Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

না ফেরার দেশে চলে গেলেন সাজিউড়া গ্রামের ভোলা বাবু 

২০১৯ জুলাই ১৮ ২২:৪৫:৩৪
না ফেরার দেশে চলে গেলেন সাজিউড়া গ্রামের ভোলা বাবু 

সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, কেন্দুয়া (নেত্রকোণা) : আর কোন দিন ফিরে আসবেন না তিনি, এই সুন্দর পৃথিবীর আলো বাতাসে। না ফেরার দেশে চলে গেলেন, কেন্দুয়ার ঐতিহ্যবাহী সাজিউড়া গ্রামের ভূপাল কৃষ্ণ সরকার। যিনি ভোলা বাবু হিসেবেই সমাজে পরিচিত ছিলেন বেশি। 

বুধবার গভীর রাতে বার্ধক্যজনিত কারনে তিনি পৃথিবীর মায়া মমতা ত্যাগ করে পরপারে পারি জমান। বৃহস্পতিবার বেলা ২টায় তার নিজ বাড়ীর সামনে পুকুরপাড় প্রাঙ্গনে তার অন্তেষ্টিক্রিয়া সম্পন্ন হয়। তার মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়লে আশেপাশের গ্রামগুলো থেকে শত শত মানুষ তাকে শেষ বিদায় জানাতে ছুটে আসেন। ওই গ্রামের হিন্দু সম্প্রদায়ের লোকদের মধ্যে যারা সমাজে সার্বজনীন ব্যক্তি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন,তাদের মধ্যে রয়েছেন প্রয়াত ডা. খগেন্দ্রনাথ বিশ্বাস, অধির দেবনাথ, বর্তমানে জীবিত গীতিকার সুমঙ্গল বিশ্বাস, প্রয়াত নাট্য শিল্পী সুশীল বিশ্বাস ও সদ্য প্রয়াত ভূপাল কৃষ্ণ সরকার ভোলা বাবু।

নিখুঁত একজন ভদ্রলোক হিসেবে সমাজে বিশাল জায়গা দখল করেছিলেন। সাংস্কৃতি পরিমন্ডলে বেড়ে ওঠা এই ভূপাল কৃষ্ণ সরকার একজন নামিদামি নাট্য শিল্পীও ছিলেন। তিনি পুরুষ হয়েও নারী চরিত্রের অভিনয় করে সমাজে যে সুনাম কুড়িয়েছেন তা বর্তমানে বিড়ল। বহুগুনের অধিকারী ভূপাল কৃষ্ণ সরকার অবিভক্ত ভারতে প্রয়াত অর্থমন্ত্রী নলীনি রঞ্জন সরকারের পৈতৃক বাড়িতে অবস্থিত সাজিউড়া পোষ্ট অফিসের পোষ্ট মাষ্টার ছিলেন। তাছাড়া তিনি সাজিউড়া দেব মন্দির কমিটির সাধারন সম্পদকের দায়িত্ব পালন করেছেন দীর্ঘদিন।

তিনি সাজিউড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পারিচালনা কমিটির সভাপতির দায়িত্বও পালন করেছেন। ৮০ ও ৯০ দশকে তিনি যখন উপজেলা সদরে সাব-রেজিষ্ট্রি অফিসের দলিল লিখক হিসেবে কাজ করতেন, তখন কাজ শেষে শিল্পকলা একাডেমি ও এর পরবর্তী সময়ে ঝংকার শিল্পগোষ্ঠীর বিভিন্ন জাতীয় অনুষ্ঠানে আমাদের সঙ্গে যোগ দিতেন। কেন্দুয়া জয়হরি স্প্রাই সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়ের সিনিয়র সহকারী শিক্ষক শ্রদ্ধেয় গোলাম মোস্তফা স্যার শিল্পকলা একাডেমির যখন সাধারন সম্পাদক ছিলেন তখন সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান তিনিই পরিচালনা করতেন। আমরা দেখেছি খুব সম্মান করেই মোস্তফা স্যার ভোলা বাবুকে মঞ্চে উঠাতেন আমাদের সঙ্গে।

তিনিও হাসতে হাসতে আমাদের সঙ্গে এসে মন্দিরা বাজাতেন। আজ তিনি তার প্রিয় সহধর্মিনী সহ চার ছেলে ও এক কন্যা নাতি নাতনী সহ অসংখ গুনগ্রাহী রেখে না ফেরার দেশে চলে যান। তার মৃত্যুতে চিরাং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাবেক সভাপতি ও সাজিউড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটির সাবেক সভাপতি মোঃ ফজলুর রহমান ভূঞা, সাজিউড়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক গোলাম মোস্তফা, সাজিউড়া দেব মন্দির কমিটির সভাপতি নিতাই বিশ্বাস, কেন্দুয়া উপজেলা প্রেক্লাবের সভাপতি সাংবাদিক সমরেন্দ্র বিশ্বশর্মা, ঝংকার শিল্পীগোষ্ঠির সভাপতি গীতিকার মোঃ ফজলুর রহমান, বেতার ও টিভি শিল্পী প্রদীপ পন্ডিত সহ বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ গভীর শোক ও শোক সন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন।

(এসবি/এসপি/জুলাই ১৮, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test