Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

আগৈলঝাড়ায় সরকারিভাবে কৃষকের বোরো ধান সংগ্রহ শুরু

২০১৯ মে ২১ ১৪:০৭:৫৭
আগৈলঝাড়ায় সরকারিভাবে কৃষকের বোরো ধান সংগ্রহ শুরু

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, বরিশাল : বরিশালের আগৈলঝাড়ায় জেলা প্রশাসক কর্তৃক প্রান্তিক কৃষকের কাছ থেকে সরাসরি বোরো ধান সংগ্রহ অভিযান উদ্ধোধন করা হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বিপুল চন্দ্র দাস’র সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে বোরো সংগ্রহ অভিযানের উদ্ভোধন করেন বরিশাল জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান।

প্রধান জেলা প্রশাসক এসএম অজিয়র রহমান বলেন, আগৈলঝাড়া এলাকা কৃষি প্রধান এলাকা হওয়ায় এখানে উৎপাদনের তুলনায় সরকারীভাবে ধান ক্রয়ের পরিমান কম। তিনি এই এলাকা থেকে আরও ধান ক্রয়ের জন্য সরকারের কাছে শুপারিশ করবেন।

উপজেলা প্রশাসন ও খাদ্য নিয়ন্ত্রকের কার্যালয় আয়োজিত উপজেলা সদরের খাদ্য গুদামে বোরো ধান সংগ্রহ উদ্ভোধনী অনুষ্টানে বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রইচ সেরনিয়াবাত, উপজেলা আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক আবু সালেহ মো. লিটন।

অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বরিশাল অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সহিদুল ইসলাম, গৌরনদী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা খালেদা নাসরিন, আগৈলঝাড়া উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মোঃ নাসির উদ্দিন, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি সুনীল কুমার বাড়ৈ, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মলিনা রানী রায়, রফিকুল ইসলাম তালুকদার, চেয়ারম্যান গোলাম মোস্তফা সরদার, বিপুল দাস, শফিকুল হোসেন টিটু, উপজেলা খাদ্য কর্মকর্তা আয়শা খাতুন, ফুড ইন্সপেক্টর শুকান্ত সেনগুপ্ত, খাদ্য পরিদর্শক শাহাদাৎ হোসেন, উপজেলা যুবলীগ সভাপতি সাইদুল সরদার, অনিমেষ মন্ডল, ছাত্রলীগ সভাপতি মিন্টু সেরনিয়াবাতসহ প্রমুখ নেতৃবৃন্দ।

শেষে প্রধান অতিথিসহ অন্যান্য অতিথিরা সরাসরি কৃষকদের কাছ থেকে বোরো ধান ক্রয় করে সংগ্রহের অভিযান উদ্ধোধন করেন।

প্রসঙ্গ, এ বছর বছর উপজেলার পাঁচটি ইউনিয়ন থেকে ২৬ টাকা কেজি হিসেবে ১০৪০ টাকা মন দরে ২শ ৯১ মেট্টিক টন বোরো ধান ও মিল মালিকদের কাছ থেকে ৩৬ টাকা কেজি দরে ১৪শ ৪০ টাকা মন দরে ৭শ ৩০ মেট্টিক টন চাল সংগ্রহ করা হবে।

কৃষি অফিস সূত্র মতে, উপজেলায় এবছর ৯৬৬৩ হেক্টর জমি চাষ করে ফসলের বাম্পার ফলন হিসেবে প্রায় ৫০ হাজার মেট্টিক টন চাল উৎপাদন হয়েছে। বিপুল পরিমান ধান উৎপাদপাদনের পরেও সরকারীভাবে মাত্র ২শ ৯১ মেট্টিক টন ধান ক্রয়ের সিদ্ধান্তে হতাশ হয়েছে প্রান্তিক চাষীরা। কারণ, তারা বলেন-বিপুল পরিমান খাদ্য শষ্য উৎপাদনের পর ফসলের বাজার মূল্য অত্যন্ত কম থাকায় চাষাবাদে লাভ তো দূরের কথা উৎপাদন খরচও উঠবে না চাষিদের। চাষিদের দাবি, সরকারিভাবে আগৈলঝাড়ায় অন্তত এক হাজার মেট্টিক টন বোরো ধান ক্রয় করলে তারা ফসলের ন্যায্য মূল্য পেতেন।

(টিবি/এসপি/মে ২১, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

২৫ জুন ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test