E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

প্রতিকার চেয়ে বিভিন্ন দপ্তরে আবেদন

বালিয়াকান্দিতে প্রতিবন্ধী পেনশন সুবিধা নিতে সুস্থ ব্যক্তির তোড়জোড়!

২০২১ সেপ্টেম্বর ২০ ১৬:৫৭:১১
বালিয়াকান্দিতে প্রতিবন্ধী পেনশন সুবিধা নিতে সুস্থ ব্যক্তির তোড়জোড়!

এ কে আজাদ, রাজবাড়ী : রাজবাড়ীর বালিয়াকান্দিতে সুস্থ ব্যক্তি এস,এম শফিকুল ইসলাম প্রতিবন্ধী পেনশন সুবিধা নিতে কাগজপত্র দাখিল করে হাতিয়ে নেওয়ার চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। ওই প্রতিবন্ধী পেনশন সুবিধা বাতিল চেয়ে জনৈক আঃ রহমান জেলা প্রশাসকসহ বিভিন্ন দপ্তরে লিখিত অভিযোগ দাখিল করেছেন।

অভিযোগ সুত্রে জানাগেছে, রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রাক্তন মেডিকেল অফিসার ডা. এসএম শহীদুল্লাহ ২০১৪ সালে অবসরগ্রহণ করেন। চাকুরীতে কর্মরত থাকাকালীন সময়ে তিনি তার সন্তান এসএম শফিকুল ইসলামের জন্য স্বজনপ্রীতির মাধ্যমে সমাজসেবা কর্তৃক একটি প্রতিবন্ধী কার্ড করেন। তার ছেলে যেন প্রতিবন্ধী হিসেবে আজীবন বিপুল পরিমাণ অর্থ পেনশন সুবিধা পায় সে লক্ষে তিনি অসুদপায় অবলম্বন করেন সে সময়ে। অনুমান গত ২০১৮ সালে ডা. এসএম শহীদুল্লাহ মৃত্যুবরণ করেন। তার মৃত্যুর পর তার ছেলে এসএম শফিকুল ইসলাম প্রতিবন্ধী হিসেবে সুযোগ সুবিধা পাওয়ার জন্য বিভিন্ন দপ্তরে বড় অংকের ঘুষের মাধ্যমে সকল কাগজপত্র সম্পন্ন করেছেন। শুধু তাই নয় নামমাত্র মেডিকেল বোর্ড গঠন করে বড় অংকের ঘুষের মাধ্যমে সমাজসেবা কর্তৃক প্রতিবন্ধী কার্ড দেখেই কোন রকম পরীক্ষা নীরিক্ষা ছ্ড়াাই রাজবাড়ী সিভিল সার্জন কার্যালয় থেকে মেডিকেল বোর্ড প্রতিবন্ধী হিসেবে প্রত্যয়ন প্রদান করেন।

মূলত এসএম শফিকুল ইসলাম প্রতিবন্ধী নয়। সুস্থ এবং স্বাভাবিক জীবন যাপন করা এসএম শফিকুল ইসলাম, রাজবাড়ী পৌরসভার চরল²ীপুর এলাকার বাসিন্দা। এসএম শফিকুল ইসলাম পরিপূর্ণ সুস্থ্য মানুষ হওয়ার পরেও প্রতিবন্ধী হিসেবে পেনশন সুবিধা পেলে সরকারের বিপুল পরিমাণ অর্থ অপচয় হবে। একজন সচেতন মানুষ হিসেবে পুনরায় মেডিকেল বোর্ড গঠন করে উক্ত শফিকুল ইসলামের প্রতিবন্ধীতা যাচাই-বাছাই করার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করেন। চরলক্ষীপুর এলাকার সচেতন মানুষের পক্ষে আব্দুর রহমান এ অভিযোগের অনুলিপি রাজবাড়ী সিভিল সার্জন, বালিয়াকান্দি উপজেলা নির্বাহী অফিসার, উপজেলা হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা ও রাজবাড়ীর বিভিন্ন সাংবাদিক সংগঠনের নিকট দাখিল করেছেন।

এ বিষয়ে এসএম শফিকুল ইসলামের নিকট জানতে তার ব্যবহৃত মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও ফোন রিসিপ না করায় কথা বলা সম্ভব হয়নি।

বালিয়াকান্দি উপজেলা হিসাব রক্ষণ কর্মকর্তা মোঃ সদর উদ্দিন শেখ বলেন, আমি একটি অভিযোগের কপি পেয়েছি। এসএম শফিকুল ইসলাম তার প্রতিবন্ধীর সকল কাগজপত্র নিয়ে আমার অফিসে এসেছিল। আমি তাকে প্রশ্ন করি, আপনি সুস্থ্য কেন প্রতিবন্ধী পেনশন সুবিধা নিবেন।

তার উত্তরে বলেন, আমি সুস্থ্য তাতে আপনার কোন সমস্যা আছে। আমি কাগজপত্র দিবো তা দিয়ে করে দিবেন। বিষয়টির নতুন করে মেডিকেল বোর্ড গঠন করা, বা সুস্থ্য মানুষের কিভাবে প্রতিবন্ধী পেনশন সুবিধা পাবেন সে বিষয়ে মতামত নেওয়ার জন্য ডিসিএ বরাবর লিখিত আকারে পাঠানো হয়েছে। সেখান থেকে মতামত পাওয়ার পর পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে।

(একে/এসপি/সেপ্টেম্বর ২০, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

২৩ অক্টোবর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test