E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

রংপুরে দুই বোন হত্যাকান্ড, নেপথ্যে প্রেম! 

২০২০ সেপ্টেম্বর ১৯ ২৩:২২:৪৩
রংপুরে দুই বোন হত্যাকান্ড, নেপথ্যে প্রেম! 

মানিক সরকার মানিক, রংপুর : রংপুরের গনেশপুরে মীম ও মাওয়া নামের দুই বোনের মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় মেট্রোপলিটন কোতোয়ালি থানায় একটি হত্যা মামলা হয়েছে। নিহত জান্নাতুল মাওয়ার বাবা মমিনুল ইসলাম বাদী হয়ে অজ্ঞাতনামা আসামী করে শনিবার মামলাটি দায়ের করেন। ময়না তদন্ত শেষে শনিবার বিকেলে দুই বোনের লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে পুলিশ। 

এদিকে এ ঘটনায় শনিবার বিকেল পর্যন্ত পুলিশ কাউকে গ্রেফতার করেনি এবং সন্দেহভাজন বেশ কয়েকজনকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে বলে পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ও মিডিয়া উইং প্রধান উত্তম প্রসাদ পাঠক জানালেও নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক পুলিশের নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র জানায়, বড় বোনের প্রেমঘটিত বিষয়ে এ হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে এবং এজন্য রিফাত ও আরিফুল নামের সন্দেহভাজন সংশ্লিষ্ট দু’জনকে তারা আটক করলেও তদন্তের স্বার্থে এখনি তা প্রকাশ করছেন না তারা।

পুলিশের ওই কর্মকর্তা জানান, শনিবার মমিনুল ইসলাম দন্ডবিধির ৩০২/২০১/৩৪ ধারা এবং কয়েকজন অজ্ঞাত নামা উল্লেখ করে মামলাটি করেন।

তিনি জানান, বিষয়টিকে তারা সবোর্চ গুরুত্বের সাথে দেখছেন। ঘটনাস্থল ক্রাইমসিন দিয়ে সংরক্ষণ করে ইতোমধ্যেই বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে এবং এ ঘটনার রহস্য উদঘাটনে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা কাজ করে যাচ্ছে।

আর অপর সূত্র মতে, আটক মাহফুজার রহমান রিফাত ও আরিফুল ইসলাম পাশর্^বর্তী মুলাটোল মদিনাতুল উলুম কামিল মাদ্রাসার আলীম প্রথম বর্ষের ছাত্র এবং তারা দু’জনে বন্ধু। শুক্রবার রাতে রিফাতকে উত্তর বাবুখাঁ এবং আরিফকে সদর উপজেলার লাহিড়ীরহাট এলাকা থেকে পুলিশ আটক করে। মীমও ওই মাদ্রাসা থেকে এ বছর দাখিল পরীক্ষায় অংশ নিয়ে উত্তীর্ণ হয়। আর মাওয়া পার্শ্ববর্তী মুক্তিযোদ্ধা তৈয়বুর রহমান উচ্চ বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

জানা যায়, রিফাতের সঙ্গে বড়বোন মীমের প্রেমের সম্পর্ক ছিল। বৃহস্পতিবার ঘটনার রাতে রিফাতের সঙ্গে মীমের আপত্তিকর দৃশ্য দেখে ফেলে মাওয়া। এরই প্রেক্ষিতে রিফাত মাওয়ার গলায় ব্লেড চালিয়ে তাকে খুন করে একটি কক্ষে ফেলে রাখে। পরে খুনের বিষয়টি নিয়ে মীমের সঙ্গে রিফাতের কথাকাটির এক পর্যায়ে সে মীমকেও হত্যা করে তার লাশ ফ্যানের সঙ্গে ঝুলিয়ে রেখে পালিয়ে যায়।

সূত্র মতে, রিফাতের এ বিষয়গুলো জানতো আরিফ। পুলিশ শুক্রবার রাতেই তাদের আটকের পর জিজ্ঞাসাবাদে এ তথ্য নিশ্চিত হয় বলে জানায় ওই সূত্র। তবে পুলিশের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ও মিডিয়া উইং প্রধান এ বিষয়গুলো অস্বীকার করে বলেন, রহস্য উদ্ঘাটন হলে সাংবাদিক সম্মেলনে বিস্তারিত তুলে ধরবেন তারা।

উল্লেখ্য, শুক্রবার দুপুরে মহানগরীর গনেশপুর এলাকার একটি বাসা থেকে সোমাইয়া আক্তার মীম ও তার চাচাতো বোন জান্নাতুল মাওয়ার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

(ওএস/এসপি/সেপ্টেম্বর ১৯, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

২২ অক্টোবর ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test