E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

ঈশ্বরগঞ্জে একাত্তরের যুদ্ধাপরাধী শহীদুল্লাহ আটক 

২০২১ সেপ্টেম্বর ২৪ ০০:০২:৫৫
ঈশ্বরগঞ্জে একাত্তরের যুদ্ধাপরাধী শহীদুল্লাহ আটক 

ঈশ্বরগঞ্জ (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি : ময়মনসিংহের ঈশ্বরগঞ্জে ১৯৭১ সালের মহান স্বাধীনতা যুদ্ধাপরাধী শহীদুল্লাহ ফকির (৭২) কে আটক করেছে পুলিশ। 

বৃহস্পতিবার উপজেলার কালীবাড়ী রোড থেকে তাকে আটক করা হয়। যুদ্ধাপরাধী শহীদুল্লাহ ফকির উপজেলা কাকনহাটি গ্রামের মৃত কমর উদ্দিন ফকিরের ছেলে। তার বিরুদ্ধে স্বাধীনতা যুদ্ধে মানবতাবিরোধী কর্মকান্ডের অভিযোগে ২০২০ সালের ২ নভেম্বর আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইবুনালে অভিযোগ দায়ের করা হয়। সেই অভিযোগের প্রেক্ষিতে বিষয়টি তদন্ত চলছে ট্রাইবুনালে। তদন্ত চলাকালীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার ঈশ্বরগঞ্জ থানার এসআই শাওন চক্রবর্তীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ তাকে আটক করে। আটককৃত শহীদুল্লাহ ফকিরের বাড়ী কাকনহাটি হলেও তিনি বাস করতে ঢাকার বনানীর একটি অভিজাত বাড়ীতে।

পৌর মেয়র বীরমুক্তিযোদ্ধা সাবেক কমান্ডার আব্দুস ছাত্তার বলেন, শহীদুল্লাহ ফকির ১৯৭১ সালে আলবদর বাহিনীর কমান্ডার ছিল। এসময় তিনি পাকিস্তানি বাহিনীর সাথে হাত মিলিয়ে স্বাধীনতাকামী মানুষের উপর চালিয়ে ছিল সীমাহীন নিষ্ঠুরতা। তার প্রধান কাজ ছিল হত্যা অগ্নি সংযোগসহ লুটতরাজ করা। তার অপকর্মের মধ্যে উল্লেখযোগ্য ছিল ঈশ্বরগঞ্জ চরনিখলা উচ্চ বিদ্যালয়ের তৎকালীন প্রধান শিক্ষক হরিদাস ভট্রাচার্য ও তার ছেলেমেয়েকে নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করা। ১৬ ডিসেম্বর বিজয় লাভের পর এ যুদ্ধাপরাধী কিশোরগঞ্জে শহীদি মসজিদে অবস্থান করে দেশ বিরোধী নানা ষড়যন্তে লিপ্ত ছিল। মুক্তিযোদ্ধাদের চাপের মুখে কিশোরগঞ্জ থেকে আত্মগোপনে চলে যায়। পরে ১৯৭৫ সালে বঙ্গবন্ধুর হত্যাকান্ডের পর সে জনসম্মুখে আত্মপ্রকাশ ঘটে।

এ ব্যাপারে ঈশ্বরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত আব্দুল কাদের মিয়া বলেন, শহীদুল্লার বিরুদ্ধে ট্রাইবুনালে গ্রেফতারি পরোয়ান জারির বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন। এমতাবস্থায় ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

(এন/এসপি/সেপ্টেম্বর ২৩, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

১৬ অক্টোবর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test