E Paper Of Daily Bangla 71
Janata Bank Limited
Technomedia Limited
Mobile Version

টাঙ্গাইলে সকালে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, দুপুরে পৌর মেয়রের সংবাদ সম্মেলন

২০২২ অক্টোবর ০২ ১৮:৪৬:১৩
টাঙ্গাইলে সকালে শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ, দুপুরে পৌর মেয়রের সংবাদ সম্মেলন

মোঃ সিরাজ আল মাসুদ, টাঙ্গাইল : টাঙ্গাইল পৌরসভার আধুনিকায়নে অধিনস্ত সড়কগুলো প্রশস্তকরণের বিকল্প নেই। সময়ের সাথে বর্ধিত জনগোষ্ঠীর সুবিধার্থে যানজট-জলজট নিরসনে সড়কের সঙ্গে প্রশস্ত ও গভীর ড্রেনেজ ব্যবস্থা টাঙ্গাইল পৌরসভার আধুনিকায়নে খুবই জরুরি। এজন্য পৌরসভার সম্পত্তি দখল করে যারা স্থাপনা নির্মাণ করেছেন- তাদেরকে নিজ দায়িত্বে সকল স্থাপনা সরিয়ে নিতে হবে। রবিবার (২ অক্টোবর) দুপুরে টাঙ্গাইলের সাংবাদিকদের সঙ্গে পৌর মেয়রের মতবিনিময় সভায় এসব কথা ওঠে এসেছে।

মতবিনিময় সভায় বলা হয়- টাঙ্গাইল পৌরসভার অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওয়ায় নিড়ালা মোড় থেকে জেলা সদর মসজিদ পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ, ড্রেন, ফুটপাত নির্মাণ ও ষ্ট্রিট লাইট স্থাপনের কাজ চলছে। ওই সড়কের অনুমোদিত নকশা অনুযায়ী পরিমাপকালে দুইপাশে অবৈধভাবে নির্মিত বিভিন্ন স্থাপনা অপসারণ করা হচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় টাঙ্গাইলের ঐতিহ্যবাহী বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সীমানাও পরিমাপ করা হয়। পরিমাপ অনুযায়ী স্কুলের পুর্ব পাশের দেয়াল উত্তর পাশে ৮ ফুট এবং দক্ষিণ পাশে ৬ ফুট পৌরসভার সড়কের জায়গা দখল করে নির্মাণ করা হয়েছে। ওই জায়গা দখলমুক্ত করতে জেলা প্রশাসক ও স্কুলের সভাপতি পৌরসভার জায়গা ছেড়ে দেওয়ার জন্য প্রধান শিক্ষককে নির্দেশনা দিয়েছেন।

মতবিনিময় সভায় পৌর মেয়র এসএম সিরাজুল হক আলমগীর অভিযোগ করেন- কিন্তু প্রধান শিক্ষক মো. আব্দুল করিম মিথ্যা তথ্য উপস্থাপন করে উদ্দেশ্যেমূলকভাবে স্কুলের কোমলমতি ছাত্রসহ প্রাক্তন ছাত্রদেরকে উস্কে দিচ্ছেন। বিভিন্ন মহলে মিথ্যা তথ্য ছড়িয়ে বিভ্রান্তি সৃষ্ঠি করছেন। ফলশ্রুতিতে স্কুলের বর্তমান ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করছে।

মতবিনিময় সভায় বক্তারা জানান, বিন্দুবাসিনী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় টাঙ্গাইলের একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মেয়রও ওই প্রতিষ্ঠানেরই ছাত্র। তাই স্কুল পরিচালনা কমিটি, স্থানীয় রাজনৈতিক-সামাজিক ব্যক্তিত্বদের নিয়ে আলোচনার ভিত্তিতে এ সমস্যার সমাধান সম্ভব।

টাঙ্গাইল পৌরসভা মিলনায়তনে আয়োজিত মতবিনিময় সভায় পৌর মেয়র এসএম সিরাজুল হক আলমগীর, প্যানেল মেয়র হাফিজুর রহমান স্বপন, প্যানেল মেয়র তানভীর হাসান ফেরদৌস নোমান, টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবের সভাপতি জাফর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক কাজী জাকেরুল মওলাসহ স্থানীয় সাংবাদিকগণ অংশ নেন।

এদিকে বিদ্যালয়ের প্রাচীর ভেঙে সড়ক প্রশস্তকরণের প্রতিবাদে বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে বর্তমান ও প্রাক্তন পাঁচ শতাধিক ঘণ্টাব্যাপী মানববন্ধন ও বিক্ষোভ মিছিল করে।

টাঙ্গাইলে বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের পূর্বপাশের সীমানা প্রাচীর পৌরসভা কর্তৃক অপসারণ নোটিশ প্রদানের প্রতিবাদে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ সমাবেশ করেছে বিদ্যালয়ের প্রাক্তন ও বর্তমান শিক্ষার্থীরা।

একই দিন সকালে বিন্দুবাসিনী সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের ঘন্টা ব্যাপী এই মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

মানববন্ধন শেষে একটি বিক্ষোভ মিছিল বের করা হয়। মিছিলটি বিদ্যালয়ের সামনে থেকে শুরু হয়ে শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষণ শেষে পুনরায় বিদ্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা বলেন , বিন্দুবাসিনী সরকারী বালক উচ্চ বিদ্যালয় একটি ঐতিহ্যবাহী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। এই বিদ্যালয় কোন প্রতিষ্ঠানের জায়গা দখল করে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করেনি। তাই এই সীমানা প্রাচীর ভাঙ্গার নোটিশ অবিলম্বে প্রত্যাহার করতে হবে।না হলে সাবেক ও বর্তমান ছাত্রদের নিয়ে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে বলে হুশিয়ারী দেন শিক্ষার্থীরা।

(এসএম/এসপি/অক্টোবর ০২, ২০২২)

পাঠকের মতামত:

০৭ ডিসেম্বর ২০২২

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test