Pasteurized and Homogenized Full Cream Liquid Milk
E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

ধামইরহাটে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার 

২০১৯ ডিসেম্বর ০২ ১৭:২৯:২৩
ধামইরহাটে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার 

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁ-ধামইরহাট-জয়পুরহাট আঞ্চলিক মহাসড়কে স্পীড ব্রেকার ও ফুটওভার ব্রিজ না থাকায় উপজেলার বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তা পারাপার হতে হচ্ছে। এ দৃশ্য নিত্যদিনের। এ কারণে বিগত কয়েক বছরে শিক্ষার্থীদেরকে বিভিন্ন ধরণের দুর্ঘটনার শিকার হতে হয়েছে। এলাকার সচেতন মহল ও শিক্ষার্থীদের পরিবারের পক্ষ থেকে স্কুলের সামনের সড়কে স্পীড ব্রেকার ও ফুটওভার ব্রিজ নির্র্মাণের দাবী জানিয়েছেন সরকারের সংশ্লিষ্ট বিভাগের কাছে।

জানা গেছে, নওগাঁ-ধামইরহাট-জয়পুরহাট আঞ্চলিক মহাসড়কের ১২ কিলোমিটার রাস্তার পার্শ্বে প্রায় ২০টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান রয়েছে।

এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের মধ্যে রয়েছে, সফিয়া পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়, ধামইরহাট সরকারি এমএম কলেজ, ধামইরহাট মহিলা কলেজ,ধামইরহাট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়,ধামইরহাট সরকারি মডেল প্রাথমিক বিদ্যালয়, চকময়রাম সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়, চকময়রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, পিড়লডাঙ্গা নূূরাণী মাদরাসা, হরিতকীডাঙ্গা উচ্চ বিদ্যালয়, হরিতকীডাঙ্গা প্রাথমিক বিদ্যালয়, কোকিল-রুপনারায়ণপুর সম্মিলিত আলিম মাদ্রাসা, কোকিল প্রাথমিক বিদ্যালয়, জাহানপুর এসসি উচ্চ বিদ্যালয়, জাহানপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ও মঙ্গলবাড়ী সিরাজিয়া স্কুল এন্ড কলেজ। উপজেলার এই আঞ্চলিক মহাসড়কে প্রতিদিন হাজার হাজার যানবাহন চলাচল করে। দূরপাল্লা এবং আভ্যন্তরিত যানবাহনগুলো দ্রুত গতিতে চলাচল করে। ফলে প্রতিনিয়ত রাস্তায় দূর্ঘটনা ঘটছে।

চকময়রাম সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক এসএম খেলাল-ই-রব্বানী জানান, উপজেলার বেশিরভাগ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলো আঞ্চলিক মহাসড়কের পাশে। তাই শিক্ষার্থীদেরকে খুব সতর্কতার সাথে রাস্তা পার হতে হয়। অনেক সময় তাদেরকে দূর্ঘটনায় পড়তে হচ্ছে। সরকার যদি এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে স্পীড ব্রেকার অথবা ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণের ব্যবস্থা করেন, তবে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা নিরাপদে সড়ক পারাপার হতে পারতো।

এ বিষয়ে সড়ক ও জনপথ বিভাগ নওগাঁর নির্বাহী প্রকৌশলী মুহাম্মদ হামিদুল হক জানান, যদি কোন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে স্পীডব্রেকার নির্মাণের প্রয়োজন হয়, তবে জেলা প্রশাসক বরাবর ওই প্রতিষ্ঠানকে আবেদন করতে হবে। আবেদন গৃহীত হলে ওই সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সামনে স্পীডব্রেকার নির্মাণ করা হবে।

(বিএম/এসপি/ডিসেম্বর ০২, ২০১৯)

পাঠকের মতামত:

১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test