E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

জরুরি বৈঠকে বসেছে ভিকারুননিসার শিক্ষকেরা

২০১৮ ডিসেম্বর ০৬ ১৭:২৮:৩৫
জরুরি বৈঠকে বসেছে ভিকারুননিসার শিক্ষকেরা

স্টাফ রিপোর্টার : ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী অরিত্রী অধিকারীর আত্মহত্যার ঘটনায় শিক্ষার্থীদের দাবি দাওয়াসহ চলমান আন্দোলন নিয়ে জরুরি বৈঠকে বসেছেন শিক্ষকরা।

গ্রেপ্তার শিক্ষকের মুক্তি, নতুন করে কাউকে গ্রেপ্তার না করাসহ শিক্ষকরা চলমান পরিস্থিতিতে নিজেদের করণীয় ঠিক করতে বৈঠকে বসেছেন বলে জানা গেছে।

বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় স্কুলের সামনে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা ঘোষণা দেয় তাদের ছয়দফা দাবি মেনে না নিলে ক্লাস-পরীক্ষাসহ স্কুলের কোনো কার্যক্রমে যোগ দেবে না তারা।

অরিত্রীর আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগে দায়ের হওয়া মামলায় বুধবার রাতে গ্রেপ্তার হয়েছেন হাসনা হেনা নামে প্রতিষ্ঠানটির এক শ্রেণি শিক্ষিকা।

এমন পরিস্থিতিতে বৃহস্পতিবার দুপুরে বেইলি রোডে প্রতিষ্ঠানটির প্রধান ক্যাম্পাসে জরুরি বৈঠকে বসেন স্কুলের শিক্ষকেরা। বৈঠকে দুই শতাধিক শিক্ষক উপস্থিত আছেন বলে জানা গেছে।

ভিকারিুননিসার আজিমপুর, বসুন্ধরা ও ধানমন্ডি শাখার শিক্ষকরাও বৈঠকে যোগ দেবেন। বিভিন্ন শাখা মিলে এ প্রতিষ্ঠানে ৮ শতাধিক শিক্ষক রয়েছেন।

ভিকারুননিসার এক শিক্ষক এ বৈঠকের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলছেন, আমরা নানাভাবে শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের দ্বারা লাঞ্ছিত হয়েছি। আমরা শিক্ষার্থীদের মানুষ করি অথচ আমাদের হত্যাকারী বলে ধিক্কার দেয়া হচ্ছে। ঘর-সংসার রেখে আমরা শিক্ষার্থীদের মানুষ করার দায়িত্ব পালন করি।

গত সোমবার দুপুরে রাজধানীর শান্তিনগরের নিজ বাসায় ফ্যানের সঙ্গে গলায় ফাঁস দেয় অরিত্রী। মুমূর্ষু অবস্থায় উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল (ঢামেক) কলেজ হাসপাতালে নিলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাত ১০টায় রাজধানীর পল্টন থানায় ভিকারুননিসা নূন স্কুল অ্যান্ড কলেজের অধ্যক্ষ নাজনীন ফেরদৌস, প্রভাতী শাখার প্রধান জিনাত আক্তার ও শ্রেণি শিক্ষিকা হাসনা হেনার বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচণার মামলা দায়ের করেন অরিত্রীর বাবা।

অরিত্রীর আত্মহত্যার পর থেকে আন্দোলনে নামে তার সহপাঠীসহ স্কুলের মেয়েরা।

(ওএস/অ/ডিসেম্বর ০৬, ২০১৮)

পাঠকের মতামত:

১৯ ডিসেম্বর ২০১৮

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test