E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

সাতক্ষীরায় টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন

২০২২ মে ২৪ ১৮:২৪:৩২
সাতক্ষীরায় টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন

রঘুনাথ খাঁ, সাতক্ষীরা : “ত্রাণ চাই না, টেকসই বেঁড়িবাধ চাই” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে সাতক্ষীরার উপকুলীয় উপজেলা আশাশুনিতে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের দাবিতে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে। জেলা নাগরিক কমিটি আয়োজনে মঙ্গলবার বেলা সাড়ে ১১টায় সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সামনে ঘন্টাব্যাপী উক্ত মানববন্ধন কর্মসুচি পালিত হয়। 

সাতক্ষীরা জেলা নাগরিক কমিটির আহবায়ক আনিসুর রহিমের সভাপতিত্বে ও যুগ্ম সদস্য সচিব আলী নুর খান বাবুলের সঞ্চালনায় মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন, জেলা নাগরিক কমিটির সদস্য সচিব ও সাতক্ষীরা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি আবুল কালাম আজাদ, শিক্ষাবিদ প্রফেসর আব্দুল হামিদ, দৈনিক দক্ষিণের মশাল সম্পাদক অধ্যক্ষ আশেক-ই-এলাহী, আশাশুনি সদর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এস এম হোসেনুজ্জামান, জেলা নাগরিক কমিটির যুগ্ন আহবায়ক অ্যাড. আজাদ হোসেন বেলাল, জেলা সিপিবির সভাপতি আবুল হোসেন, উদীচির সভাপতি শেখ সিদ্দিকুর রহমান, মানবাধিকার কর্মী মাধব চন্দ্র দত্ত প্রমুখ।

বক্তারা বলেন, ত্রাণ চাই না, টেকসই বেড়িবাঁধ চাই। নদী ভাঙ্গনের মতো দুর্যোগের মুখোমুখি আর হতে চাই না। আমরা পরিবার নিয়ে বাপ-দাদার ভিটায় থাকতে চাই, পানিতে নয়। আশাশুনিতে যত নদী আছে সেগুলো খনন করতে হবে। জলাবদ্ধতা নিরসনে সরকার কর্তৃক বরাদ্দকৃত অর্থ যথাযথভাবে খরচ করতে হবে। বক্তারা আরো বলেন, ষাটের দশকে নির্মিত সাতক্ষীরা উপকূল রক্ষা বাঁধের অধিকাংশ জরাজীর্ণ হয়ে পড়ায় উপকূলের মানুষও সবসময় অনিরাপদ জীবনযাপন করে থাকেন।

ঘূর্ণিঝড় আম্ফানের সময় আশাশুনি উপজেলার বিভিন্ন স্থানে বেঁড়িবাধ ভেঙে বিস্তীর্ণ এলাকা প্লাবিত হয়। বিশেষ করে প্রতাপনগর, শ্রীউলা ও আশাশুনি সদরের মানুষ দীর্ঘদিন ধরে মানবেতর জীবন যাপন করেছেন। স্বাভাবিক সময়ে বেড়িবাঁধ নিয়ে কর্তৃপক্ষের কোন মাথা ব্যথা থাকে না। প্রাকৃতিক দুর্যোগ আসলেই শুরু হয় তোড়জোড়। যা এবার ঘূর্ণিঝড় অশনির সময়ও দেখা গেছে। কিন্তু এখন আর সেই তোড়জোড় নেই।

বক্তারা এ সময় উপকূলীয় উপজেলা আশাশুনি ও শ্যামনগরে টেকসই বেড়িবাঁধ নির্মাণের জোর দাবি জানান। পরে একই দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

(আরকে/এসপি/মে ২৪, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

২৫ জুন ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test