E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সকল মহলের গ্রহণযোগ্য প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মানিক নৌকা পেলেই বিজয় নিশ্চিত

২০১৮ নভেম্বর ১৩ ১৯:৩২:৩৪
সকল মহলের গ্রহণযোগ্য প্রার্থী মুক্তিযোদ্ধা মানিক নৌকা পেলেই বিজয় নিশ্চিত

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া (নেত্রকোনা) : সব দিক থেকে যোগ্যতার বিচারে ও তৃণমূলে হাজার হাজার মানুষের প্রিয় ও গ্রহণযোগ্য প্রার্থী হিসেবে মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মো: সাইদুর রহমান মানিক নৌকা প্রতীক পেলেই উৎসব আমেজে নির্বাচনের মধ্য দিয়ে বিপুল ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হবেন। এ দাবি করেছেন সাবেক ছাত্রলীগ নেতা বৃহত্তর ময়মনসিংহ আইনজীবী কল্যান পরিষদের সহ-দপ্তর সম্পাদক তরুণ আইণজীবী এডভোকেট মো: শাহরিয়ার কবীর মোশারফ। 

মঙ্গলবার বিকেলে তিনি তার প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করে এক শুভেচ্ছা বার্তায় বলেন, মুক্তিযোদ্ধা এডভোকেট মো: সাইদুর রহমানের জীবনে সবচেয়ে গর্বের দুটি বিষয় রয়েছে। দুটি বিষয় নিয়ে তিনি নিজে এবং আমরা মুক্তিযুদ্ধের প্রজন্মের তরুনেরা অহংকার করতে পারি। এর একটি হলো ১৯৭১ সনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ডাকে জীবনের মায়া ত্যাগ করে মহান মুক্তিযুদ্ধে অংশ নিয়ে পাক হানাদার বাহিনীকে মোকাবেলা করে দেশকে শত্রু মুক্ত করার মাধ্যমে স্বাধীনতা ও লাল সবুজের পতাকা অর্জন এবং অপরটি হচ্ছে ১৯৭৫ সালে ১৫ আগস্ট সকালে কিশোরগঞ্জ শহরে দূর্দান্ত সাহসে বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রথম প্রতিবাদ মিছিলে নেতৃত্ব দেয়া। একজন খাঁটি বাঙালী হিসেবে মো: সাইদুর রহমান মানিকের এই দুটি অর্জনই তার জীবনের মূল্যায়নে শীর্ষতায় নিয়ে যাবে।

শাহরিয়ার কবীর মোশারফ বলেন, চলচিত্র প্রযোজনা ও পরিচালক সমিতির সাবেক সাধারন সম্পাদক হিসেবে এই সংগঠনের নেতৃত্ব দিয়েও সাইদুর রহমান মানিক শিল্পী জগতের মনের মনিকোঠায় স্থান দখল করে আছেন। অসাম্প্রদায়িক ও মুক্ত চেতনার একজন সাদা মনের মানুষ হিসেবে যোগ্যতার বিচারে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নেত্রকোনা-৩ আসনে সবার প্রিয় ও গ্রহণযোগ্য প্রার্থী হিসেবে শীর্ষে অবস্থান করছেন তিনি। তার জীবনে অনেক প্রাপ্তি রয়েছে। বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি এডভোকেট মো: আব্দুল হামিদের অত্যন্ত আস্থাভাজন ও স্নেহধন্য সাইদুর রহমান মানিক ২০১৭ সালে এশিয়া মহাদেশের সর্ববৃহৎ পেশাজীবী সংগঠন ঢাকা বারের সভাপতি প্রার্থী হিসেবে বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা তাকে মনোনিত করেছিলেন ঢাকা বারের নির্বাচনে বিপুল ভোটের ব্যবধানে সভাপতি নির্বাচিত হয়ে বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ডের মধ্য দিয়ে তিনি যে সততার দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন, তাতে সারা বিশ্বের দূর্ণীতি মুক্ত তৃতীয় রাষ্ট্রনায়ক হিসেবে দেশরত্ন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও গর্বিত হয়েছেন।

এডভোকেট শাহরিয়ার কবীর মোশারফ আরো বলেন, ঢাকা বারে এক বছরে মো: সাইদুর রহমান মানিক যে উন্নয়ন করেছেন তা ১২৬ বছরের ইতিহাসে বিরল।

তিনি দাবি করে বলেন, আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আশা করি বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা তৃণমূলের হাজার হাজার মানুষের প্রাণের দাবির প্রেক্ষিতে নৌকা প্রতীক মো: সাইদুর রহমান মানিকের হাতেই তুলে দেবেন। শেখ হাসিনার এই নৌকা প্রতীক নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা মানিক নির্বাচনী এলাকায় দলীয় নেতাকর্মী সহ কৃষক, শ্রমিক, জনতা, মুক্তিযোদ্ধা, শিক্ষক, সাংবাদিক ও বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষকে ঐক্যবদ্ধ করে আগামী ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনে নৌকার বিজয় নিশ্চিত করবেন। এ আশা নির্বাচনী এলাকার সকল মহলের।

এডভোকেট মোশারফ বলেন, সাইদুর রহমান মানিক নৌকা প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত হলে অবহেলিত এলাকার উন্নয়নে অতীতে ২০ বছরেও যে উন্নয়ন হয়নি ৫ বছরেই সে উন্নয়নের মাধ্যমে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে পারবেন।

এডভোকেট শাহরিয়ার কবীর মোশারফ চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়ে বলেন, পরম করুনাময় সৃষ্টিকর্তা এবং মমতাময়ী প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যদি তৃণমূলের দাবির প্রেক্ষিতে নৌকা প্রতীক সাইদুর রহমান মানিকের হাতে তুলে দেন। তাহলে তিনি নির্বাচিত হয়ে তার দায়িত্ব পালনকালীন সময়ে নিজেকে সম্পূর্ণ দুর্নীতি মুক্ত রেখে সাধারন জনগণের কাছে থেকেই সত্যিকারের সেবা দিতে সক্ষম হবেন।

এজন্য তিনি পরম করুনাময় সৃষ্টিকর্তার দরবারে দুহাত তুলে প্রার্থনা করেন জননেত্রী শেখ হাসিনা যেন বঙ্গবন্ধু হত্যার প্রথম প্রতিবাদকারী সাইদুর রহমান মানিকের হাতেই নৌকা প্রতীক তুলে দেন এবং সেই নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়ে যাতে দেশের মানুষের সেবায় আত্মনিয়োগ করতে পারেন।

(এসবি/এসপি/নভেম্বর ১৮, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৭ ডিসেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test