E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

শৈলকুপায় আ.লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২২, বাড়ি ভাঙচুর

২০২২ আগস্ট ০৮ ১৭:৫৩:৪৬
শৈলকুপায় আ.লীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে আহত ২২, বাড়ি ভাঙচুর

শেখ ইমন, শৈলকুপা : ঝিনাইদহের শৈলকুপা  উপজেলার শেখরা গ্রামে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ২২ জন আহত হয়েছে। সোমবার সকালে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। সেসময় ভাংচুর করা হয় অন্তত ২৫টি বাড়িঘর।

শৈলকুপা থানার ওসি মোঃ আমিনুল ইসলাম জানান, গত ৫ জানুয়ারি নিত্যান্দপুর ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক হোসেন ও বর্তমান চেয়ারম্যান মফিজ বিশ্বাসের সমর্থকদের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল।রবিবার বিকালে ফারুক ও মফিজ হোসেনের দুই সমর্থকের হাতাহাতি হয়। এরই জের ধরে সকাল ৭টার দিকে উভয় পক্ষের লোকজন ঢাল, সরকি, রামদা, লাঠিসোটা ও ইটপাটকেল নিয়ে সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে উভয় পক্ষে আহতের ঘটনা ঘটে ২২ জন আহত হয়। এ সময় ভাংচুর করা হয় ২০ - ২৫টি বাড়িঘর। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশ ২ সাউন্ড গ্রেনেড নিক্ষেপ করে।

আহতদের মধ্যে ২০ জনকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতাল ও ২ জনকে শৈলকুপা উপজেলা স্বাাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। উত্তেজনা থাকায় গ্রামে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

শৈলকুপা উপজেলা আওয়ামী লীগের আহবায়ক মতিয়ার রহমান জানান, বর্তমান চেয়ারম্যান মফিজ বিশ্বাস নিত্যানন্দপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের যুগ্ম আহবায়ক। সাবেক চেয়ারম্যান ফারুক হোসেনও যুগ্ম আহবায়ক ছিলেন। গত ইউপি নির্বচনে সতন্ত্র প্রার্থী হওয়ায় তাকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। তবে ফারুক হোসেন বলেন, তিনি নিত্যানন্দপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি।

(আই/এসপি/আগস্ট ০৮, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

০১ অক্টোবর ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test