E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

হিলি স্থল বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু  

২০২০ সেপ্টেম্বর ১৯ ১৬:৫৬:১৫
হিলি স্থল বন্দর দিয়ে পেঁয়াজ আমদানি শুরু  

শাহ আলম শাহী, দিনাজপুর : দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে আবারো শুরু হয়েছে পেঁয়াজ আমদানি। আজ শনিবার বিকেল সোয়া ৩টায় প্রথম পেঁয়াজ বোঝাই ৩ টি ট্রাক প্রবেশ করে বাংলাদেশে। পরে পর্যায়ক্রমে আরও ৮ টি।

আজ শনিবার বাংলাদেশে মোট প্রবেশ করেছে ১১ ট্রাক পেঁয়াজ। এর সত্যযতা নিশ্চিত করেছে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সহ-সভাপতি শাহিনুর রেজা শাহীন।

তিনি জানান, ভারতে গত ১৪ সেপ্টেম্বর সোমবার এলসি করা যে সমস্ত পেঁয়াজ ওপারে ট্রাকে আটকা পড়েছিল ,তা বাংলাদেশে আজ শনিবার বিকেল থেকে পাঠানো শুরু হয়েছে। এ পর্যন্ত পাঠিয়েছে ১১ ট্রাক পেঁয়াজ। যা আনুমানিক দুই' শ ৫০ মেট্রিক টন।

তিনি আরও জানিয়েছেন, দিনাজপুরের হিলি স্থল বন্দরের ওপাড়ে ভারতে আটকা পড়েছে প্রায় ৩ শতাধিক পেঁয়াজের ট্রাক। পচন ধরার আশংকায় বাংলাদেশি আমদানিকারকরা উদ্বিগ হয়ে পড়ে। আনুমানিক প্রায় ১০ হাজার মেট্রিক টন পেঁয়াজ আটকা পড়েছে বলেও জানিয়েছেন তিনি।

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রুপের সভাপতি ও হাকিমপুর উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন অর রশিদ বলেন, হিলি স্থলবন্দরের আমদানিকারকেরা ১০ হাজার টনের মতো পেঁয়াজ আমদানির জন্য এলসি করেছেন। ভারতীয় তিন শতাধিক ট্রাক পেঁয়াজ নিয়ে রাস্তায় আটকে পড়েছে। এসব পেঁয়াজ প্রবেশ করতে না পারলে সেগুলোতে পচন ধরবে। ব্যবসায়ীদের লোকসান গুনতে হবে। তাই, এলসি করা পেঁয়াজগুলো আজ শনিবার থেকে পাঠানো শুরু করেছে তার । পরে পেঁয়াজ আমদানি নিয়মিত হবে কি না তা বাণিজ্য মন্ত্রণালয় হস্তক্ষেপ নেবে।

তিনি আরও জানান, ১৩ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ভারতীয় রপ্তানিকারকেরা প্রতি মেট্রিক টন পেঁয়াজ ২৫০ থেকে ৩০০ ডলারে রপ্তানি করছিলেন। কিন্তু, ভারতে পেঁয়াজের মূল্য দ্বিগুণের বেশি হয়ে যাওয়ায় ওই মূল্যে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করেছেন তাঁরা। ভারতের বাজারমূল্যের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে নতুন এলসি মূল্য নির্ধারণ করার জন্যই পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ রেখেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইতিমধ্যে ভারতের ব্যবসায়ীরা ওই দেশের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে প্রতি মেট্রিক টন পেঁয়াজ ৭৫০ ডলার নির্ধারণ করার জন্য প্রস্তাব করেছেন।

এদিকে এ বিষয়ে হিলি স্থলবন্দর শুল্ক বিভাগের ডেপুটি কমিশনার সাইদুল আলম জানান, ভারত শনিবার বিকেল থেকে পেঁয়াজ দেয়া শুরু করেছে। পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়ায় পর স্থলবন্দরগুলোর ওপারে প্রচুর পেঁয়াজ আটকা পড়ে।

ভারত সরকার পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধের পর টানা ৫ দিন আটকে থাকা পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক গুলো হিলি স্থলবন্দর প্রবেশ করতে শুরু করেছে।তবে পেঁয়াজের গুনগত মান নিয়ে দুশ্চিন্তায় আমদানিকারকরা।এদিকে স্থানীয় খুচরা বাজারে কেজিতে ২০ টাকা কমেছে পেঁয়াজের দাম।

হিলি পানামা পোর্ট জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন প্রতাপ মল্লিক বলেন, গেলো সোমবার কোন কারন ছাড়াই পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ ঘোষনা করে ভারত সরকার। ফলে আগের টেন্ডার করা শত শত পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক ভারতের অভ্যন্তরে আটকা পরে যায়। দুই দেশের ব্যবসায়ীদের সাথে বৈঠক শেষে আজ বিকেলে পেঁয়াজ বোঝাই ট্রাক বন্দরে প্রবেশ করতে শুরু করেছে। পেঁয়াজ গুলোর গুনগত মান নষ্ট হয়েছে। দেশের বাজার স্বাভাবিক রাখতে বন্দরে আসা পেঁয়াজ গুলো দ্রুত ছাড়করন করার ব্যবস্থা করছি।যাতে ব্যবসায়ীরা ক্ষতি গ্রস্থ না হয়।

(এস/এসপি/সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

২১ অক্টোবর ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test