Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

মদনে পল্লী বিদ্যুৎ লাইন সংযোগে গ্রাহক হয়রানির অভিযোগ

২০১৯ মে ১৯ ১৬:৫০:২৫
মদনে পল্লী বিদ্যুৎ লাইন সংযোগে গ্রাহক হয়রানির অভিযোগ

মদন (নেত্রকোনা) প্রতিনিধি : নেত্রকোণার মদনে পল্লী বিদুৎতের লাইন সংযোগে গ্রাহককে হয়রানি করার এক লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। হয়রানির স্বীকার উচিতপুর গ্রামের গ্রাহক সেনা বাহিনীর সদস্য শাহীন মিয়া রবিবার বিভিন্ন দপ্তরে অভিযোগ দায়ের করেছেন। পল্লী বিদুৎত অফিসের বিরুদ্ধে দালাল চক্রের মাধ্যমে গ্রাহকদের নিকট থেকে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের অভিযোগ রয়েছে। 

অভিযোগে জানা যায়, উপজেলার উচিতপুর গ্রামের শাহীন আলম মিটার সংযোগ পাওয়ার জন্য গত ৭ এপ্রিল ২০১৯ ইং তারিখে মিটারের জন্য রশিদ মূলে ৪০০ টাকা পল্লী বিদুৎ অফিসে জমা দেন। এরই প্রেক্ষিতে ১৪ মে ২০১৯ ইং তারিখে পল্লী বিদুৎ ইঞ্জিনিয়ার শেখরের লাইন ম্যান আজিম মিটার নিয়ে গ্রাহকের বাড়ি গিয়ে সংযোর্গে নাম করে ১০০০ টাকা উৎকোচ দাবি করেন। উৎকোচের টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় মিটার সংযোগ না দিয়ে অফিসে যোগাযোগ করার জন্য কথা বলে মিটার নিয়ে চলে যান। এভাবে আরো অনেক গ্রাহককে হয়রানি করার একাধিক অভিযোগ রয়েছে।

এ ব্যাপারে অভিযোগকারী সেনাবাহিনীর সদস্য শাহীন আলম জানান,১০০০ টাকা না দেওয়ায় আমার বড় ভাই সৈনিক রুকন অফিসে গিয়ে ইঞ্জিনিয়ার শেখরের নিকট এ বিষয়টি জানতে চাইলে তিনি কোন সদুত্তর না দিয়ে তালবাহানা করে তিনদিন তাকে হয়রানি করে। পরে নিরুপায় হয়ে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ করতে বাধ্য হয়েছি।

এ বিষয়ে অভিযুক্ত লাইনম্যান আজিমের মোবাইলে বার বার যোগাযোগ করে সংযোগ না পাওয়ায় তার বক্তব্য দেয়া সম্ভব হয়নি।

ইঞ্জিনিয়ার শেখর রায় ঘুষ দাবির বিষয়িিট অস্বীকার করে বলেন,১৪ মে লাইন ম্যান আজিমসহ আমি মিটার নিয়ে উচিতপুর শাহীন আলমের বাড়িতে গেলে বাড়ি থেকে মিটার সংযোগে দূরত্ব থাকায় সংযোগ না দিয়ে মিটার নিয়ে অফিসে চলে আসি।

পল্লী বিদুৎ ডিজিএম মাহবোব আলী জানান, এ ব্যাপারে একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত না করা পর্যন্ত এ বিষয়ে কিছুই বলা যাবে না।

(এএমএ/এসপি/মে ১৯, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

২৫ জুন ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test