E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

নেই জনসচেতনতা, প্রশাসনিক নজরদারির অভাব

রংপুরে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে!

২০২১ জুন ২২ ১৯:০৩:৪৯
রংপুরে করোনায় আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে!

মানিক সরকার মানিক, রংপুর : মঙ্গলবার পর্যন্ত গত ২৪ ঘন্টায় রংপুর বিভাগে নতুন করে ৭৪৬  জনের নমুনা পরীক্ষা করে নতুন করে ৮ জেলায় ২৫৮ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এনিয়ে ২২ হাজার করোনা রোগি শনাক্ত ছাড়ালো। মঙ্গলবার সকাল পর্যন্ত ৬৮৬ জনের করোনা পরীক্ষায় ৮ জেলায় মোট ২৬৮জন আক্রান্ত হয়েছে। এরমধ্যে মঙ্গলবার সকালে রংপুর মহানগরীর কটকীপাড়া এলাকায় আবু সাইদ নামের এক তরুণ ব্যবসায়ীর মৃত্যু হয়েছে। 

এদিকে এই বিভাগের ৮ জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগি এবং মৃতের সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পেলেও সাধারণ্যে নেই ন্যুনতম সচেতনতা। ফলে এ অঞ্চলে আক্রান্ত এবং মৃত্যু নিয়ে প্রশাসনসহ কারোরই নেই কোন মাথা ব্যথা। চলছে মোড়ে মেড়ে আড্ডা।নগরীর অন্তত ৭০ ভাগ মানুষ চলছে মাস্কহীন। চলছে নিষিদ্ধ ঘোষিত সব ধরণের সামাজিক অনুষ্ঠানাদীয়। হাট বাজার শপিং মলগুলোতেই নেই কোন নিয়ম নীতির বালাই।

এ নিয়ে ২৪ ঘন্টায় রংপুরে ২ জন, দিনাজপুরে ৩, ঠাকুরগাঁওয়ে ৩ এবং কুড়িগ্রাম জেলায় ১জন রয়েছে। ২৪ ঘন্টায় সুস্থ হয়েছেন ৯৩ জন। এ নিয়ে বিভাগে ১ লাখ ৪৪ হাজার ২৩৩ জনের পরীক্ষা করে মোট ২২ হাজার ৯৫ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে। আর বিভাগে মৃত্যু হয়েছে এ পর্যন্ত বিভাগে ৪৬১ জনের মুত্যু হয়েছে। সুস্থ হয়েছেন ১৮ হাজার ৮৩৮ জন।

রংপুর বিভাগীয় স্বাস্থ্য কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় বর বিভাগের রংপুরে ১২, দিনাজপুরে ১২৩, ঠাকুরগাঁয়ে ৭৭ কুড়িগ্রামে ২২, গাইবান্ধায় ১২ পঞ্চগড় ৫, নীলফামারী ৫ এবং লালমণিরহাটে ১জন করে শনাক্ত হয়েছেন। বিভঅগীয় স্বাস্থ্য পরিচালক ডা. আহাদ আলী জানান, গতকাল পর্যন্ত রংপুর জেলায় ৫ হাজার ৪০৯ জন শনাক্ত এবং ১০৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। দিনাজপুরে ৭ হাজার ৬৬ জন শনাক্ত ১৬৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

ঠাকুরগাওঁয়ে ২ হাজার ৪১০জন শনাক্ত এবং ৬০ জন মৃত্যুবরণ করেছেন। গাইবান্ধায় ১ হাজার ৮৮২ জন শনাক্ত এবং ২৩ জনের মুত্যু হয়েছে। নীলফামারীতে ১ হাজার ৬৮০ জন শনাক্ত এবং ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। কুড়িগ্রামে ১ হাজার ৪৬৩ জন শনাক্ত এবং ২৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। লালমণিরহাটে ১ হাজার ২৮৯ জন শনাক্ত এবং ১৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। পঞ্চগড়ে ৮৯৬ জন শনাক্ত এবং ২০ জনের মৃত্যু হয়েছে। এছাড়াও করোনা সন্দেহে বিভাগে বর্তমানে ৭৩৬জন হোম কোয়ারাইন্টাইনে আছেন। এর আগে কোয়ারাইন্টাইনে ছিলেন ১ লাখ ১৮ হাজার ৬৯ জন। একই সময়ে ৩৮৭জনসহ মোট ১ লাখ ১১ হাজার ৩২১ জনকে ছাড়পত্র দেয়া হয়।

(এম/এসপি/জুন ২২, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

২৮ অক্টোবর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test