Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

কলাপাড়ায় দুই ছাত্রীর গায়ে তরল জাতীয় পদার্থ নিক্ষেপ, আতংকে অসুস্থ্

২০১৯ জুলাই ২২ ১৮:৪৭:৪৮
কলাপাড়ায় দুই ছাত্রীর গায়ে তরল জাতীয় পদার্থ নিক্ষেপ, আতংকে অসুস্থ্

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : পঞ্চম শ্রেণির মডেল টেষ্ট পরীক্ষা দিতে স্কুলে যাওয়ার পথিমধ্যে ছাত্রীদের গায়ে দুই বখাটে তরল জাতীয় পদার্থ নিক্ষেপ করায় ছেলেধরা আতংকে দুই শিক্ষার্থী অসুস্থ্য হয়ে পড়েছে।

পটুয়াখালীর কলাপাড়ার ধানখালী ইউনিয়নের নিশানবাড়িয়া তাপবিদ্যুত কেন্দ্র এলাকায় সোমবার সকাল সাড়ে নয়টার দিকে এ ঘটনা ঘটেছে। চর নিশানবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের অসুস্থ্য দুই শিক্ষার্থী বৈশাখী (১০) ও হুমায়রা (১০)কে কলাপাড়া হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন দুই শিক্ষার্থী বর্তমানে সুস্থ্য রয়েছে।

অসুস্থ শিক্ষার্থীরা জানান, প্রতিদিনের মতো সাত সহপাঠী নিশানবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পঞ্চম শ্রেণির মডেল টেষ্ট পরীক্ষায় অংশ নেয়ার জন্য যাচ্ছিলেন। তাপবিদ্যু কেন্দ্রের দেয়ালে পাশ দিয়ে যাওয়ার পথে আগে থেকে ওইখানে বসা দুই যুবক হঠাৎ পকেট থেকে কিছু একটা বের করে ঘাসের সাথে মিশিয়ে তাদের দিকে ছুড়ে মারে। এ সময় তাদের সাথে থাকা সহপাঠী বিথী, আবিদা, তমা, মরিয়ম ও মীম দৌড়ে পালিয়ে গেলেও তাদের গায়ে পড়ে ওই পদার্থটি।

হুমায়রারা মা সেলিনা বেগম জানান, স্কুলের শিক্ষকদের কাছে খবর পেয়ে স্কুলে গিয়ে দেখতে পান বৈশাখী ও হুমায়রা বমি করছে এবং তারা আতংকগ্রস্থ্য। একই কথা বলেন বৈশাখীর পিতা আলতাফ বেপারী। তাঁরা বলেন, দুজনই তাদের জানিয়েছে যে দুই যুবক তাদের গায়ে তরল জাতীয় পদার্থ নিক্ষেপ করেছে। তাদের ্ আগে এলাকায় দেখা যায়নি। তারা ছেলেধরা নাকি অন্য কেউ তা তারা জানেন না।

চর নিশানবাড়িয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাহাবুদ্দিন হাওলাদার বলেন, স্কুলের শিক্ষকদের কাছে খবর পেয়ে তিঁনি অভিভাবকদের খবর দিয়েছেন। দুই ছাত্রীই একাধিকবার বমি করেছে। তাঁদের গায়ে কী নিক্ষেপ করা হয়েছে তা জানেন না। তবে এ ঘটনার পর সব শিক্ষার্থীদের মধ্যেই আতংক ছড়িয়ে পড়ে।

কলাপাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. চিন্ময় হাওলাদার জানান, দুই শিক্ষার্থীকে পরীক্ষা করে সুস্থ্য মনে হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে বাসায় পাঠিয়ে দেয়া হয়েছে। হয়তো আতংকের কারনে বমি করতে পারে।

কলাপাড়া থানার ওসি(তদন্ত) মো. আসাদ জানান, এ ঘটনায় কলাপাড়া থানায় কেউ অভিযোগ দাখিল করেনি। তবে কলাপাড়া ছেলে ধরা আতংকের গুজব থেকে মানুষকে সচেতন করতে জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে শহর জুড়ে সোমবার দুপুর থেকে মাইকিং করা হয়েছে।

(এমকেআর/এসপি/জুলাই ২২, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

০৬ ডিসেম্বর ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test