E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Transcom Foods Limited
Mobile Version

৬ষ্ঠ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে রাতভর আটকে রেখে ধর্ষণ

২০২০ নভেম্বর ০১ ১৭:৫৩:২৯
৬ষ্ঠ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে রাতভর আটকে রেখে ধর্ষণ

ধ্রুব রঞ্জন দাস, কটিয়াদী (কিশোরগঞ্জ) : কিশোরগঞ্জের কটিয়াদী উপজেলার মুমুরদিয়া ইউনিয়নের তেরগাতি গ্রামের ৬ষ্ঠ শ্রেণীর স্কুল ছাত্রীকে ( ১২) রাতভর আটকে রেখে ধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। সে কটিয়াদী থানার বতিহাটা হাজেরা সুলতানা উচ্চ বিদ্যালয়ের ছাত্রী। ঘটনার দুই দিন পর রবিবার কটিয়াদী মডেল থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন ছাত্রীর মা সাহানা আক্তার (৩৫ )। 

ছাত্রীর মা সাহানা আক্তারের অভিযোগ, গত ২৯ অক্টোবর সন্ধ্যায় আমার মেয়ে পার্শ্ববর্তী পাগলা বাজারে যায়। সেখান তার চাচাতো ভাই আল আমিনের সাথে দেখা হয় সে তাকে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে সঙ্গে নিয়ে আসে। কিন্তু কিছুদুর আসার পর সে তার মেয়েকে তুলে দেয় একই গ্রামের মো: শফিকুল ইসলামের ছেলে চলটু মিয়া (১৮) কাছে। চলটু মিয়া কিছুদুর আসার পর তার মেয়েকে তার ব্যবহৃত উড়ানা দিয়ে বেধেঁ নিয়ে যায় গ্রামের কুলি মিয়ার জঙ্গলে। সেখানে সে রাতভর আটকে রেখে জোরপূর্বক কয়েকবার ধর্ষণ করে।

পরে চলটু মিয়া শুক্রবার (৩০ আক্টোবর) ভোরে মেয়েকে বাড়ি নিকট ছেড়ে চলে যায়। অসুস্থ অবস্থায় ওই ছাত্রী বাড়ি ফিরে সৎমা মার্জিয়াকে ও আত্মীয় স্বজনকে জানায়।

পরে তার মা সাহানা আক্তার বাজিতপুর উপজেলা (মায়ের পিতার বাড়ি) থেকে এসে শ্বশুর বাড়ির আতœীয় স্বজনের সাথে পরামর্শ করে এবং মেয়ের শারীরিক চিকিৎসা করে থানায় অভিযোগ করেন। এর জন্য তাদের আইনগত ব্যবস্থা নিতে বিলম্ব হয়েছে বলে জানান তার মা সাহানা আক্তার।

ভোক্তভোগী ওই স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের সত্যতা স্বীকার করেছে। সে দেশের প্রচলিত আইন অনুযায়ী ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছে।

কটিয়াদী মডেল থানার ওসি তদন্ত মো: শফিকুল ইসলাম বলেন, অভিযোগ পেয়েই আসামিদের ধরতে পুলিশের অভিযান চলছে।

(ডিডি/এসপি/নভেম্বর ০১, ২০২০)

পাঠকের মতামত:

১৯ জানুয়ারি ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test