E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

দ্বিতীয় সাবমেরিণ স্টেশনের সংযোগ ক্যাবল কেটে যাওয়ায় সারাদেশে ইন্টারনেটে ধীরগতি

২০২০ আগস্ট ০৯ ২৩:৩৯:০৩
দ্বিতীয় সাবমেরিণ স্টেশনের সংযোগ ক্যাবল কেটে যাওয়ায় সারাদেশে ইন্টারনেটে ধীরগতি

কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : পটুয়াখালীর কলাপাড়া উপজেলার লতাচাপলী ইউনিয়নের গোড়া আমখোলা পাড়ায় অবস্থিত দেশের দ্বিতীয় সাবমেরিণ কেবল ল্যান্ডিং স্টেশনের সংযোগ ক্যাবল কেটে যাওয়ায় ইন্টারনেট ব্রডব্যান্ডের সঞ্চালন ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এতে রবিবার দুপুর থেকে সারাদেশে ইন্টারনেট ধীরগতি হয়ে পড়ে। আলীপুরের বন্যানিয়ন্ত্রন বাঁধের দক্ষিণ পাশে স্কাভেটর দিয়ে মাটি কাটার সময় দ্বিতীয় সাবমেরিণ ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের ইন্টারনেট ব্রডব্যান্ডের সঞ্চালন লাইন ও পাওয়ার সাপ্লাই লাইন কেটে ফেলায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। 

দ্বিতীয় সাবমেরিণ ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মো. তরিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের জানান, স্থানীয়রা স্কাভেটর দিয়ে মাটি কেটে পাশের একটি জমির চারদিকে বাঁধ দিতে ছিল। সকাল থেকেই মাটি কাটার কাজ শুরু করা হয়। ক্যাবলটি ৫ ফুট মাটির গভীরে স্থাপন করা ছিল।

স্কাভেটর দিয়ে মাটি কেটে তোলার সময় ক্যাবলটির কমপক্ষে ২৫ ফুট কেটে উপরে উঠে যায়। সকাল ১০টা থেকে ১১টার মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। এ কর্মকর্তা আরও জানায়, ক্যাবলের সাথে কিছু দুর পর হ্যান্ডহোল থাকে। এসব হ্যান্ডহোলের ভিতর ৩ মিটারের বেশি ক্যাবল রাখা হয়। কোথাও না কোথাও ক্যাবল নষ্ট হলে বাড়তি এ ক্যাবল টেনে সঞ্চালন ঠিক রাখা হয়।

এখন সমস্যা হলো যেভাবে ক্যাবল কেটে উঠে গেছে, তা এলাকার নিকটবর্তী হ্যান্ডহোলের বাড়তি ক্যাবল দিয়েও পরিপূর্ণ করা যাবেনা।

দ্বিতীয় সাবমেরিণ ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন কর্তৃপক্ষ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান স্কাভেটর দিয়ে মাটি কেটে পাশের একটি জমিতে ফেলতে ছিল। ক্যাবল যেখান দিয়ে টানা হয়েছে, ঠিক তার পাশে থেকেই মাটি কাটা হচ্ছিল। স্কাভেটরের সাথে ক্যাবলটি কেটে যখন উপরে উঠে যায়, তখন আগুন ধরে যায়।

দ্বিতীয় সাব মেরিণ ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন সূত্রে জানা গেছে, কুয়াকাটা সংলগ্ন গোড়া আমখোলাপাড়া গ্রামে অবস্থিত সাবমেরিণ ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশন থেকে একটি ব্রাঞ্চের মাধ্যমে এশিয়া-মিডলইষ্ট-ওয়েষ্টার্ণ ইউরোপকে (এসইএ-এমই-ডব্লিউই-৫) যুক্ত করা হয়েছে। এ জন্য ২৫ হাজার কি.মি. দীর্ঘ ক্যাবল লাইন স্থাপন করা হয়েছে। ক্যাবলটি বিচ্ছিন্ন হওয়ায় পুরো সঞ্চালন ব্যবস্থা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ২০১৭ সালের ১০ সেপ্টেম্বর কুয়াকাটার নিকটবর্তী গোড়া আমখোলাপাড়া গ্রামে দ্বিতীয় সাবমেরিণ ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনটি প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উদ্বোধন করেন।

দ্বিতীয় সাবমেরিণ ক্যাবল ল্যান্ডিং স্টেশনের উপ-মহাব্যবস্থাপক (ডিজিএম) মো. তরিকুল ইসলাম আরও বলেন, ‘আসলে ক্যাবলটি কীভাবে কাটলো, অথবা এটার পিছনে কোনো উদ্দেশ্য আছে কীনা তা এই মুহুর্তে বলা যাচ্ছেনা। তদন্ত করার পর বিস্তারিত বলা যাবে। ক্যাবলটি মেরামত করে আমরা সঞ্চালন ব্যবস্থা চালু করতে চেষ্টা চালাচ্ছি।’

জানা যায়, বাংলাদেশে ২০০৫ সাপলে প্রথম সাবমেরিন কেবল সি মি উই-৪ যুক্ত হয়। কলাপাড়ার দ্বিতীয় সাবমেরিন কেবল ল্যান্ডিং ষ্টেশনের মাধ্যমে সি মি উই-৫ সাবমেিিরন কেবলে যুক্ত হয়। এর মাধ্যমে সাউথইষ্ট এশিয়া-মিডলইষ্ট-ওয়েষ্টার্ন ইউরোপ আন্তর্জাতিক কনসোর্টিয়ামের সাবমেরিন কেবল থেকে সেকেন্ডে ১ হাজার ৫০০ গিগাবাইট (জিবি) গতির ব্যান্ডউইথ পায়।

(এমকে/এসপি/আগস্ট ০৯, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

২০ সেপ্টেম্বর ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test