষা পায়নি তার স্ত্রী রেলী বেগম। আব্দুল কালামের স্ত্রী রেলী বেগমকে জাহির উল্লাহ, সজলু মিয়া, তাজুদ মিয়া, এমরান মিয়া, আলাল মিয়া, হুসেন আলী, সোহান মিয়া, আজিদ মিয়া, সুহেল মিয়া, বজলু মিয়া, সালমান মিয়া, আছদ উল্লাহ গংরা ধারালো দেশীয় অস্ত্র শস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মধ্যযুগীয় কায়দায় বেদরক মারপিট করে। কাপড় ধরে টানা হেচরা করে শ্লীলতাহানীর চেষ্টা চালায়।

এক পর্যায়ে হামলাকারীরা আব্দুল কালামের বসত বাড়ীতে ঢুকে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করে বাড়ীতে তান্ডব চালিয়ে লুটপাট ভাংচুর করে ব্যাপক ক্ষতি সাধন করে। বাড়ী ঘরের টিনের বেড়া ভাংচুর ক্ষতি সাধন করে ক্লান্ত হয়নি তারা। এক পর্যায়ে বাড়ীর চলাচলের রাস্তায় বাশের বেড়া দিয়ে বন্ধ করে দেয়। এমনকি বাড়ীর পূর্বদিকের সরকারী পাকা ব্রিজও ভেঙ্গে গুড়িয়ে দেয় হামলাকারীরা। এক পর্যায়ে খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে রেলী বেগমকে উদ্ধার করে। পরে তাকে হবিগঞ্জ আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অভিযোগ রয়েছে, প্রভাবশালী মহল প্রতিনিয়ত অস্ত্র শস্ত্র দিয়ে মহড়া দিচ্ছে। স্থানীয় দোকানদারদের আব্দুল কালামের কাছে কোন খরচপাতি বাজার সওদা দিতে নিষেধ করছে তারা।

বর্তমানে আব্দুল কালামের পরিবার গৃহবন্দী অবস্থায় রয়েছে। তার পঞ্চম শ্রেণী পড়ুয়া কন্যা মুনিরা বেগমকে ১৫ সেপ্টেম্বর বিকালে স্কুল থেকে ফেরার পথে অভিযুক্ত এমরান মিয়া চড় তাপ্পর দিয়ে দুহাতে রশি বেধে শাশিয়ে দিয়ে হুমকি দিয়েছে মামলা করলে খুন করবে। তাদের এই হুমকির মুখে আতংকে স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে ওই ছাত্রী। গৃহবন্দি অবস্থায় জানমালের মান সম্মান নিয়ে নিরাপত্তাহীন পরিবারটি র‌্যাব-৯ এর বরাবর অভিযোগ দায়ের করেছেন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৮ সেপ্টেম্বর আব্দুল কালামের চাচা মধু মিয়া মেম্বারকে রুস্তুমপুর গ্রামের কতিপয় দুস্কৃতিকারীরা নির্মমভাবে মারপিট করে খুন করে। এ ঘটনায় তার ছেলে বাদী হয়ে মামলা করলে আব্দুল কালাম ও তার ভাই ভাতিজা মামলা স্বাক্ষী হয়। বিচারাধীন মামলায় তাজুদ মিয়ার নেতৃত্বে একটি প্রভাবশালী চক্র মধু মেম্বারের খুনের মামলার আসামীদের নিকট থেকে মামলা আপোষ মিমাংসা করে দেবে বলে ৩০ লাখ টাকা গ্রহণ করে। তাজুদ মিয়া গংরা স্বাক্ষী আব্দুল কালাম গংদের মামলা আপোষ মিমাংসা করার জন্য নানাভাবে ভয়ভীতি ও হুমকি প্রদর্শন করলে জানমালের নিরাপত্তা চেয়ে আদালতে মামলা দায়ের করা হয়।

(এম/এসপি/সেপ্টেম্বর ২১, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test