Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

সীমাহীন ভোগান্তি শেষে শুরু হচ্ছে চাতলাপুর সড়কের সংস্কার কাজ

২০১৯ সেপ্টেম্বর ১২ ১৮:২৫:৫৭
সীমাহীন ভোগান্তি শেষে শুরু হচ্ছে চাতলাপুর সড়কের সংস্কার কাজ

মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, মৌলভীবাজার : ৪২ কোটি ১০ লক্ষ ৮৫ হাজার টাকা ব্যায়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগের অধীনে মৌলভীবাজার-সমশেরনগর-চাতলাপুর চেকপোস্ট সড়কের সংস্কার কাজ চলতি মাসেই শুরু হচ্ছে বলে জানা গেছে। গত বছরের শেষ দিকে একনেক এর বৈঠকে চুড়ান্ত অনুমোদন পেলেও শেষ পর্যন্ত সড়কের সংস্কার কাজের টেন্ডার হয়নি। অবশেষে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন এর প্রচেষ্টায় দীর্ঘদিনের সীমাহীন ভুগান্তি শেষে এই গুরুত্বপূর্ণ সড়কটির উন্নয়ন কাজ শুরু হওয়ার সংবাদে জনমনে স্বস্থি ফীরে এসেছে।

জানা যায়, সড়ক পরিহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বরাবর মৌলভীবাজারের সংরক্ষিত আসনের সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন এমপি কর্তৃক নোটিশ প্রদানের পর জেলা মহাসড়ক সমূহ যথাযত মান প্রশস্ত্রতায় উন্নীতকরণ (সিলেট জোন) শীর্ষক প্রকল্পের আওতায় ৬৮ কোটি ৯১ লক্ষ টাকা প্রাক্কলিত ব্যায়ে মৌলভীবাজার-শমশেরনগর-চাতলা চেকপোষ্ট (জেড-২০০২) মহাসড়কটি উন্নয়নের লক্ষ্যে প্রথম দফায় ৪২ কোটি ১০লক্ষ ৮৫ হাজার টাকা ব্যায়ে ইতিমধ্যে দরপত্র সম্পন্ন শেষ হয়ে বর্তমানে সড়কটির সংস্কার কাজ শুরুর অপেক্ষায়। পরবর্তীতে দ্বিতীয় দফা দরপত্রের মাধ্যমে শেষ হবে সড়কটির সংস্কার কাজ।

এ-বিষয়ে মৌলভীবাজার-হবিগঞ্জ সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য সৈয়দা জোহরা আলাউদ্দিন এ প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে জানান, আমার একান্ত প্রচেষ্টার ফলে দীর্ঘদিনের জনভোগান্তির এই সড়কটি অবশেষে সংস্কার হচ্ছে। এই সড়কটি সংস্কারের জন্য আমি প্রথমে সংসদের বাজেট অধিবেশনসহ দুইবার ৭১ বিধিতে উত্তাপন করি। পরবর্তীতে সড়ক পরিহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর কাছেও বিষয়টি উত্তাপন করলে অবশেষে রাস্থাটি সংস্কারের জন্য দরপত্র আহবান করা হয়। রাস্তা সংস্কারের এই উদ্যেগে সহযোগীতার জন্য সড়ক পরিহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ওবায়দুল কাদের এর প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়ে তিনি বলেন রাস্তাটি সংস্কার শেষ হলে গুরুত্বপূর্ণ এই সড়কদিয়ে চলাচলকারী হাজার হাজার মানুষের দীর্ঘদিনের ভুগান্তি কমবে।

২০১৮ সালের ভয়াবহ বন্যায় সড়কটির বিভিন্ন অংশে খানাখন্দ তৈরি , কার্পেটিং উঠে গিয়ে বড়বড় গর্তসহ মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্থ হয়। পরবর্তীতে ২০১৮-১৯ অর্থ বছরে পিএমপি মাইনর (জরুরী মেরামত) এর মাধ্যমে মেরামত ও রক্ষণাবেক্ষণ কাজ করে সড়কটি কোনরকম সচল রাখা হলেও জনদূর্ভোগ চুরান্ত আকার ধারণ করে।

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ, কুলাউড়া, মৌলভীবাজার সদর ও রাজনগর উপজেলার বিভিন্ন গ্রামের হাজার হাজার মানুষের চলাচলের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এই সড়ক। এই সড়ক দিয়ে প্রতিদিন হাজার হাজার শিক্ষার্থী ও সাধারণ মানুষ মৌলভীবাজার জেলা সদরের সাথে যোগাযোগ স্থাপন করে চলছে। দীর্ঘদিন যাবত রাস্তাটি সংস্কার না করায় যান চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়ে। মৌলভীবাজার থেকে কমলগঞ্জ উপজেলার শমশেরনগর পর্যন্ত ২০ কিলোমিটার সড়কের অধিকাংশই খানাখন্দে ভরা।

চাতলাপুর চেকপোস্ট দিয়েই কার্ভাডভ্যান, পর্যটকবাহী বাস-মিনিবাস ও মালবাহী ট্রাকগুলো ভারতে প্রবেশের একমাত্র সড়কপথ। চাতলাপুর চেকপোস্ট ও শমশেরনগর থেকে মৌলভীবাজার সদরে যাতায়াত ও মালামাল পরিবহনে গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি বর্তমানে যান চলাচলের ক্ষেত্রে মারাত্মক ঝুঁকিপূর্ণ । গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কটি বেহাল দশায় পরিণত হওয়ার কারনে কয়েক লক্ষাধিক মানুষ পড়েছে চরম সীমাহীন দুর্ভোগে।

সড়ক ও জনপথ বিভাগ, মৌলভীবাজার এর নির্বাহী প্রকৌশলী মো: শাহরিয়ার আলম জানান, আমি এ জেলায় নতুন যোগদান করেছি। যোগদান করেই রাস্তাটি পরিদর্শন করেছি। দরপত্র প্রক্রিয়া শেষ হয়েছে, চলতি মাসেই দ্রুত সড়কটির সংস্কার কাজ শুরু হবে বলে জানান নতুন যোগদান করা সড়ক ও জনপথ বিভাগের এই কর্মকর্তা।

(একে/এসপি/সেপ্টেম্বর ১২, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test