E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

সালথায় ৬টি চোরাই গরু উদ্ধার, আটক ১

২০২২ আগস্ট ১৯ ১৬:০১:১৯
সালথায় ৬টি চোরাই গরু উদ্ধার, আটক ১

সালথা প্রতিনিধি : ফরিদপুরের সালথা উপজেলায় ৬টি চোরাই গরু উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১৯ আগস্ট) সকালে সালথার গট্টি ইউনিয়নের জয়ঝাপ গ্রামের রুস্তম মোল্যা ও তোতা মোল্যার বাড়ি থেকে গরুগুলো উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় চোরাই গরু চোর চক্রের এক নারী সদস্যকে আটক করা হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত র্কমকর্তা। 

নাম প্রকাশ না করার শর্তে জয়ঝাপ গ্রামের কয়েকজন বাসিন্দা জানিয়েছেন- ৪-৫ বছর ধরে জয়ঝাপ গ্রামের রুস্তম মোল্যার ছেলে জিয়া মোল্যা দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে ট্রাকে করে চোরাই গরু এনে গভীর রাতে নিজের বাড়িতে রাখেন। পরে বাড়িতে বসেই সেই গরু ব্যবসায়ীদের সরবারহ ও বিক্রি করেন। আবার এই এলাকা থেকে চোরাই গরু নিয়ে অন্য এলাকায় সরবারহ করে থাকেন। দেশের বড় বড় গরু চোর চক্রের সাথে রয়েছে জিয়ার সখ্যতা। এসব ঘটনায় একাধিকবার জিয়াকে আটকও করে পুলিশ। পরে বা-মায়ের চাপে মুখে গত বছর বিদেশে চলে যান জিয়া।

তবে বিদেশে গিয়েও তার চোরাই গরু সরবারহ বন্ধ হয়নি। বিদেশে বসেই ফোনের মাধ্যমে জিয়া তার আপন ভাগিনা জনি (২০) কে দিয়ে চোরাই গরু সরবারহ করতে থাকে। জিয়া আর জনির বাড়ি একই গ্রামে এবং পাশাপাশি। এরই ধারাবাহিকতায় বৃহস্পতিবার গভীর রাতে ট্রাকে করে বেশ কয়েকটি চোরাই গরু এনে বাড়িতে রাখেন জনি। খবর পেয়ে পুলিশ শুক্রবার সকালে গরুগুলো উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

সালথা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শেখ সাদিক বলেন- গোপন সংবাদেও ভিত্তিতে শুক্রবার সকালে গট্টি ইউনিয়নের জয়ঝাপ গ্রামের জিয়া ও জনির বাড়িতে অভিযান চালিয়ে ছয়টি গরু উদ্ধার করা হয়। ওই গ্রামের বিখ্যাত ও পেশাদার আন্তঃজেলা গরু চোর জিয়া। সে এখন বিদেশে থাকে। তার স্ত্রী এবং ভাগিনা জনি, তারা এখন গরু চুরি করে। তাদের বাড়িতে চোরাই এই গরুগুলো এনে রাখে। এ ঘটনায় জিয়ার স্ত্রীকে আটক করা হয়েছে। তিনি বলেছেন যে, এই গরুগুলি শরিয়তপুরের পালং থানা থেকে চুরি করা হয়েছে।

(এন/এসপি/আগস্ট ১৯, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test