E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Walton New
Mobile Version

শিক্ষার্থীর লাঠির আঘাতে নিহত শিক্ষক উৎপলের শেষকৃত্য সম্পন্ন 

২০২২ জুন ২৮ ১৮:৪৩:৪১
শিক্ষার্থীর লাঠির আঘাতে নিহত শিক্ষক উৎপলের শেষকৃত্য সম্পন্ন 

ইমরান হোসাইন, সিরাজগঞ্জ : সাভারের আশুলিয়ায় শিক্ষার্থীর লাঠির আঘাতে নিহত সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়ার প্রভাষক উৎপল কুমার সরকারের মরদেহের শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়েছে। 

সোমবার (২৭ জুন) রাত ৩টার দিকে নিহত শিক্ষকের গ্রামের বাড়ির পার্শ্ববর্তী লাহিড়ী মোহনপুর শ্মশানে তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়।

এর আগে গতকাল সোমবার (২৭ জুন) ঢাকার সাভার থেকে উল্লাপাড়া উপজেলার লাহিড়ী মোহনপুর ইউনিয়নের এলংজানী গ্রামের নিজ বাড়িতে তার মরদেহ আনা হয় রাত ৯টার দিকে।

এদিকে উল্লাপাড়া উপজেলার মোহনপুর ইউনিয়নের এলংজানী গ্রামে তার বাড়িতে মরদেহ এসে পৌঁছালে সেখানে এক হৃদয়বিদারক দৃশ্যের সৃষ্টি হয়।

উৎপলের ভাই অসীম কুমার সরকার জানান, রাত ৯টার দিকে উৎপলের মরদেহ বাড়িতে এসে পৌঁছায়। রাত ১১টার দিকে তার মরদেহ লাহিড়ী মোহনপুর তীরমনি শ্মশানে নিয়ে রাত ৩টার দিকে শেষকৃত্য সম্পন্ন করা হয়।

অসীম কুমার সরকার বলেন, আমার ভাইয়ের হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে যারা জড়িত তাদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানাই। আমার ভাইয়ের জীবন তো আর ফিরে আসবেনা। আমাদের একটাই দাবি হত্যাকাণ্ডের যাতে যে জরিত তার ফাঁসি চাই।

মোহনপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ বলেন, তার এই অকাল ও মর্মান্তিক মৃত্যু পরিবার ও এলাকাবাসি কেউ মেনে নিতে পারছি না। তার পরিবারে গভীর শোক বিরাজ করছে। শিক্ষার্থীর আঘাতে শিক্ষকের মৃত্যু এটা মেনে নেওয়া যায় না। এর সুষ্ঠ বিচার চাই।

উৎপল উল্লাপাড়া উপজেলার এলংজানী গ্রামের মৃত অজিত সরকারের ছেলে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর শেষ করেন তিনি। আশুলিয়ার চিত্রশাইল এলাকার হাজী ইউনুস আলী স্কুল ও কলেজে রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক হিসেবে ১০ বছর কর্মরত ছিলেন। উৎপল ওই প্রতিষ্ঠানের শৃঙ্খলা কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করেছিলেন। এ দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে বিভিন্ন সময় উচ্ছৃঙ্খল শিক্ষার্থীদের মানসিকতা উন্নয়নে কাজ ও শাসন করতে হয়েছে তাকে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার (২৫ জুন) হাজী ইউনুস আলী স্কুল ও কলেজ মাঠে ছাত্রীদের ফুটবল খেলা চলছিল। প্রভাষক উৎপল মাঠের এক পাশে দাঁড়িয়ে খেলা দেখছিলেন। এ সময় ওই প্রতিষ্ঠানের দশম শ্রেণির ছাত্র আশরাফুল ইসলাম জিতু ক্রিকেটের স্টাম্প নিয়ে এসে উৎপলকে বেধড়ক পেটাতে শুরু করে।

পরে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে সাভার এনাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অবস্থার অবনতি হলে আইসিউতে রাখা হয়। মৃত্যুর সঙ্গে লড়ে সোমবার সকালে তিনি মারা যান।

(আই/এসপি/জুন ২৮, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

২৫ জুন ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test