E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

পাবনা-৩ : মনোনয়ন প্রত্যাশীদের বিরুদ্ধে এবার সাংসদ সমর্থকদের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

২০১৮ অক্টোবর ১০ ১৮:২২:৪৮
পাবনা-৩ : মনোনয়ন প্রত্যাশীদের বিরুদ্ধে এবার সাংসদ সমর্থকদের পাল্টা সংবাদ সম্মেলন

শামীম হাসান মিলন, চাটমোহর (পাবনা) : এবার মনোনয়ন প্রত্যাশী ১০ জন আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে পাল্টা সংবাদ সম্মেলন করলেন পাবনা-৩ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব মো. মকবুল হোসেনের সমর্থক আওয়ামীলীগ একাংশের নেতারা। 

বুধবার দুপুরে পাবনার চাটমোহর উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের মিলনায়তনে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে উপজেলা আওয়ামীলীগের একটি অংশ। মুলত গত ৮ অক্টোবর উপজেলা আওয়ামীলীগের আরেক অংশের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত জনসভার বিপক্ষে এই সংবাদ সম্মেলন।

উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও পার্শ্বডাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান আজাহার আলীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন উপজেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি এস এম নজরুল ইসলাম।

লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করা হয়, উপজেলা আ’লীগের সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সাখো সংগঠনের গঠনতন্ত্রের সকল বিধি বিধান অমান্য করে এক যুগেরও বেশি সময় ধরে নেতাকর্মীদের দাবি উপেক্ষা করে নানা কুট-কৌশলে কাউন্সিল না করে সভাপতির পদ আঁকড়ে ধরে আছেন। অনৈতিক কার্যকলাপ ও ব্যক্তিস্বার্থ চরিতার্থ করতে যা খুশী তাই করে যাচ্ছেন। উপজেলা আ’লীগের ৬৩ জন সদস্যের মধ্যে ৫৭ জনই লিখিতভাবে তাকে সভাপতি হিসেবে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে বয়কট করেছে অনেক আগেই।

সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করেন, গত ৮ অক্টোবর চাটমোহর বালুচর মাঠে গণবিচ্ছিন্ন কতিপয় মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নিয়ে সাখাওয়াত হোসেন সাখো যে সমাবেশে করেছেন, সেখানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটাক্ষ করে স্থানীয় সাংসদ মকবুল হোসেনের বিরুদ্ধে নগ্ন ভাষায় অসত্য, কুরুচিপূর্ন কটুক্তি করা হয়েছে। মনোনয়ন প্রত্যাশীরাও একই সুরে জঘন্য মিথ্যাচার করেছেন উল্লেখ করে তার নিন্দা জানানো হয়।

নেতৃবৃন্দ বলেন, বর্তমান সাংসদ মকবুল হোসেন পাবনা-৩ এলাকায় যে উন্নয়ন করেছেন ইতিপুর্বে কোনো সাংসদ তা করতে পারেননি। অথচ কিছু মানুষ সে সকল উন্নয়ন কাজকে অস্বীকার করে মিথ্যাচার করে যাচ্ছেন। পক্ষান্তরে তারা শেখ হাসিনার উন্নয়নকে অস্বীকার করছেন। বিভিন্ন নির্বাচনে বারবার জামানত হারানো উপজেলা আ’লীগ সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন সাখো আজ দলের নেতাকর্মীদের কাছে ঘৃণার পাত্র হয়েছেন। তদ্বীর বাণিজ্য করে আলীশান বাড়ি করেছেন, জায়গা-জমির মালিক হয়েছেন। আর আজ তিনি দলের ভাবমুর্তি নষ্ট করতে উঠেপড়ে লেগেছেন।

আওয়ামীলীগ নেতাদের অভিযোগ, সব কুল হারিয়ে সাখো এখন বিএনপি-জামায়াতের সাথে গোপন আঁতাত করেছেন। তার নেতৃত্বে ৮ অক্টোবর যে সমাবেশ হয়েছে সেখানে রাজাকার পরিবারের সন্তান সহ স্বাধীনতা বিরোধী জামায়াত-শিবির ও বিএনপির লোকজনের সরব উপস্থিতি ছিল। তার মনুষ্যত্ববোধ না থাকায় সমাবেশ মঞ্চে হাজারো মানুষের সামনে প্রকাশ্য ধুমপান করেছেন সাখো।

সংবাদ সম্মেলনে দাবি করা হয়, পাবনা-৩ (চাটমোহর-ভাঙ্গুড়া-ফরিদপুর) এলাকার নির্বাচিত বেশিরভাগ জনপ্রতিনিধি, উপজেলা, পৌর ও ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি-সম্পাদক এবং তিন এলাকার মুক্তিযোদ্ধারা বর্তমান সাংসদ মকবুল হোসেনের পক্ষে রয়েছেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক খন্দকার মাহবুব এলাহী বিশু, বজলুল করিম খাকছার, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি ও প্যানেল মেয়র মো. নাজিম উদ্দিন, উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার গাজী মোজাহরুল হক, হরিপুর ইউনিয়ন আ’লীগের সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান মকবুল হোসেন, আওয়ামী লীগের সভাপতি মথুরাপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান সরদার আজিজুল হক, মুলগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান রাশেদুল ইসলাম বকুল, ছাইকোলা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান নজরুল ইসলাম, ডিবিগ্রাম ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ সভাপতি ও ইউপি চেয়ারম্যান নবীর উদ্দিন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

সংবাদ সম্মেলনে চাটমোহর উপজেলা, পৌর ও বিভিন্ন ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এবং সহযোগী অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

(এসএইচএম/এসপি/অক্টোবর ১০, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test