E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

মান্দায় চাকরির দাবিতে প্রধান শিক্ষককে হুমকির অভিযোগ!

২০২১ নভেম্বর ২৫ ১৭:২৮:০৩
মান্দায় চাকরির দাবিতে প্রধান শিক্ষককে হুমকির অভিযোগ!

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁর মান্দায় আয়া পদে চাকরির দাবিতে বুড়িদহ উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক তৃপ্তিশ চন্দ্র মন্ডলকে হুমকি দেয়ার অভিযোগ উঠেছে এক প্রার্থীর পরিবারের বিরুদ্ধে। বিভিন্ন মামলায় জড়িয়ে হয়রানী ও রাস্তাঘাটে লাঞ্ছিত করার হুমকিতে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন তিনি। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২ টায় মান্দা প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধান শিক্ষক তৃপ্তিশ চন্দ্র মন্ডল এসব অভিযোগ করেন। 

সংবাদ সম্মেলনে প্রধান শিক্ষক তৃপ্তিশ চন্দ্র মন্ডল বলেন, বিদ্যালয়ের সৃষ্টপদে একজন আয়া, অফিস সহায়ক ও নৈশপ্রহরী নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। এসব পদে প্রার্থীদের আবেদনপত্র যাচাই-বাছাই করা হয়েছে কিন্তু এখনো বোর্ড গঠন করা হয়নি। এ অবস্থায় আয়া পদের প্রার্থী শামুকখোল (বুড়িদহ বাজার) গ্রামের শরিফুন নাহারের স্বামী ফারুক হোসেন তাঁর স্ত্রীর চাকরির দাবিতে মুঠোফোনসহ বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে যাচ্ছেন।

প্রধান শিক্ষক আরও বলেন, গতবছরের ১৩ নবেম্বর শামুকখোল বটতলা গ্রামে রাধাগোবিন্দ মন্দিরের কমিটি গঠনকে কেন্দ্র করে সম্প্রদায়ের লোকজনের মধ্যে মতবিরোধ সৃষ্টি হয়। জের ধরে ওই রাতেই বুড়িদহ বাজারে উভয় পক্ষের সংঘর্ষে পাঁচজন আহত হন। সংঘর্ষে আয়া পদের প্রার্থী শরিফুন নাহারের স্বামী ফারুক হোসেনের দোকান ভাঙচুর হয়। ঘটনায় আদালতে উভয়পক্ষের মামলা চলছে।

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘দোকান ভাঙচুরের ঘটনায় আমার কাছ থেকে জোরপূর্বক একটি প্রতিবেদন লিখে নিয়েছেন ফারুক হোসেন ও তাঁর লোকজন। এছাড়া সংঘর্ষের ঘটনায় বিদ্যালয় সভাপতি সুজয় কুমার প্রামানিকসহ আমার নামে একটি মিথ্যা এজাহার সাজিয়ে তা মোবাইল ম্যাসেঞ্জারে পাঠিয়ে টাকা দাবি করা হয়। বিদ্যালয় সভাপতি ভয়ে তাঁদের হাতে ১৫ হাজার টাকা তুলে দেন। তাঁদের হুমকিতে বর্তমানে আমি চরম নিরাপত্তাহীনতা ভুগছি।’

বিদ্যালয় সভাপতি সুজয় কুমার প্রামানিক বলেন, নিয়োগ প্রক্রিয়া চুড়ান্ত না হলেও প্রধান শিক্ষক তৃপ্তিশ চন্দ্র মন্ডল ও আমার বিরুদ্ধে ৯ লাখ টাকা ঘুষ গ্রহণের ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলেছেন চাকরি প্রার্থী শরিফুন নাহারের স্বামী ফারুক হোসেন। একই সঙ্গে কয়েকটি অনলাইন পোর্টালেও সংবাদ প্রকাশ করানো হয়েছে। নিয়োগ প্রক্রিয়াকে বিতর্কিত করতে এসব অপপ্রচার করা হচ্ছে বলেও তিনি দাবি করেন।

এ প্রসঙ্গে চাকরি প্রার্থী শরিফুন নাহারের স্বামী ফারুক হোসেনের সঙ্গে মোবাইলফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করা হলেও ফোনটি রিসিভ না করায় তাঁর বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

(বিএস/এসপি/নভেম্বর ২৫, ২০২১)

পাঠকের মতামত:

২৮ নভেম্বর ২০২১

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test