E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

মৌলভীবাজারে প্রাইভেট কারসহ চোর চক্রের তিন সদস্য আটক

২০২১ সেপ্টেম্বর ১৫ ১৪:৩৯:২২
মৌলভীবাজারে প্রাইভেট কারসহ চোর চক্রের তিন সদস্য আটক

মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, মৌলভীবাজার : মৌলভীবাজারে গোয়েন্দা পুলিশের অভিযানে দৌড়ে পালানোর সময় প্রাইভেট কারসহ চোর চক্রের তিন সদস্যকে হাতেনাতে গ্রেফতার করা হয়েছে।  

মঙ্গলবার (১৪ সেপ্টেম্বর) বিকাল ৫টার দিকে সদর উপজেলার জগন্নাথপুর চেয়ারম্যান মার্কেটে অবস্থিত মায়ের দোয়া ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপ এর সামনে থেকে একটি কালো রংয়ের প্রাইভেটকারসহ (রেজি নং-ঢাকা মেট্রো-খ-১৪-০৪৩৬) চোর চক্রের ওই তিন সদস্যকে গ্রেফতার করে জেলা গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল। উদ্ধার হওয়া পাইভেট কারটির বর্তমান বাজার মূল্য সাড়ে ৫লক্ষ টাকা বলে দাবি গোয়েন্দা পুলিশের।

এঘটনায় আটককৃতরা হলেন, শ্রীমঙ্গল উপজেলার মাজদিহি গুচ্ছগ্রামের মৃতঃ আমির মিয়ার ছেলে মোঃ আল-আমিন মিয়া (২৭) সিলেটের দক্ষিণ সুরমা উপজেলার বরইকান্দি গ্রামের মৃতঃ রাজন মিয়ার ছেলে মোঃ জুনেদ মিয়া (২৭) ও শ্রীমঙ্গল উপজেলার মাজদিহি গুচ্ছগ্রামের মোঃ জরিপ মিয়ার ছেলে মঈনুল ইসলাম সোহেল (২২) । গ্রেফতারকৃত তিন জনের মধ্যে জুনেদ মিয়ার বাড়ি সিলেটের দক্ষিণ সুরমায় হলেও সে বর্তমানে শ্রীমঙ্গল শহরের ভটের মেইল এলাকায় বসবাস করছে বলে জানা গেছে।

জেলা গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্য মোহাম্মদ বদিউজ্জামান বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান,আটককৃতের বিরুদ্ধে মৌলভীবাজার সদর মডেল থানায় গোয়েন্দা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) আজিজুর রহমান ন্ইাম বাদী হয়ে মামলা দায়ের করেছেন।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল মঙ্গলবার বিকালের দিকে মৌলভীবাজার শহরের চৌমুহনা এলাকায় মাদকদ্রব্য উদ্ধার, অবৈধ অস্ত্র ও চোরাচালান রোধে বিশেষ অভিযান চালায়। এসময় তথ্য আসে সদর উপজেলার শ্রীমঙ্গল সড়কের জগন্নাথপুর এলাকার চেয়ারম্যান মার্কেটে অবস্থিত মায়ের দোয়া ইঞ্জিনিয়ারিং ওয়ার্কসপ এর সামনে তিন ব্যক্তি একটি কালো রঙের চোরাই প্রাইভেটকার নিয়ে যন্ত্রাংশ মেরামত করে তা বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে অবস্থান করছে। এমন তথ্যে ওই এলাকায় অভিযান চালায় গোয়েন্দা পুলিশের ওই দলটি। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ওই ওয়ার্কসপের সামনে অবস্থান করা প্রাইভেটকারের ভিতর থেকে দুই ব্যক্তি বের হয়ে এবং প্রাইভেটকারের সামনে দাঁড়ানো থাকা অপর একজনসহ তিন ব্যক্তি কারটি রেখে দৌঁড়ে পালানোর চেষ্টা করলে এদের তিনজনকেই আটক করা হয়।

আটককৃতরা জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, প্রাইভেটকারটি দুই মাস পূর্বে অজ্ঞাতস্থান থেকে অজ্ঞাতনামা ২ থেকে ৩জন ব্যক্তি চুরি করে নিয়ে আসে। মঙ্গলবার তাঁরা কারটির যন্ত্রাংশ মেরামত করার পর তা বিক্রয়ের জন্য ঘটনাস্থলে অবস্থান করছিল।

জিজ্ঞাসাবাদে প্রাইভেট কারটির মালিকানা সংক্রান্ত কাগজপত্র দেখতে চাইলেও তাঁরা তা দেখাতে ব্যর্থ হয় বলে জানায় পুলিশ। এসময় প্রাইভেটকারটি কোথা থেকে নিয়ে আসা হয়েছে তারও কোন সদোত্তর দিতে পারেনি আটককৃতরা।

(একে/এসপি/সেপ্টেম্বর ১৫, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

২৫ অক্টোবর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test