E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

নওগাঁয় জমি দখলে বাধা দেয়ায় হাত ভেঙে দিল প্রতিপক্ষ!

২০২২ জুলাই ০৫ ১৬:৪০:২৮
নওগাঁয় জমি দখলে বাধা দেয়ায় হাত ভেঙে দিল প্রতিপক্ষ!

নওগাঁ প্রতিনিধি : নওগাঁ সদর উপজেলার শিকারপুর ইউনিয়নের শৈলকোপা গ্রামে জমি নিয়ে বিরোধের জের ধরে  প্রতিপক্ষের হামলায় শিশুসহ তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন। আহতরা হলেন, ওই গ্রামের আমিনুল ইসলাম সাইফুল (৫৫), শিরিনা বেগম (৫০) ও চাঁদনী (১২)। তাদের নওগাঁ সদর হাসপালে ভর্তি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার এঘটনায় আহত আমিনুল ইসলাম সাইফুলের ভাই একরামুল হক পলাশ বাদী হয়ে নওগাঁ সদর মডেল থানায় ৫জনকে আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের রফিকুলদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে আমিনুল ইসলামদের জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। গত রবিবার (৩জুলাই) বিকেলে প্রতিপক্ষরা আমিনুলদের পৈত্রিক জমি জবরদখলের চেষ্টা করে। খবর পেয়ে আমিনুল ইসলাম তার স্ত্রী শিরিনা বেগম এবং নাতনী চাঁদনীকে সাথে নিয়ে জমিতে গেলে প্রতিক্ষরা পিটিয়ে হাত ভেঙে দেন। স্বামীকে রক্ষা করতে গিয়ে হামলার শিকার হন তার স্ত্রী এবং নাতনী। প্রতিপক্ষরা তাদেরকেও বেধরক মারপিট এবং শ্লীলতাহানী করে। একটি পরিবারের ওপর এভাবে প্রকাশ্যে হামলার ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

নওগাঁ সদর হাসপালে চিকিৎসাধীন আহত আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রতিপক্ষরা তাদের পৈত্রিক জমি জবরদখলের চেষ্টা করেছে। পিটিয়ে তার হাত ভেঙে দিয়েছে। তার স্ত্রী এবং নাতনীকেও মারপিট এবং শ্লীলতাহানী করেছে। স্থানীয়দের সহায়তায় তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপালে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযুক্তরা হলেন একই গ্রামের রফিকুল ইসলাম(৪৫), বেলাল(৫০), সম্রাট (২৫),ইসলাম(৪৫) এবং মোস্তাক(৩৫)।
শিকারপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান কাজী রুকুনুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। ভুক্তভোগী পরিবারকে আইনের আশ্রয় নিতে বলা হয়েছে। তাদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।

নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম জুয়েল বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

(বিএস/এসপি/জুলাই ০৫, ২০২২)

মঙ্গলবার এঘটনায় আহত আমিনুল ইসলাম সাইফুলের ভাই একরামুল হক পলাশ বাদী হয়ে নওগাঁ সদর মডেল থানায় ৫জনকে আসামী করে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।অভিযোগ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই গ্রামের রফিকুলদের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে আমিনুল ইসলামদের জমি নিয়ে বিরোধ চলছে। গত রবিবার (৩জুলাই) বিকেলে প্রতিপক্ষরা আমিনুলদের পৈত্রিক জমি জবরদখলের চেষ্টা করে। খবর পেয়ে আমিনুল ইসলাম তার স্ত্রী শিরিনা বেগম এবং নাতনী চাঁদনীকে সাথে নিয়ে জমিতে গেলে প্রতিক্ষরা পিটিয়ে হাত ভেঙে দেন। স্বামীকে রক্ষা করতে গিয়ে হামলার শিকার হন তার স্ত্রী এবং নাতনী। প্রতিপক্ষরা তাদেরকেও বেধরক মারপিট এবং শ্লীলতাহানী করে। একটি পরিবারের ওপর এভাবে প্রকাশ্যে হামলার ঘটনাটি নিয়ে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।নওগাঁ সদর হাসপালে চিকিৎসাধীন আহত আমিনুল ইসলাম বলেন, প্রতিপক্ষরা তাদের পৈত্রিক জমি জবরদখলের চেষ্টা করেছে। পিটিয়ে তার হাত ভেঙে দিয়েছে। তার স্ত্রী এবং নাতনীকেও মারপিট এবং শ্লীলতাহানী করেছে। স্থানীয়দের সহায়তায় তাদের উদ্ধার করে নওগাঁ সদর হাসপালে ভর্তি করা হয়েছে।অভিযুক্তরা হলেন একই গ্রামের রফিকুল ইসলাম(৪৫),বেলাল(৫০),স¤্রাট(২৫),ইসলাম(৪৫) এবং মোস্তাক(৩৫)।শিকারপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান কাজী রুকুনুজ্জামান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আহতরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। ভুক্তভোগী পরিবারকে আইনের আশ্রয় নিতে বলা হয়েছে। তাদের সব ধরনের সহযোগিতা করা হবে।নওগাঁ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ নজরুল ইসলাম জুয়েল বলেন, এ বিষয়ে একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।#বিশ^জিৎ সরকার।নওগাঁ।তাং-০৫-০৭-২২।ফোন-০১৫৫৮৪৭৪৪৫৮।

পাঠকের মতামত:

১৯ আগস্ট ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test