E Paper Of Daily Bangla 71
World Vision
Technomedia Limited
Mobile Version

নবীনগরে শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু

অবশেষে পুকুরে পাওয়া গেল সেই শিশু কন্যার মরদেহ

২০২৩ অক্টোবর ২১ ১৬:১১:৪০
অবশেষে পুকুরে পাওয়া গেল সেই শিশু কন্যার মরদেহ

বিশেষ প্রতিনিধি, ব্রাহ্মণবাড়িয়া : ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবীনগর উপজেলার বিদ্যাকুট গ্রামে এক শিশুর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। ২০ অক্টোবর সকালে ৪ মাস বয়সী ওই শিশু কন্যার মরদেহ বাড়ীর পাশ্ববর্তী এক পুকুর থেকে উদ্ধার করা হয়েছে। শিশুটির নাম হাজেরা বেগম। সে বিদ্যাকুট পূর্ব পাড়ার বাসিন্দা প্রবাসী অলিউল্লাহ মিয়ার কন্যা। ঘটনার পর শিশুটির পরিবারে এখন শোকের মাতম চলছে। 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (নবীনগর সার্কেল) মো. সিরাজুল ইসলাম দুপুরে বলেন, 'ইতিমধ্যে ওই শিশুর মরদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে।'

ঘটনার বর্ণনা দিয়ে নবীনগর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সজল কান্তি দাস জানান, শিশু হাজেরাকে সঙ্গে নিয়ে তার মা রুমা বেগম প্রতিদিনের মতো শুক্রবার রাতে ঘুমিয়ে পড়েন। তবে রাত আনুমানিক আড়াইটার দিকে রুমা বেগম টয়লেটে যান। কিছুক্ষণ পর টয়লেট থেকে ফিরে ঘরে এসে তিনি আবারও ঘুমিয়ে পড়েন। কিন্তু সকালে ঘুম থেকে ওঠে তিনি ঘরের দরজা খোলা দেখতে পান। এ সময় তিনি দেখেন, বিছানায় তার পাশে থাকা শিশু সন্তান হাজেরা বিছানায় নেই। পরে ঘটনাটি জানাজানি হলে, শিশুটির খুঁজে আত্মীয় স্বজন গ্রামের বিভিন্ন স্থানে খোঁজ খবর নেন। কিন্তু অনেক খোঁজাখুঁজি করেও শিশুটিকে পাওয়া যায়নি। পরে ঘটনা জানিয়ে ৯৯৯ এ কলা দেয়া হয়।

এক পর্যায়ে সকালে বাড়ির পাশে থাকা একটি পুকুর থেকে শিশু হাজেরার মরদেহ ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করে এলাকাবাসি। খবর পেয়ে জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপারসহ পুলিশের উর্ধতন কর্মকর্তারা ঘটনাস্থলে ছুটে যান।

এ বিষয়ে ঘটনাস্থল থেকে ফিরে এসে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সিরাজুল ইসলাম বলেন, 'শিশুটির মৃত্যু রহস্যজনক। তবে পুলিশ বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে খতিয়ে দেখছে। শিশুটির লাশ উদ্ধার করে জেলা মর্গে পাঠানো হয়েছে। মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।'

(জিডি/এসপি/অক্টোবর ২১, ২০২৩)

পাঠকের মতামত:

০৪ মার্চ ২০২৪

এ পাতার আরও সংবাদ

উপরে
Website Security Test