E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

ঈশ্বরগঞ্জে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করার প্রতিবাদে প্রবাসীর ঘরের সামনে গর্ত

২০২০ জুন ০৩ ১৭:৪৮:৩৩
ঈশ্বরগঞ্জে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করার প্রতিবাদে প্রবাসীর ঘরের সামনে গর্ত

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে বসত ঘরের সামনে প্রতিপক্ষের খনন করা গর্তে ভেঙে পড়েছে সীমানা প্রাচীর ও হুমকির মুখে রয়েছে নির্মানাধীন প্রবাসীর পাকা বাড়ি। উপজেলার মগটুলা ইউনিয়নের নওপাড়া গ্রামের এক প্রবাসীর বাড়ি ভেঙ্গে পড়ার উপক্রম হয়েছে। 

বিষয়টি নিয়ে থানায় এজহার দায়ের করেছে প্রবাসীর ছেলে আবু হানিফ। জানা যায়, উপজেলার মগটুলা ইউনিয়নের নওপাড়া গ্রামের দুবাই প্রবাসী হারুনুর রশীদের কষ্টার্জিত টাকায় নিজ বসত বাড়িতে তিন তলা ফাউন্ডেশন দিয়ে একটি পাকা বাড়ি নির্মাণ করেন। গত এক বছর আগে বাড়ি সংলগ্ন একটি সীমানা প্রাচীরও নির্মাণ করেন। সেই সীমানা প্রাচীর ঘেষে প্রতিপক্ষ আবুল কাশেম ও আঃ খালেক ৪ফুট গভীর ১০ফুট লম্বা একটি গর্ত খনন করে মটরের পানি দিয়ে ভর্তি করে রেখেছে। ফলে প্রবাসী হারুনের সীমানা প্রাচীরটি ভেঙ্গে পড়েছে। গর্তটি ক্রমশ ভেঙে বড় হতে থাকায় ভেঙ্গে পড়ার হুমকিতে পড়েছে নির্মানাধীন বাড়িটিও। গর্তটি ঘরের দরজার সামনে হওয়ায় বাড়ির শিশুরাও ঘর থেকে বের হতে পারছেনা।

প্রবাসীর স্ত্রী নাসরীন বেগম জানান, এ গর্তের পানিতে পড়ে যেকোন সময় শিশুদের সলিল সমাধি ঘটতে পারে। বসত ঘরের সামনে প্রতিপক্ষের এমন মরণ ফাঁদ থেকে বাঁচতে ইতোমধ্যে স্থানীয় ভাবে বেশ কয়েক দফা সালিশ দরবার করেও স্থানীয় মাতাব্বরগণ এ সমস্যার সমাধান করতে পারেননি। বর্তমানে উভয় পক্ষে মধ্যে চরম উত্তেজনা বিরাজ করছে। যে কোন সময় ঘটতে পারে বড় ধরণের দুর্ঘটনা।

এ ব্যপারে প্রতিপক্ষ আবুল কাশেম ও আঃ খালেক বলেন, আমাদের বাড়ি পিছনে ফেলে ওরা সীমানা প্রাচীর করেছে। আমাদের স্থানে আমরা গর্ত করেছি। মগটুলা ইউপি চেয়ারম্যান বদরুজ্জামান মামুন জানান, স্থানীয় ভাবে সালিশ দরবার করেও বিষয়টি সমাধান করা সম্ভব হয়নি। ঘরের সামনে এভাবে গর্ত করা ঠিক হয়নি।

ঈশ্বরগঞ্জ থানার ওসি মোখলেছুর রহমান জানান, লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে। তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

(এন/এসপি/জুন ০৩, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

২১ সেপ্টেম্বর ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test