E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

দিনাজপুরে শিশু পাচারকারী সন্দহে নারীসহ আটক ৩

২০২০ অক্টোবর ১৭ ১৮:৫৭:৪০
দিনাজপুরে শিশু পাচারকারী সন্দহে নারীসহ আটক ৩

স্টাফ রিপোর্টার, দিনাজপুর : দিনাজপুরে শিশু পাচারকারী সন্দেহে এক নারী দুই যুবককে আটক করেছে জনতা। পরে পুলিশে সোর্পদ করা হয়েছে তাদের।দিনাজপুরের উপশহরস্থ খেরপট্রি থেকে তাদের আটক করা হয়।

আজ শনিবার সকাল ৯ টায় শহরের ঈদগাহ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী মেঘলা আক্তার মালা (১২) পরিক্ষার খাতা জমা দিতে স্কুলে যাওয়ার পথে জোর পূর্বক তাকে মোটরসাইকেলে তুলতে চায় আটককৃতরা। এসময় মেঘলার চিৎকারে পালিয়ে যাওযার সময় তাদের অটক করে স্থানীয় জনতা।

আটককৃতরা হলেন,কুড়িগ্রামের উলিপুর উপজেলার বেগমগঞ্জের পাষন বেপারীর মেয়ে বিউটি খাতুন (১৯),নীলফামারী উত্তর চাওড়া গ্রামের আলতাফ হোসেনের ছেলে জাকির হোসেন(২০) একই এলাকার ভুতেন রাযের ছেলে বিপুল রায় (১৯)।

স্থানীরা জানায়, উপশহরের খোদমাধবপুর বানিয়া পাড়ার মোস্তফা কামালের মেয়ে ঈদগাহ বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী মেঘলা আক্তার মালা (১২)। মেঘলা পরিক্ষার খাতা জমা দিতে স্কুলে যাওয়ার পথে তাকে জোর করে মোটরসাইকেলে তুলতে চায় বিউটি ও তার সহকর্মীরা। একপর্যায়ে মেঘলার চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে (বাজাজ সিটি-১০০ লীলফামারী-হ ১৩-০৭৯০) মোটর সাহকেলে পালিয়ে যায় তারা। স্থানীয় লোকজন ধাওয়া করে ৩ জনকে আটক করে। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ৩ জনকে দিনাজপুর কোতয়ালী থানায় নিযে যায়। এ রিপোর্ট লিখা পযন্ত মামলার পস্তুতি চলছিল।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, দিনাজপুর উপশহরের খোদমাধবপুর বানিয়া পাড়ায় দিনাজপুর জেলা দলের খেলোয়ার পিকের বাসায় গত ২ মাস ধরে বসবাস করছিল বিউটি। একসময় স্থানীয় লোকজনের সন্দেহ হলে পিকের বাবা মকছেদ আলী,মাতা খালেদা বেগম কে জিজ্ঞাসা করলে বড় ছেলে পটল এর বউয়ের আত্মিয় বেড়াতে এসেছে বলে জানান। অল্প কিছুদিনের মধ্যে স্থানীরা জানতে পারে বিউটি একজন কবিরাজ ঝাড়,ফুক,বাচ্চা না হওয়া,বাদব্যাথার সমাধান দেন। যে সব মহিলাদের সন্তান হয়না এমন বেশ কিছু মহিলার কাছে বিউটি গর্ভধারণের জন্য ৩/৪ হাজার টাকাও নিয়েছেন।
আশ্রয়দাতা খালেদা বেগম জানান, আমারা বিউটিকে ২/৩ বার বাড়ি বের করে দিয়েছি।বিভিন্ন অজুহাতে আবার ফিরে আসে। আমার ছোট মেয়ে সূবর্ণার জন্য খাবার কিনি নিয়ে আসে। এখানে সেখানে ডাকে নিয়ে যায়। আমরা জানতে পেড়ে তাকে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছি। এবং আমার মেয়েকে সাবধান করে দিয়েছি।

এ বিষয়ে দিনাজপুর কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি)মোজাফফর হোসেনের সাথে কথা হলে তিনি জানান,সন্দেহজনক ভাবে তাদের জনতা আটক করে পুলিশে দিয়েছে। আটককৃতদের আদালতে পাঠানো হয়েছে। তবে, খোঁজ নিয়ে জানা গেছে ইতিপূর্বে তাদের বিরুদ্ধে এমন কোন অভিযোগ নেই। মুলতঃ তারা আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে এসেছিলো। ভুল বোঝাবুঝির জন্য এমনটি ঘটেছে।

(এস/এসপি/অক্টোবর ১৭, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

২৭ অক্টোবর ২০২০

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test