E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

দৌলতদিয়ায় বিআইডব্লিউটিসির ষ্টাফ পরিচয়ে ভুয়া টিকিট দিয়ে ফেরিতে ট্রাক পারের চেষ্টায় মামলা

২০২২ মে ২৫ ১৮:০৬:৪১
দৌলতদিয়ায় বিআইডব্লিউটিসির ষ্টাফ পরিচয়ে ভুয়া টিকিট দিয়ে ফেরিতে ট্রাক পারের চেষ্টায় মামলা

মিঠুন গোস্বামী, রাজবাড়ী : রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলার দৌলতদিয়া ঘাটে সাতক্ষীরা থেকে আসা একটি পণ্যবাহী ট্রাক চালকের সহকারীর কাছে বিআইডব্লিউটিসির ষ্টাফ পরিচয়ে ভুয়া টিকিট ধরিয়ে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই টিকিটের বিনিময়ে চালকের সহকারীর থেকে ৬ হাজার টাকা আত্মসাতের অভিযোগে সোহেল রানা চৌধুরী (২৮) নামের এক তরুণকে আসামী করে চালক থানায় মামলা করেছেন। 

সোহেল রানা চৌধুরী দৌলতদিয়া ঘাট বাজার পুলিশ ব· সংলগ্ন এলাকার জাহাঙ্গীর চৌধুরীর ছেলে। তিনি নিজে একজন সংবাদকর্মী দাবী করে বিভিন্ন স্থানে পরিচয় দেন। ঘটনাটি ঘটেছে গত মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটার দিকে। এ ঘটনায় ওই দিন রাতেই থানায় মামলা দায়ের হয়েছে। তবে পুলিশ এখন পর্যন্ত ওই প্রতারককে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

থানায় দায়েরকৃত অভিযোগে জানা যায়, গত মঙ্গলবার (২৪ মে) ভোরে সাতক্ষীরা থেকে সিরমি· পাউডার বোঝাই করে ট্রাক (ঢাকা মেট্রো ট-১৮-২১৬৯) চালক আনোয়ার হোসেন ঢাকার উদ্দেশ্যে রওয়ানা করেন। সকাল সাড়ে দশটার দিকে দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটে পৌছে টিকিটের জন্য বিআইডব্লিউটিসির বুকিং কাউন্টারের কাছে চালকের সহকারীকে পাঠান।

সহকারী মো. সোহেল কাউন্টারের পশ্চিম পাশে পৌছলে সোহেল রানা চৌধুরী নিজেকে বিআইডব্লিউটিসির লোক পরিচয় দিয়ে ট্রাকে ওভার লোড (অতিরিক্ত ওজন) আছে বলে টিকিটের জন্য ৬ হাজার টাকা দাবী করেন। চাহিদামতো মো. সোহেল তার কাছে ৬ হাজার টাকা প্রদান করলে হাতে একটি ফেরির টিকিট ধরিয়ে দেয়। টিকিটটি হাতে নিয়ে তাতে নম্বর কাটা এবং ওভার লোডের ভাড়া উল্লেখ নেই দেখে সন্দেহ হয়।

দৌলতদিয়ার ৩নম্বর ঘাটে পৌছে বিআইডব্লিউটিসির কর্তব্যরত এক ষ্টাফকে টিকিটটি দেখিয়ে ঠিক আছে কি না জানতে চান। তখন কর্তব্যরত ওই ব্যক্তি তাঁঁর গাড়ির নম্বরে টিকিটটি কাটা নয় এবং টিকিটের স্কেল নম্বরও ঠিক নেই বলে জানান। বিষয়টি সাথে সাথে পুলিশের সহযোগিতা চান। খবর পেয়ে পুলিশ ঘাটে উপস্থিত হয়ে টিকিটটি জব্দ তালিকা মূলে জব্দ করে। পরবর্তীতে এ ঘটনায় চালক আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতেই গোয়ালন্দ ঘাট থানায় প্রতারণার অভিযোগে সোহেল রানা চৌধুরীর বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করেন।

জানতে চাইলে অভিযুক্ত সোহেল রানা চৌধুরী দাবী করেন, তার নিয়োজিত এক কর্মচারী ভুল বশত আগের একটি গাড়ির জন্য কাটা টিকিটটি তার হাতে দিয়েছিল। পরবর্তীতে তাকে সঠিক টিকিট দিয়ে ঝামেলা মীমাংসা করা হয়েছে। এখানে সামান্য একটু ভুল বোঝাবুঝি হয়েছে। এছাড়া প্রতারণার অভিযোগ সঠিক নয়।

এ প্রসঙ্গে গোয়ালন্দ ঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) স্বপন কুমার মজুমদার জানান, মামলা দায়েরের পর অভিযুক্ত সোহেল রানা চৌধুরী পলাতক রয়েছে। তবে পুলিশ তাঁকে গ্রেপ্তারের জন্য মাঠে কাজ করছেন।

(এমজি/এসপি/মে ২৫, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

০৩ জুলাই ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test