E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

তালায় অরক্ষিত অবস্থায় ব্যালট পেপার রাখার অভিযোগ, ফেরত পাঠাল আদালত

২০২২ জানুয়ারি ২০ ১৯:১২:৪৫
তালায় অরক্ষিত অবস্থায় ব্যালট পেপার রাখার অভিযোগ, ফেরত পাঠাল আদালত

রঘুনাথ খাঁ, সাতক্ষীরা : সাতক্ষীরা তালায় নির্বাচন অফিসে ভোটের ব্যালট পেপার অরক্ষিত অবস্থায় রাখার অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার সকালে ব্যালট পেপার সাতক্ষীরা নির্বাচনী ট্রাইবুনালে পাঠানোর সময় বস্তার মুখ খোলা পেয়ে প্রতিবাদ জানান সরুলিয়া ইউনিয়ন ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান। এনিয়ে উপজেলা নির্বাচন অফিসার ও উপজেলা চেয়ারম্যানের মধ্যে উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় হয়। তবে বস্তার মুখ খোলা থাকায় ব্যালট গ্রহণ করেননি আদালত।

জানা যায়, বিগত ২০ সেপ্টেম্বর ২০২১ অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনের প্রাপ্ত ভোট নিয়ে আদালতে পুনগণনার আদেশ চেয়ে মামলা করেন সরুলিয়া ইউনিয়নের নিকটতম পরাজিত প্রার্থী আব্দুর রব পলাশ। বৃহস্পতিবার সকালে আদালতের নির্দেশে উপজেলা নির্বাচন অফিস থেকে সরুলিয়া ইউনিয়নের ব্যালট পেপার ভর্তি ৫টি বস্তা ষ্টোর রুম থেকে বের করার সময় একটি বস্তার মুখ খোলা ও কিছু ব্যালট পেপার ছড়ানো ছিটানো পাওয়া যায়। শুধু তাই নয়, ব্যালট পেপার ভর্তি মুখ খোলা বস্তা গাড়ীতে তোলার অভিযোগ করেছেন সংশ্লিষ্টরা।

সরুলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হাই জানান, আমার ভোট নষ্ট করার জন্য কুটকৌশলে বস্তা খুলে ব্যালট পেপার নষ্ট করা হতে পারে।

তালা উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা রাহুল রায় জানান, ভোটের ব্যালটের বস্তাগুলো একটি ঘরের মধ্যে স্তুপ করে রাখা ছিল। সেখানে অনেকগুলো বস্তা রয়েছে। সেখান থেকে বের করার সময় বস্তার মুখটা খুলে যায় সে কারণে আদালত ব্যালটের বস্তা গুলো গ্রহণ করেন-নি। এ বিষয়ে আমরা আদালতের পরবর্তী নির্দেশনার অপেক্ষায় রয়েছি।

ব্যালট আদালতে নিতে বাঁধাদানের অভিযোগের বিষয়ে তিনি বলেন, কেউ বাঁধা দেয়নি তবে চেয়ারম্যান আব্দুল হাই বস্তার মুখ খোলা থাকায় আপত্তি করেছেন।

তালা উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ঘোষ সনৎ কুমার জানান, খবর পেয়ে গিয়ে দেখি একটি বস্তা খোলা ও বেশ কিছু ব্যালট পেপার ছাড়ানো-ছিটানো ছিলো। এই অবস্থায় বস্তা গাড়ীতে তোলা হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী বস্তা সিল গালা থাকার কথা। আমি এর প্রতিবাদ করেছি।

(আরকে/এএস/জানুয়ারি ২০, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

২৩ মে ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test